মারুফাকে হত্যা না আত্মহত্যা?

অনলাইন

ঝালকাঠি প্রতিনিধি | ১১ আগস্ট ২০১৯, রোববার, ২:৫৭
ঝালকাঠির কাঠালিয়ায় মারুফা আক্তার (২৫) নামের এক মালয়েশিয়া প্রবাসীর স্ত্রীর ঝুলন্ত মহদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ রবিবার সকালে উপজেলার শৌলজালিয়া গ্রামের শ্বশুর বাড়ির একটি কক্ষ থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহতের পরিবারের দাবি, শশুর বাড়ির লোকজন পরিকল্পিতভাবে তাকে হত্যা করে ফ্যানের সাথে ঝুলিয়ে রেখেছে।

একই এলাকার দক্ষিণ তালগাছিয়া গ্রামেরবাক প্রতিবন্ধী জিয়াউল হাসান হাওলাদারের কন্যা। মারুফা আক্তারের বোন নাজনীন বেগম জানান, শনিবার রাত ১০টায় তাদের ফোনে জানানা হয়ে মারুফা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তার দাবি, মারুফাকে বড় ভাসুর মাহমুদ ও তার স্ত্রী ঝুমুর বেগম পরিকল্পিতভাগে হত্যা করে ফ্যানের পাখার সাথে ঝুলিয়ে রেখেছে। এ হত্যার সুষ্ঠু বিচার চাই।
শৌলজালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মো. মাহমুদ হোসেন রিপন জানান, শনিবার রাত ১০টার দিকে মোবাইলে খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থল যাই এবং ওসিকে জানাই। পুলিশ এসে বেডরুমে ফ্যানের পাখার সাথে নিজ ব্যবহৃত ওড়না দিয়ে ঝুলান্ত গৃহবধূ মারুফার লাশ উদ্ধার করে। তবে ওই রুমের দরজা খোলা ছিল এবং মারুফার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি পাওয়া যাচ্ছিল না। রবিবার সকালে ফোনটি নিকটবর্তী একটি পাট ক্ষেত থেকে উদ্ধার করা হয়।

কাঠালিয়া থানা অফিসার ইনচার্জ মো. এনামুল হক জানান, শ্বশুর বাড়ির নিজ শয়ন কক্ষ থেকে ফ্যানের সাথে ঝুলান্ত মারুফা আক্তার নামে এক নারীর মহদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঝালকাঠি মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে  কাঠালিয়া থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন