সুপারিশ না মানায় পুলিশকে পেটালো ভাইস চেয়ারম্যান

অনলাইন

নড়াইল প্রতিনিধি | ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার, ৯:৩১ | সর্বশেষ আপডেট: ৮:২৭
নড়াইল সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক  জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তোফায়েল মাহমুদ তুফানের নেতৃত্বে পুলিশের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে বেশ কয়েকজন পুলিশ কর্মকর্তা আহত হয়েছেন। রোববার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে শহরের পুরাতন বাস টার্মিনাল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

হামলায় মারাত্মক আহত পুলিশ কর্মকর্তা টিআই মনিরুজ্জামানকে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। একই ঘটনায় আহত ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট শাহাজালাল, এটিএসআই সারোয়ার ও বাশিউরসহ কনস্টেবলদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

আহত পুলিশ কর্মকর্তা টিআই (টাউন ইনসপেক্টর) মনিরুজ্জামান জানান, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিনের নির্দেশে নড়াইল সদর থানা পুলিশ ও ট্রাফিক বিভাগ যৌথভাবে যানবাহনের কাগজপত্র চেক করছিলেন। বিকালে একটি কাগজপত্রবিহীন মোটরসাইকেল ছেড়ে দেয়ার জন্য অনুরোধ করেন সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান তোফায়েল মাহমুদ তুফান। তার সুপারিশ না রাখায় তিনি একদল উচ্ছৃংখল যুবক নিয়ে শহরের পুরাতন বাস টার্মিনাল এলাকায় দ্বায়িত্বরত পুলিশদের ওপর হামলা চালান।


পুলিশ কর্মকর্তা শাকিল জানান, হামলাকারীরা লাঠি ও রান্না করার চলা দিয়ে পিটিয়ে পুলিশদের রক্তাক্ত জখম করে। ঘটনার পরপরই পুলিশ হামলাকারী সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক  জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তোফায়েল মাহমুদ তুফানকে থানায় নিয়ে যায়।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

জাফর আহমেদ

২০১৯-০৯-১৬ ০৩:০৩:০৫

পুলিশ ও সরকার দলীয় আর মেরেছে ও সরকার দলীয় লোক। নিজেদের ব্যাপার। দোষের কিছু না। পুলিশ এতে কিছু মনে করেনি।

Nil

২০১৯-০৯-১৬ ০০:১৯:৩০

Sob sonar sele satro lig. Tay obaed kader vay jibone ekbar bolechilen minister howar aage ( ekhon obboso bolen na.) satro leage, jobo lig jotesto awami liger potoner jonno. Bnp lagbe na sonar sele jothesto. Jay hoouk police oo besi bara bara korse sob jagay. Tay khib khusi hoesi police ke pita dewar jonno. Onnay hole o valo.

shishir

২০১৯-০৯-১৬ ১০:০২:৫৯

jor jar mullok tar vai

Kazi

২০১৯-০৯-১৫ ২০:৩৯:৫০

সাবেক ছাত্রলীগ নেতা। এখনকার নন। তার এত তেজ ! প্রধান মন্ত্রীর সিদ্ধান্ত পুলিশ দেখেছে। আশা করি এ থেকে তারা শিক্ষা নিবে। কেউ অন্যায় সুযোগ নেউক তা প্রধান মন্ত্রী যে পছন্দ করেন না তা স্পষ্ট ।

Jibon

২০১৯-০৯-১৬ ০৯:৩৫:০০

Understand what is going on in Bangladesh bc of One ruling party only in power for long time. We need change.....

আপনার মতামত দিন

খুলনা প্রেস ক্লাবের সাবেক সেক্রেটারি গ্রেপ্তার

বছরে ৮৭ হাজার টন প্লাস্টিক বর্জ্য হিসেবে জমা হয়

অনুমতি না পাওয়ায় ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশ স্থগিত

সরকারি চাকুরেদের গ্রেপ্তারে অনুমতির বিধান কেন বেআইনী নয়: হাইকোর্ট

খালেদার সঙ্গে সাক্ষাতের অনুমতি পেয়েছেন ঐক্যফ্রন্ট নেতারা

ক্রিকেটারদের ধর্মঘটের ডাক

খালেদ ও শামীমের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

ভোলার ঘটনার প্রতিবাদে মোহাম্মদপুরে সড়ক অবরোধ

ভোলার ঘটনার প্রতিবাদে হেফাজতের কর্মসূচি

ভোলায় সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ, ৬ দফা দাবিতে ৭২ ঘণ্টার আল্টিমেটাম

এমপি হারুনের ৫ বছরের কারাদণ্ড

আইনজীবী সহকারি খুন: ১২ জনের ফাঁসি

লেবাননে সরকারবিরোধী আন্দোলন, আজ ধর্মঘট

ভোলার ঘটনায় বুধবার সারাদেশে বিএনপির বিক্ষোভ

বায়ু দূষণে বাড়ে হার্ট অ্যাটাক, অ্যাজমা

ভারত-পাকস্তান দ্বন্দ্ব তীব্র হয়েছে