চুক্তি নিয়ে যে স্ট্যাটাস দিয়ে আওয়ামী লীগ নেতা বহিষ্কার

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ১০ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ১০:৫৭ | সর্বশেষ আপডেট: ৫:২১
ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে হওয়া সাম্প্রতিক চুক্তি নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়ায় খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য ও বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন (বিএমএ) সভাপতি ডা. শেখ বাহারুল আলমকে দল থেকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে। এছাড়া কেনো তাকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হবে না সে ব্যাপারে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে।
গতকাল বুধবার জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক এডভোকেট ফরিদ আহমেদের পাঠানো ই-মেইল বার্তায় এ তথ্য জানানো হয়।

দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ, দলীয় প্রধান, সরকার প্রধান ও রাষ্ট্রবিরোধী বক্তব্য ফেসবুকে লেখায় এবং তা স্থানীয় পত্রিকায় প্রকাশিত হওয়া আওয়ামীপন্থি চিকিৎসক সংগঠন স্বাচিপ-এর সাবেক এই সভাপতির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয় বলে জানা গেছে।  

বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশনে সভাপতি ডা. বাহারুল চুক্তির বিভিন্ন দিক পয়েন্ট আকারে তুলে ধরে লেখেন, শক্তিধর প্রতিবেশীর আধিপত্যের চাপ এতোই তীব্র যে ভবিষ্যতে বাংলাদেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব বজায় থাকবে কিনা আশঙ্কা হয়। গত ৬ তারিখ বিকাল ৫টা ২৪ মিনিটে দেয়া ওই স্ট্যাটাসে তিনি লেখেন-

‘ভারত-বাংলাদেশ দ্বিপক্ষীয় চুক্তি বলা হলেও বাস্তবে একপক্ষীয় সিদ্ধান্ত বাংলাদেশের জনগণের স্বার্থ ও অধিকার চরম উপেক্ষিত
...........................
দুর্বল অবস্থানে থেকে বন্ধু-প্রতিম শক্তিধর প্রতিবেশী রাষ্ট্রের সাথে বৈঠকে-ফলাফল শক্তিধরের পক্ষেই আসে। বাংলাদেশ-ভারত উভয়-পক্ষীয় সমঝোতা স্মারক নাম দেয়া হলেও বাস্তবে একপক্ষীয় সিদ্ধান্তই মেনে নিতে হয় দুর্বল রাষ্ট্রকে।

ভারত বাংলাদেশ থেকে তার সকল স্বার্থই আদায় করে নিয়েছে। বিপরীতে বাংলাদেশ ভারতের কাছ  থেকে এখনও ন্যায্য হিস্যা আদায় করতে পারে নি ।

১) দীর্ঘদিনের আলোচিত তিস্তা নদীর পানি বণ্টন এবারের দ্বিপক্ষীয় আলোচনায় স্থান পায়নি।

২) ভারতের প্রধানমন্ত্রী স্পষ্ট করে কিছু না বললেও তার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ্ হুংকার দিয়েছে নাগরিক পঞ্জীতে বাদ পড়া জনগণকে বাংলাদেশে ঠেলে  দেয়া হবে।
তারপরেও এবারের সমঝোতা চুক্তিতে ‘অভ্যন্তরীণ’ অজুহাতে বিষয়টি স্থান পায়নি।

৩) বাংলাদেশে অবস্থানরত রোহিঙ্গা শরণার্থী মায়ানমারের রাখাইন রাজ্যে প্রত্যাবসনের বিষয়ে ভারত কিছু বলেনি ।

৪) তিস্তা নদীর পানি বণ্টন নিয়ে চুপ থাকলেও বাংলাদেশ অংশের ফেনী নদীর পানি ত্রিপুরা রাজ্যের পানীয় জল হিসাবে প্রতিদিন ১.৮২ কিউসেক টেনে নেবে ভারত। এ বিষয়ে বাংলাদেশ সম্মত হয়েছে।

৫) বাংলাদেশের জনগণের তরল গ্যাসের চাহিদা পূরণের ঘাটতি থাকলেও ভারতে তরল গ্যাস রপ্তানির সিদ্ধান্ত হয়েছে এবং যৌথভাবে সে প্রকল্প উদ্বোধনও হয়েছে।

৬) চট্টগ্রাম ও মংলা বন্দর ভারত কীভাবে ব্যবহার করবে, তা নির্ধারিত হলেও বাংলাদেশের জন্য ব্যবহারযোগ্য ভারতের কোনও বন্দর সেই তালিকায় ছিল না।

অমানবিক আচরণের শিকার হয়েও বাংলাদেশ পানি ও গ্যাস সরবরাহ দিয়ে মানবিকতার প্রদর্শন করেছে। বাংলাদেশের মানুষের স্বার্থ ও অধিকার উপেক্ষিত রেখে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক শেষ হয়েছে।

শক্তিধর প্রতিবেশীর আধিপত্যের চাপ এতোই তীব্র যে ভবিষ্যতে বাংলাদেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব বজায় থাকবে কিনা আশঙ্কা হয়। কারণ ভারতের চাপিয়ে দেয়া সকল সিদ্ধান্ত বাংলাদেশকে মেনে নিতে হচ্ছে।’



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মাসুম

২০১৯-১০-১০ ০৭:৫৬:১৬

বাংলাদেশ-ভারত যে কোন দিপাক্ষীক আলোচনা বা চুক্তিতে ভারতের স্বার্থই প্রাধান্য পায় । ভারত যা চায় তা-ই পায় । আমাদের ন্যায্যটাও আমরা পাই না । ভারতের মতো প্রতিবেশী থাকাটা যে কোন দেশের জন্যই দুর্ভাগ্য । সেই দুর্ভাগ্যের সাথে যোগ হয়েছে মরার উপর খাড়ার ঘায়ের মতো আমাদের এই ভারত প্রেমিক সরকার । ভারতকে দেবার যেনো শেষ নেই । আবরারের হত্যাকান্ড আর ডাঃ বাহারুলের বহিস্কার আমাদের অনুপ্রানিত করুক রুখে দাড়াতে এসকল অসম চুক্তির বিরুদ্ধে ।

আদিল

২০১৯-১০-১০ ০৩:১৬:১৬

আওয়ামীলীগের তাহলে বিবেকবান মানুষ রয়েছেন ! আপনাকে সহস্রকোটি স্যালুট । দল আপনাকে বহিষ্কার করলেও আপনার মাথাটি উচু রয়েছে দেশের স্বার্থে আপনি কথা বলেছেন । আপনার পরবর্তী বংশধরেরা এটা নিয়ে গর্ব করতে পারবে । আপনার জন্য হাজারো সেলুট আবারো !

রিপন

২০১৯-১০-১০ ১৪:৪১:২৩

মি. বাহালুল বাংলাদেশের স্বার্থে কথা বলেছেন, কোন অন্যায় করেন নি। অন্যায় করছে তারা যারা ভারতের স্বার্থবিরোধী কথাকে বাংলাদেশের স্বার্থবিরোধী কথা বলে চালিয়ে দিতে চাইছে, শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিচ্ছে বাংলাদেশের সেইসব বিবেকবান সচেতন দেশপ্রেমিক মানুষের বিরুদ্ধে যারা বিবেকের তাড়নায় সত্যকথনে ব্রতী। মুক্তিযুদ্ধ করে এদেশের মানুষ বাংলাদেশকে স্বাধীন করেছে বাংলাদেশের জন্যে, - ভারতের জন্যে নয়। পাকিস্তানের শোষণ থেকে মাকে মুক্ত করার জন্যে মায়ের নিযুত কোটি সন্তান অস্ত্র হাতে জীবন বাজি রেখে মুক্তিযুদ্ধ করেছে, মায়ের গা থেকে পরাধীনতার জিঞ্জির খুলে ছুঁড়ে ফেলে দিয়েছে, বাংলা মাকে স্বাধীন করেছে। ভারতের গোলামির জিঞ্জির থেকে মাকে মুক্ত করতে, মায়ের নিযুত কোটি সন্তান পুনর্বার অস্ত্র্ হাতে প্রয়োজনে আরেকটি মুক্তিযুদ্ধ করতে প্রস্তুত, তারা মাকে চিরতরে স্বাধীন করবে। পরাধীনতার শৃঙ্খলে আমাদের দম বন্ধ হয়ে আসছে, নিঃশ্বাস নিতে পারছি না। আহ্! আমি নিঃশ্বাস নিতে পারছি না!

বাহাউদ্দিন বাবলু

২০১৯-১০-১০ ০১:৩৭:৪২

এটা কেমন কথা দেশের স্বার্থে দলের লোক কথা বললেও তাকে বহিষ্কার করতে হবে।

মোঃ নুরুল আলম

২০১৯-১০-১০ ১৩:২২:০৯

দেশের স্বার্থের কথা মানেই এদেশের মানুষের স্বার্থ । সেটাও বলা যাবে না ? তাহলে মুক্তিযুদ্ধ কা’র স্বার্থে হয়েছিল ? এক শোষকের হাত হতে বাংলাদেশ আরেক শোষকের হাতে চলে গেল ? পাকিস্তানী শোষণ আর শাসনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ আর আন্দোলন করে স্বাধীনতা আনা হয়েছে আর এদের বিরুদ্ধে লিখাও যাবেনা ?

Md.Mohiuddin Monsi

২০১৯-১০-১০ ০০:১৯:৪৪

রাষ্ট্রের একজন সচেতন নাগরিক তিনি তার ব্যক্তিগত মতামত প্রকাশ করেছেন মাত্র। এতে করেই তাকে বহিস্কার করতে হবে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া কি সঠিক হয়েছে? তাহলে কি বাকস্বাধীনতার পথ কি চিরস্থায়ী ভাবে বন্ধ করে দেয়া হলো?

Amir

২০১৯-১০-১০ ১২:৪৮:৫১

চুক্তি নিয়ে যে স্ট্যাটাস দিয়ে আওয়ামী লীগ নেতা বহিস্কার!------অতি উৎসাহী কিছু লোকের জন্য সরকারের অর্জন ম্লান হতে বাধ্য;বাহারুল আলমের আংশিক বিবৃতির সাথে মাননীয় প্রধান মন্ত্রীও একমত হবেন বলে আমার বিশ্বস ;দেশের কথা বিবেচনা করে ইন্সট্যান্ট কোন স্ট্রাটেজিক কারনে হয়তো উনি এটা করে থাকবেন , অতএব আগপাছ না ভেবে না জেনে বহিস্কারের মত সিদ্ধান্ত নেওয়া কতটুকু সমিচিন?

অসহায়

২০১৯-১০-১০ ১১:৪১:০০

না! ওনাকে শুধু বহিঃস্কার করলে চলবে না। ছাত্রলীগ অথবা যুবলীগের হাতে তুলে দিতে হবে। ওরা ওদের ঈমানী? দায়িত্ব পালন করবে, যেমনটা করেছে আবরারের সাথে......।।

মেহেদী হাসান

২০১৯-১০-০৯ ২২:১৫:৪২

""সহমত"" কিছু ভালো মানুষ আছে বলেই বাংলাদেশ এখনো স্বাধীন আছে। ছোট বেলায় পরতাম স্বাধীনতা অর্জনের চেয়ে রক্ষা করা কঠিন কিন্তুু আমি বুজতে পারতাম না।কিন্তু আজ হারে হারে টের পাচ্ছি।

Kazi

২০১৯-১০-০৯ ২২:১০:৫৬

সরকার বা কোন রাজনৈতিক দলের প্রধানের বিরুদ্ধে বক্তব্য রাষ্ট্র বিরোধী বক্তব্য বলে গণ্য নয়। রাষ্ট্রের স্বার্থ বিরোধী কর্মকাণ্ড ও বক্তব্য রাষ্ট্র বিরোধী বক্তব্য বলে গণ্য হয়।

আপনার মতামত দিন

ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ‘ইংলিশ ক্ল্যাসিক’ ১-১ গোলে ড্র

শপথ নিলেন হাইকোর্টের ৯ বিচারপতি

বলুন তো এটা কিসের ছবি!

জেল হতে পারে পর্নো তারকা ব্রিজেতের

সৌদিতে ধরপাকড়: আজ ফিরেছেন ৭০ বাংলাদেশী

বোমা সন্দেহে রহস্যজনক লাগেজে মিললো লাশ

অস্ট্রেলিয়ার সংবাদপত্রগুলোর প্রথম পৃষ্ঠা ফাঁকা

কাউন্সিলর রাজীবের ১৪ দিনের রিমান্ড

বিশ্লেষক হিসেবে প্রতিবন্ধী শিশুদের খুঁজছে বৃটিশ গুপ্তচর সংস্থা

পর্নো ব্যবসা এত বিপুল হয়ে উঠলো কীভাবে : পর্ব ১

‘সেগুলোতে কাজ করার আগ্রহ পাই না’

পদ হারালেন ওমর ফারুক

১০ বছর আমার চেহারা ভালো ছিলো এখন খারাপ হয়েছে: ওমর ফারুক চৌধুরী

যুবলীগের প্রস্তুতি কমিটি গঠন

রণক্ষেত্র বোরহানউদ্দিন, পুলিশের গুলি, নিহত ৪

সিঙ্গাপুরে রাজার হালে ক্যাসিনো ডন সাঈদ