মাধবপুরে গৃহবধূকে ধর্ষণ

মাধবপুর (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি

বাংলারজমিন ২০ অক্টোবর ২০১৯, রোববার

হবিগঞ্জের মাধবপুরে এক গৃহবধূকে ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষক জাকির মিয়াকে (২৭) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল সকালে  তেলিয়াপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে উপজেলার বাগবাড়ী গ্রামের ফেদু মিয়ার ছেলে। অপরদিকে ধর্ষণের শিকার গৃহবধূকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
ধর্ষণের পর ধর্ষক ও তার সহযোগীদের ভয়ে ধর্ষিতার পরিবার তেলিয়াপাড়া এলাকা ছেড়ে পালিয়ে চট্টগ্রামে চলে যায়। ঘটনার ৯ দিন পর ধর্ষিতা মাধবপুর থানায় ৩ জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করলে পুলিশ ১ ধর্ষককে গ্রেপ্তার করে।
মামলা সূত্রে জানা যায়, চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলার একটি পরিবার তেলিয়াপাড়া রেল স্টেশনের একটি জায়গায় বসবাস করতো। ধর্ষিতার স্বামী নোয়াপাড়া বাজারে একটি কম্পিউটার দোকানে কাজ করে।
গত ১০ই অক্টোবর দুপুরে ওই গৃহবধূ তেলিয়াপাড়া এলাকায় অবস্থিত সেলামী শাহ মাজার জিয়ারতের জন্য বাসা থেকে বের হলে বখাটেরা জোরপূর্বক অটোরিকশায় তুলে নেয়। পরে সুরমা চা বাগানের ১০নং সেকশনে নিয়ে জাকির হোসেন জোরপূর্বক গৃহবধূকে ধর্ষণ করে।

এ সময় অন্য ২ সহযোগী পাহারা দেয়। ঘটনার পর ভয়ে গৃহবধূ ও তার পরিবার তেলিয়াপাড়া ছেড়ে চট্টগ্রামের মিরসরাই পালিয়ে যায়। ঘটনার ১২ দিন পর ধর্ষিতা মাধবপুর থানায় ৩ জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করে।
তেলিয়াপাড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই রাকিবুল ইসলাম অভিযান চালিয়ে উপজেলার বাগবাড়ি গ্রামের জাকির মিয়াকে গ্রেপ্তার করে। মাধবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কেএম আজমিরুজ্জামান জানান, ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। সহযোগীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।



আপনার মতামত দিন

বাংলারজমিন -এর সর্বাধিক পঠিত