দেশে ফিরেই গ্রেপ্তার মেহেরুন

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে | ২১ আগস্ট ২০১৯, বুধবার
খেলাপি ঋণের ১৫ মামলা মাথার উপরে। নয় মামলায় সাজাও হয়েছে তার। কিন্তু সেদিকে খেয়ালই ছিল না তার। আর বে-খেয়ালে হঠাৎ কানাডা থেকে দেশে ফিরে বিমানবন্দরে হাতকড়া পরতে হলো চট্টগ্রামভিত্তিক শিল্পপ্রতিষ্ঠান বাগদাদ গ্রুপের কর্ণধার ফেরদৌস খান আলমগীরের স্ত্রী মেহেরুন নেছার (৫০)। চট্টগ্রামভিত্তিক শিল্পপ্রতিষ্ঠান বাগদাদ গ্রুপের পরিচালক এবং শাফিয়াল ট্রেডিং নামে একটি প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার তিনি। তার স্বামী চট্টগ্রামের রাউজানের বাসিন্দা বাগদাদ গ্রুপের কর্ণধার ফেরদৌস খান আলমগীরের কাছেও বিভিন্ন ব্যাংক অন্তত ৩০০ কোটি টাকা পাওনা রয়েছে। জানা গেছে, সোমবার দিনগত রাত তিনটায় ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশনে মেহেরুন নেছাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারের পর ইমিগ্রেশন পুলিশ তাকে চট্টগ্রামের খুলশী থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

ফলে মঙ্গলবার দুপুরে তাকে চট্টগ্রামে আনা হয়েছে বলে জানান খুলশী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) প্রণব চৌধুরী। তিনি জানান, মেহেরুন নেছা চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) চেয়ারম্যান ও চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জহিরুল আলম দোভাষের বড় ভাই নবী দোভাষের মেয়ে।

চট্টগ্রাম নগরীর ফিরিঙ্গিবাজারে তার পৈত্রিক বাড়ি হলেও দেশে এলে তিনি খুলশী জাকির হোসেন সড়কের পূর্ব নাসিরাবাদ এলাকার বাড়িতেই থাকেন। তার বিরুদ্ধে অর্থঋণ আদালতের ১১টি মামলায় পরোয়ানা জারি রয়েছে। ওইসব পরোয়ানামূলে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

ওসি বলেন, বেসরকারি আর্থিক প্রতিষ্ঠান ফিনিক্স ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেডের চেক প্রতারণার নয় মামলায় ইতিমধ্যে মেহেরুন নেছার সাজা হয়েছে। এ ছাড়া একই প্রতিষ্ঠানের আরো ছয় মামলায় তার বিরুদ্ধে পরোয়ানা রয়েছে। মামলাগুলোর মধ্যে চেক প্রতারণার মামলা ১৩টি এবং অর্থঋণ মামলা দুটি। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে কানাডায় বসবাস করার কারণে তার নাগাল মিলছিল না।

সোমবার দিনগত রাতে কানাডা থেকে তিনি একটি ফ্লাইটে করে ঢাকা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আসার খবর পেয়ে খুলশী থানা পুলিশের পক্ষ থেকে ইমিগ্রেশন পুলিশকে অবহিত করা হয়। এ সূত্র ধরেই বিমানবন্দরে ইমিগ্রেশনে মেহেরুন নেছাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

জানা গেছে, শাফিয়াল ট্রেডিং নামে একটি প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার মেহেরুন নেছা ২০১০ সালে ফিনিক্স ফাইন্যান্স আগ্রাবাদ শাখা থেকে দুই কোটি ৫২ লাখ টাকা ঋণ নেন। এই ঋণ অল্পদিনের মাথায় খেলাপি হয়ে পড়ে। ফিনিক্স ফাইন্যান্স থেকে নেয়া ওই ঋণ বর্তমানে সুদাসলে দাঁড়ায় পাঁচ কোটি ৪০ লাখ ২০ হাজার ৬৭৫ টাকা। ফিনিক্স ফাইন্যান্স উক্ত টাকার বিপরীতে মেহেরুন নেছার বিরুদ্ধে আদালতে ৯টি মামলা করেন। একপর্যায়ে মেহেরুন নেছা কানাডায় পাড়ি জমান।
৩০০ কোটি টাকার খেলাপি ঋণের বোঝা মাথায় নিয়ে চট্টগ্রামভিত্তিক শিল্পপ্রতিষ্ঠান বাগদাদ গ্রুপের কর্ণধার ফেরদৌস খান আলমগীরের প্রায় পুরো পরিবারই কানাডা প্রবাসী দীর্ঘদিন ধরে। তার ভাই আরেক ঋণখেলাপি তানভীর খান আলমগীরও পাকাপাকিভাবে কানাডায় বসবাস করছেন।

এদিকে বাগদাদ গ্রুপের চেয়ারম্যানের স্ত্রী হলেও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে মেহেরুন নেছার কোনো সমপর্ক নেই বলে জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. তানভীর খান।

তিনি বলেন, তিনি (মেহেরুন নেছা) আমাদের শিল্প প্রতিষ্ঠানের কোনো পদে নেই। আমাদের প্রতিষ্ঠানের জন্যও তিনি কোনো ঋণ নেননি। ব্যক্তিগত কাজে তিনি ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়েছিলেন। আমি যতদূর জানি, ফ্ল্যাট কেনার জন্য তিনি দেড় কোটি টাকা ঋণ নিয়েছিলেন। সেই ঋণের সঙ্গে আমাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কোনো সমপর্ক নেই।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Kazi

২০১৯-০৮-২০ ২০:০৯:০৫

বাংলাদেশের কালো টাকার মালিকদের দৌরাত্ম্যে কানাডার নাগরিকদের জীবন নাভিশ্বাস । ব্যাংক লুটের টাকা পাচার করে নিয়ে এসে বাড়ি কিনে বাজার মূল্যের চাইতৈ বেশী দামে। সৎ পথে উপার্জন কারি নাগরিকরা প্রতিযোগিতায় হেরে যায়। মাথা গুজার ঠাই কিনতে পারে না। সরকার টের পেয়ে মূল্যের শতকরা ১৫ ভাগ নন রেসিডেন্ট কর আরোপ করেও সামাল দিতে পারছে না। কারণ সাড়ে চার কোটি টাকায় একটি করে এরা একশ কোটি টাকায় ২০ টার বেশী বাড়ি কিনতে পারে। একটি বাড়িতে নিজে বসবাস করে, বাকি গুলি ভাড়া দিয়ে মাসে ৪৫,০০০ কানাডিয়ান ডলার আয় করে টাকা জমায়। অথচ এরা দেশে ঋণ খেলাপি ঘোষণা দিয়ে পার পেয়ে যায়।

নূর মোহাম্মদ

২০১৯-০৮-২০ ১৯:৫৭:৪২

একেই বলে পরের ধনে পোদ্দারী।

আপনার মতামত দিন

ছাত্রদলের ভোট শুরু

অভিযানে যুবলীগ নেতা খালেদের বাসায় যা পাওয়া গেল

পার্লামেন্ট স্থগিত নিয়ে রায় দেয়ার ক্ষমতা নেই আদালতের: সরকার পক্ষ

রেজিস্ট্রেশন ও ফরম ফিলাপের সুযোগ দানের নির্দেশ

মাহমুদুল্লাহ ৪১ বলে ৬২, বাংলাদেশ ১৭৫

নিহত চালকের চিকিৎসায় দুই পরিচালকের ব্যাখ্যা জানতে চান হাইকোর্ট

সেই যুবলীগ নেতা আটক

ফকিরাপুলে নিষিদ্ধ ক্যাসিনোতে অভিযান, ১৪২ আটক

চবিতে ছাত্রলীগ নেতার অনশন

ভিকারুননিসার নতুন অধ্যক্ষ ফওজিয়ার নিয়োগ স্থগিত চেয়ে চেম্বার আদালতে আবেদন

থানায় বিয়ে দেয়া সেই ওসি বরখাস্ত

টসে হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ, আমিনুল-শান্তর অভিষেক

জাবির সরকার ও রাজনীতি বিভাগের নতুন সভাপতি অধ্যাপক নাসরীন সুলতানা

৩১ বছর আগের ট্র্যাজেডি ছাপানোয় ক্ষুব্ধ স্টোকস

তারা টকশোর এ্যাংকর নাকি অনভিজ্ঞ বক্তা?

মাদারীপুরে মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২