মশা মারার ওষুধের সর্বশেষ-

প্রথম পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ১৭ আগস্ট ২০১৯, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:৫৮
ডেঙ্গু রোগের প্রধান বাহক এডিস মশা নিধনের নতুন ওষুধ এখনো পৌঁছায়নি ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) কাছে। ডিএসসিসি কর্মকর্তারা বলছেন, আজ শনিবার নাগাদ নতুন ওষুধ ভারত থেকে তাদের কাছে পৌঁছাবে। পরীক্ষা নিরীক্ষার পর দুই তিন দিনের ভেতরে এই ওষুধ ব্যবহার করা যাবে। অন্যদিকে, উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) জানিয়েছে, ৮ই আগস্ট থেকে তারা মশার ওষুধ ছিটানো শুরু করেছে। তাদের দাবি, আগের ওষুধের চেয়ে নতুন ওষুধ অধিক কার্যকরী। বিশেষজ্ঞদের নির্ধারণ করা ওষুধই বিদেশ থেকে আনা হয়েছে। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের  প্রধান নির্বার্হী কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান মানবজমিনকে বলেন, নতুন ওষুধ শুক্রবার আসার কথা ছিল, তবে আসেনি। আজ শনিবার সেটা এসে পৌঁছাবে। তারপর রোববার নাগাদ পরীক্ষা করে সর্বোচ্চ তিন দিনের ভেতরে ব্যবহার করা যাবে। এর আগ পর্যন্ত পুরাতন ওষুধই ব্যবহার করা হবে। তিনি বলেন, নতুন ওষুধের নমুনা এনে পরীক্ষা করা হয়েছে আগেই। এটার রেজাল্ট ভাল। এডিস মশা নিধনে এটি কার্যকরী হবে। ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. ইমদাদুল হক মানবজমিনকে বলেন, চলতি মাসে ৮ তারিখ থেকে আমরা নতুন ওষুধ ব্যবহার করা শুরু করেছি। পুরাতন ওষুধটা কার্যকরী ছিল। কিন্তু নতুন ওষুধ বেশি কাজ করছে। কারণ এই ওষুধ কেনার জন্য সরকারের নয়জন সচিব কাজ করেছেন।

ডেঙ্গুর ভয়াবহতায় আগের ওষুধ পরিবর্তন করে নতুন ওষুধ আনার সিদ্ধান্ত নেয় দুই সিটি কর্পোরেশনই। বিভিন্ন দেশ থেকে ওষুধের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়। সেখান থেকে দুই সিটি কর্পোরেশনই মেলাথিউর নামে একটি মশার ওষুধ কেনার সিদ্ধান্ত নেয়।
পোকা, বাস্তুসংস্থান ও কীটপতঙ্গ বিশেষজ্ঞ প্রফেসর ড. কবিরুল বাশার মানবজমিনকে বলেন, মশার নতুন ওষুধ আনার জন্য সিটি কর্পোরেশন ধন্যবাদ পেতে পারে। আর যে ওষুধটা আপদকালীন সময়ে আনা হয়েছে তার কার্যকারীতা খুব ভাল। ওষুধ নির্ধারণের ক্ষেত্রে একটা কমিটি ছিল। তাদের সিদ্ধান্তেই এই ওষুধ আনা হচ্ছে। তিনি বলেন, ঈদের ছুটিতে লোকজন বাড়ি গিয়েছিল। এখন আবার আসা শুরু করেছে তাই ডেঙ্গুর ঝুঁকিও কিছুটা বাড়বে। তার আগেই স্কুল-কলেজ, বাসস্ট্যান্ডে মশা নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা রাখতে হবে। বাসস্ট্যান্ডগুলোতে কোনো টায়ার রাখা যাবে না। যারা ছুটিতে গিয়েছিলেন তারা বাসায় ঢুকেই প্রতিটা কক্ষে এরোসেল স্পে করতে হবে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বদলে গেল ক্লাবপাড়ার দৃশ্যপট, তবে

তদন্তের জালে ছাত্রলীগের শতাধিক নেতা

কলাবাগান ক্রীড়াচক্রে র‌্যাবের অভিযান সভাপতি গ্রেপ্তার

পিয়াজের দাম কমছেই না

ছাত্র রাজনীতির ইতিবাচক পরিবর্তন দেখছি না

দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল ১০ জনের

‘খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের আরো অবনতি’

৪ খুঁটির মূল্য দেড় লক্ষাধিক টাকা

নজরদারিতে আওয়ামী লীগের অনেক নেতা

যুবলীগ কইরা মাতব্বরি করবেন ওই দিন শেষ

ভুটানের জালে তিন গোল বাংলাদেশের

সিলেট চেম্বার নির্বাচন নিয়ে মর্যাদার লড়াই

২৪ ঘণ্টায় নতুন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি ৫০৮ জন

কমিশন কেলেঙ্কারিতে একা হয়ে পড়েছেন জাবি ভিসি

খালেদ মাহমুদকে যুবলীগ থেকে বহিষ্কার

মিন্নির আলোচিত সেই জবানবন্দি