ঝিনাইদহে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী গণধর্ষণের শিকার

অনলাইন

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি | ১৪ আগস্ট ২০১৯, বুধবার, ১২:১৩
ঝিনাইদহ পৌর এলাকার খাজুরা মাঠপাড়ায় সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রী (১৪) ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে ঝিনাইদহ সদর থানায় একটি মামলা হয়েছে।

ধর্ষণের শিকার ছাত্রীর চাচা গনমাধ্যম কর্মীদের জানান, ঈদের দিন (সোমবার) সন্ধ্যার দিকে খাজুরা গ্রামের মুন্তাজ আলীর ছেলে বাদশা, মন্টু মন্ডলের ছেলে রুহুল আমীন ও একই গ্রামের জাফরের ছেলে মুন্নু তার ভাতিজিকে মাঠ থেকে তুলে নিয়ে গনধর্ষণ করে। ধর্ষণের পর ক্যাডেট কলেজের সামনের একটি আবাসন এলাকায় ফেলে যায়। ভুমিহীন পাড়ার এক ব্যাক্তি ধর্ষিতাকে বাড়ি পৌছে দেয়। বাড়ি এসে মেয়েটি সব খুলে বলে।

তার বাবা জানান, তিনি ওই মেয়েটিকে পালিত কন্যা হিসেবে লালন পালন করছে। তার কোনো সন্তান নেই।
ঈদের দিন সন্ধ্যার দিকে মেয়েটি পাশের বাড়িতে তার মাকে খুঁজতে বের হয়। এ সময় বাদশা, রুহুল আমীন ও মুন্নু তাকে মুখ বেঁধে তুলে নিয়ে ধর্ষন করে। ধর্ষণের শিকার হওয়া ওই ছাত্রীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
খবরের সত্যতা স্বীকার করে ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান খান বলেন, এ ব্যাপারে ধর্ষিতার পিতা বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন, যার নং ২৮। আসামী গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

খালেদার মুক্তির দাবিতে বিএনপির মশাল মিছিল

হাইকোর্টে স্থগিত ড. ইউনূসের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

‘দুদক চেয়ারম্যানের পদত্যাগ করা উচিত’

মেঘনায় পুলিশ-জেলে সংঘর্ষ, আহত ৬

স্ত্রীর চাকরি করছেন স্বামী

বউকে তালাক দিয়ে শাশুড়িকে বিয়ে, তোলপাড়

রোহিঙ্গা যুবককে গলা কেটে হত্যা

কোটচাঁদপুরে বিএনপি প্রার্থীর ভোট বর্জন

ইয়াবা সেবনের অভিযোগ, মোটরসাইকেল ফেলে পালালেন এএসআই

বাবরি মসজিদকে কেন্দ্র করে অযোধ্যায় নিরাপত্তা জোরদার

ইরান ও সৌদি আরবকে জোড়া লাগাতে পারবেন ইমরান!

ছাত্রলীগ থেকে অমিত সাহা বহিষ্কার

‘শিবির সন্দেহেই আবরারকে পিটিয়ে হত্যা’

চীনকে বিভক্ত করার চেষ্টা করলে হাড় গুঁড়ো করে দেবো

‘যার জমি আছে, ঘর নেই’ প্রকল্পে নয়ছয়

কাজ না করেই ১৯ লাখ টাকা আত্মসাৎ