মেহবুবা মুফতির প্রশ্ন- কাশ্মীরে সেনা কেন?

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১০ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার
পাকিস্তান থেকে কথিত অত্যাসন্ন হামলা মোকাবিলার জন্য কাশ্মীরে সেনা মোতায়েন করেনি বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকার। তারা সেনা মোতায়েন করেছে কাশ্মীরের ভিন্নমতকে দমিয়ে রাখতে। এ অভিযোগ করেছেন জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি। অফিসিয়াল টুইটার একাউন্টে পোস্ট করা এক পোস্টে তিনি এ কথা বলেছেন। মেহবুবা গৃহবন্দি হওয়ার পর ওই টুইট একাউন্টটির ব্যবস্থাপনায় রয়েছেন তার মেয়ে ইলতিজা মুফতি। এ খবর দিয়েছে অনলাইন জি নিউজ।

প্রথম টুইটে তিনি প্রশ্ন রেখেছেন, সবকিছু যদি স্বাভাবিক থাকে তাহলে কাশ্মীরে কেন ৯ লাখ সেনা সদস্য তার ব্যাখ্যা কি? পাকিস্তান থেকে হামলা হবে এই কারণে তারা কাশ্মীরে নন। তারা শুধু কাশ্মীরে অবস্থান করছেন প্রতিবাদ বিক্ষোভকে থামাতে।
ভিন্নমত দমন করায় ব্যবহৃত হওয়ার পরিবর্তে সেনাবাহিনীর প্রথম দায়িত্ব হলো সীমান্তকে সুরক্ষিত রাখা।
 
পরের এক টুইটে তিনি যোগ করেন, বিজেপি জওয়ান কার্ড ব্যবহার করছে ও তাদের ভোটাধিকার ছিনতাই করছে। কিন্তু প্রকৃত সত্য হলো, কাশ্মীরিদের যদি কামানের তোপ হিসেবে বিবেচনা করা হয়, তাহলে কাশ্মীরে অসন্তোষ দমাতে সেনারা দাবার ঘুঁটিতে পরিণত হবেন। জওয়ান অথবা কাশ্মীেিদর প্রতি কোনো তোয়াক্কা করে না ক্ষমতাসীন দল।

মেহবুবা মুফতি হলেন কাশ্মীরের পিপলস ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রধান। তিনি ভারতীয় সংবিধান থেকে অনুচ্ছেদ ৩৭০ বাতিল করার বিরুদ্ধে অব্যাহতভাবে কথা বলে আসছেন। ওদিকে কাশ্মীরে আটক রাজনীতিবিদদেরকে আজ বৃহস্পতিবার থেকে মুক্তি দেয়া শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ‘ইংলিশ ক্ল্যাসিক’ ১-১ গোলে ড্র

শপথ নিলেন হাইকোর্টের ৯ বিচারপতি

বলুন তো এটা কিসের ছবি!

জেল হতে পারে পর্নো তারকা ব্রিজেতের

সৌদিতে ধরপাকড়: আজ ফিরেছেন ৭০ বাংলাদেশী

বোমা সন্দেহে রহস্যজনক লাগেজে মিললো লাশ

অস্ট্রেলিয়ার সংবাদপত্রগুলোর প্রথম পৃষ্ঠা ফাঁকা

কাউন্সিলর রাজীবের ১৪ দিনের রিমান্ড

বিশ্লেষক হিসেবে প্রতিবন্ধী শিশুদের খুঁজছে বৃটিশ গুপ্তচর সংস্থা

পর্নো ব্যবসা এত বিপুল হয়ে উঠলো কীভাবে : পর্ব ১

‘সেগুলোতে কাজ করার আগ্রহ পাই না’

পদ হারালেন ওমর ফারুক

১০ বছর আমার চেহারা ভালো ছিলো এখন খারাপ হয়েছে: ওমর ফারুক চৌধুরী

যুবলীগের প্রস্তুতি কমিটি গঠন

রণক্ষেত্র বোরহানউদ্দিন, পুলিশের গুলি, নিহত ৪

সিঙ্গাপুরে রাজার হালে ক্যাসিনো ডন সাঈদ