তুহিন হত্যায় পরিবারের সদস্যরা সম্পৃক্ত!

সুনামগঞ্জ ও দিরাই প্রতিনিধি

অনলাইন ১৫ অক্টোবর ২০১৯, মঙ্গলবার, ২:৫৩

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার রাজানগর ইউনিয়নের কেজাউড়া গ্রামে শিশু তুহিন মিয়া (৫) হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় তার মা বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। সোমবার রাতে তুহিনের মা মনিরা বেগম দিরাই থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পরিবারের সদস্যরা হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে সম্পৃক্ত বলে পুলিশের ধারনা। আজ মঙ্গলবার সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান এ তথ্য জানান। এদিকে ময়নাতদন্ত শেষে রাতেই তুহিনের মরদেহ দাফন করা হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরও জানান, তুহিনের মা বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা কয়েকজনের নামে মামলা দায়ের করেছেন। এছাড়া সোমবার জিঙ্গাসাবাদের জন্য যাদের আটক করে থানায় নেয়া হয়েছিল তাদের সবাইকে সুনামগঞ্জ আদালতে পাঠানো হচ্ছে।

সকালে শহরের ট্রাফিক পয়েন্টে হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে খেলাঘর ও সুজন। মানববন্ধন থেকে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করা হয়। শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ায় আজ সকাল সাড়ে ৮টায় দিরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছেন তুহিনের মা।


উল্লেখ্য, রোববার রাতে সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে রাতের আঁধারে ঘর থেকে তুলে নিয়ে পাঁচ বছরের শিশু তুহিনকে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়। ঘাতকরা তার লাশ রাস্তার পাশের একটি গাছের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখে। এ সময় তুহিনের শরীরে ধারালো অস্ত্রের আঘাত ছিল। তার পেটে দুটি ছুরি ঢুকানো ছিল, দু’টি কান কাটা, এমনকি পুরুষাঙ্গটিও কেটে ফেলা হয়।



আপনার মতামত দিন

অনলাইন -এর সর্বাধিক পঠিত