শ্রীমঙ্গলেও পুঁতে ফেলা হলো শ’ শ’ চামড়া

বাংলারজমিন

শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি | ১৫ আগস্ট ২০১৯, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:২৯
শ্রীমঙ্গল উপজেলায় এবার কুরবানির অধিকাংশ পশুর চামড়ার ক্রেতা পাওয়া যায়নি।  ফলে বাধ্য হয়ে ক্ষোভে শ’ শ’ পশুর চামড়া মাটিতে পুঁতে ফেলা হয়েছে।
উপজেলার শহর, শহরতলি ও বিভিন্ন গ্রামে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আগে কুরবানির চামড়া কিনতে বাসা বাড়িতে ক্রেতাদের মধ্যে প্রতিযোগিতা হতো। এবছর কোরবানির চামড়া কিনতে ক্রেতাদের মুখই দেখা যায়নি। যাও এক দুজন ক্রেতার দেখা মিলে তাদের কাছে নিম্নে ২০ হাজার টাকা থেকে সর্বোচ্চ দেড় দুই লাখ টাকা দামের কোরবানির পশুর চামড়া ২০ টাকা থেকে ১০০-২৪০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হয়েছে। কোরবানি দাতারা বলছেন, গত এক যুগের মধ্যে এ ধরনের চামড়া বাজারের এতো ধস আর কখনো দেখেননি। তারা বলেন, এই চামড়ার বিক্রির টাকা তো ফকির মিসকিনদের হক। এই হক কারা নষ্ট করলো সরকারের কাছে এদের যথাযথ বিচারের দাবি জানান তারা।
শ্রীমঙ্গল উপজেলার শহরতলির সিন্দুঁরখান সড়কে অবস্থিত জামেয়া ইসলামিয়া বালক বালিকা টাইটেল মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুশ শাকুর বলেন, কুরবানির পশুর সংগ্রহকরা ৪৫টি চামড়া ১৫০ টাকা করে বিক্রি করা হয়েছে এবং আরও ৩৫টি চামড়া মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত অপেক্ষা করে কোনো ক্রেতা  না আসায় মাটিতে পুঁতে ফেলা হয়েছে।
উপজেলার সিন্দুরখান ইউনিয়নের সাইটুলা ইসলামিয়া আরাবিয়া ইমদাদুল উলুম মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা মুহাম্মদ এহসানুল হক জানালেন, তাঁর মাদরাসার ২৩টি চামড়া বিক্রি করতে না পেরে মাটিতে পুঁতে ফেলেন।।




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

খালেদার মুক্তির বিষয়ে আন্তর্জাতিকভাবে পদক্ষেপ নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে: ফখরুল

ডেঙ্গুতে মৃত্যু থামছে না

উফ! কী মর্মান্তিক

‘হাত-পা বেঁধে নাইমকে শ্বাসরোধ করে খুন করি’

চামড়া বিক্রি করছেন না আড়তদাররা

ঢাকায় সড়কে বাড়ছে মৃত্যু

কাশ্মীর সংকট গুরুতর, উদ্বেগজনক

জিএম কাদেরকে সংসদে বিরোধী দলীয় নেতা হওয়ার প্রস্তাব

আয়কর বিতর্কে কলকাতার দুর্গাপূজো

ডেঙ্গু আক্রান্ত মেয়ে হাসপাতালে এদিকে ঘর পুড়ে ছাই

ওদের সব পুড়ে শেষ

‘কাজ চাই রিলিফ চাই না’

লণ্ডভণ্ড শিডিউল ঠিক হয়নি এখনো

৭ বছর পর পরিবারকে ফিরে পেয়ে আবেগাপ্লুত খাদিজা

ডেঙ্গু কেড়ে নিয়েছে কিশোরগঞ্জের ছয় প্রাণ

প্রশ্নকারী মডারেটর পরীক্ষক খুঁজছে পিএসসি