ঈদে ঘুরে আসতে পারেন কুলাউড়ার পালেরমোড়া

আলাউদ্দিন কবির, কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) থেকে

বাংলারজমিন ১১ আগস্ট ২০১৯, রোববার

হাকালুকির অপরূপ সৌন্দর্য স্থানীয়, দেশ ও বিদেশিদের মন কাড়ে। সেই সৌন্দর্যের মাত্রা বাড়িয়ে দিয়েছে নতুন সংযোজন ‘পালেরমোড়া ব্রিজ’। স্থানীয়দের কাছে সেলফি ব্রিজ হিসেবে পরিচিত। ঈদের ছুটিতে ঘুরে আসতে পারেন মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার হাকালুকি তীরবর্তী পালের মোড়া ব্রিজ এলাকা।
স্থানীয় উদ্যমী কিছু ছাত্র-যুবক মিলে সাদামাটা এ ব্রিজসহ সড়কের আশেপাশের এলাকাকে আধুনিকায়ন করার বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও প্রিন্ট মিডিয়ার কল্যাণে প্রকাশ পায়। ফলে প্রতিদিনই পালেরমোড়ায় ছুটে আসছেন ভ্রমণ পিপাসুরা।
সরজমিন দেখা যায়, উপজেলার কাদিপুরের শেষ অংশ ও ভুকশিমইলের অগ্রভাগে কুলাউড়া-ভুকশিমইল-বরমচাল সড়কের উপর পালেরমোড়া সেতুর অবস্থান। রেল, সড়ক ও নৌ সব ক্ষেত্রে রয়েছে ভালো যোগাযোগ ব্যবস্থা। কিন্তু অনেক সম্ভাবনার এই কুলাউড়া উপজেলায় পর্যটকদের আগমন ছিল নামমাত্র। তবে, গত কয়েক বছর ধরে পাল্টে যাচ্ছে কুলাউড়ার দৃশ্যপট।
এরকম প্রকৃতিসৃষ্ট নয়নাভিরাম দৃশ্যের সব রকম উপমা নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে কুলাউড়া। তাই পর্যটকদের নতুন আকর্ষণ কুলাউড়ার ‘পালেরমোড়া’। চারপাশে হাওরের অথৈ জলরাশি। জলের ওপর ছলাৎ ছলাৎ ঢেউ। সেই জলরাশির বুক চিরে বেরিয়ে এসেছে কুলাউড়া-ভুকশিমইল-বরমচাল আঞ্চলিক সড়ক। তার ওপর দাঁড়িয়ে আছে সুদৃশ্য পাকা সেতু। লাল-সাদা রঙে আঁকা সেতুটি দূর থেকে দেখলে মনে হয় বিশালাকারের একটি সামুদ্রিক জাহাজ। সেতুটির একটু আগে রয়েছে নৌকাঘাট।
অথৈ জলরাশি ভেদ করে হরদম সেখানে যাতায়াত করছে ছোট-বড় সাইজের নৌকা। কেউ মাছ ধরার কাজে, কেউবা যাতায়াতের স্বার্থে নৌকাগুলো ব্যবহার করছেন। আবার হাওরের বুক চিরে বের হওয়া সড়কে চলছে শত শত ছোট-বড় গাড়ির বহর। চলতি বর্ষায় ভুকশিমইলে যাওয়ার সময় চোখে পড়বে এমন সব নয়নাভিরাম দৃশ্য। কুলাউড়া-ভুকশিমইল-বরমচাল সড়ক সংস্কার ও বিভিন্ন কালভার্টের রঙ দেয়ার পর থেকে এই জায়গাটি অত্যন্ত আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছে। তাই পালেরমোড়া এখন একটি দর্শনীয় স্থান। ইতিমধ্যে বিভিন্ন এলাকার নানা বয়সী যুবক, তরুণরা সময় পার করতে এখানে বেড়াতে আসছেন। কুলাউড়া শহর থেকে ৮ কিলোমিটার পশ্চিম-উত্তর দিকে অবস্থিত পালেরমোড়া সেতু। অনেকের মতে, সমুদ্র  সৈকতের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের চেয়ে কোন অংশে কম নয় পালেরমোড়ার দৃশ্য। তাই বর্ষা শুরুর পর থেকে প্রতিদিনই পালেরমোড়ায় বাড়ছে ভ্রমণপিপাসুদের ভিড়।

পালেরমোড়া ঘাটে দাঁড়িয়ে উত্তর, পূর্ব বা দক্ষিণের যেকোনো দিকে তাকালেই চোখে পড়বে সমুদ্রাকৃতির বিশাল হাওর হাকালুকির মনোরম দৃশ্য। চোখের দৃষ্টিসীমায় হাওরের সীমানা শেষ হবে না। আপাতদৃষ্টিতে অমিল মনে হবে না হাওর আর সমুদ্রের আকার-আকৃতির মধ্যেও। দূরে ঘন-কালো মেঘের মতো দাঁড়িয়ে থাকা গ্রামগুলোকে মনে হবে একেকটা দ্বীপ। আর এর মধ্য দিয়ে ধারণা পাওয়া যাবে বর্ষায় প্রকৃতির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে মানুষের বেঁচে থাকার নিরন্তর সংগ্রাম সম্পর্কেও। লিলুয়া বাতাসের দিকে একটু কান পাতলে ছলাৎ ছলাৎ ঢেউয়ের গর্জনও শোনা যাবে হামেশাই। পাকা ঘাটের দু’পাশে দাঁড়ালে স্বচ্ছ জলে ভিজে যাবে দুই পা। মন-প্রাণ তখন নেচে উঠবে অপার আনন্দে। মন চাইলে পালেরমোড়া থেকে ভাড়ায় চালিত নৌকা নিয়ে হাওরের মাঝখানেও যাওয়া যায়। কুলহীন হাওরের মাঝখানে গেলে দেখা যায় মাঝিদের মাছ ধরার দৃশ্য। ঢেউয়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে দুলতে থাকে মাঝিদের ছোট ছোট নৌকা।
হাকালুকি পাড় ঘেঁষা পালেরমোড়া এলাকার আশেপাশে বানের পানি আসায় পরিবেশটা আরো বেশি শান্ত ও মনোরম হয়ে উঠেছে। এছাড়াও এলাকায় মানুষের আগমনকে আরো ত্বরান্বিত করতে স্থানীয়রা পালেরমোড়া কালভার্টের আশেপাশে রঙতুলি, ফুলের গাছ রোপণ, আগত পর্যটকদের বসার জন্য বেঞ্চ তৈরি করাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছেন।
প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের পূর্ণতায় হাকালুকি পাড়ের পালেরমোড়া যেন এক সৌন্দর্যের প্রতিচ্ছবি। বর্ষায় স্বচ্ছ জলের সঙ্গে মিতালি গড়ে সড়কে ঘেঁষা বাহারি প্রজাতির বৃক্ষলতার সবুজ গালিচা। হেমন্তে জল-ধুলার এক অদ্ভুত মেলবন্ধন। শীতে দেশি-বিদেশি পাখির কলকাকলিতে মুখরিত হয় নির্জন এই জায়গা। দূর থেকে যাতায়াতের একমাত্র সড়কটি দেখলে মনে হয় যেন পানির উপর ভাসছে।
সৌন্দর্যমণ্ডিত এই এলাকায় বৈকালিক আড্ডায় ঘুরতে আসছেন বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। এমনকি সন্ধ্যা-রাতেও ঘুরতে আসছেন অনেকে। পর্যটকদের এই আসা-যাওয়ায় স্থানীয়দের মধ্যে উৎসাহ-উদ্দীপনার সৃষ্টি হয়েছে। পর্যটকদের আগমনকে কেন্দ্র করে এখানে বিভিন্ন দোকানপাট তৈরি হচ্ছে।
পালেরমোড়ার এ অপরূপ সৌন্দর্য বর্ষাতেই বেশি অবলোকন করা যায়। বর্ষার পর শুকনো মৌসুমে হাওরজুড়ে চলে চাষাবাদ। তখন আর অথৈ জলের দেখা মিলে না। চলে না নৌকাও। বর্ষায় ভরা পূর্ণিমার রাতে পালেরমোড়ায় গেলে ফিরে আসতে মন চাইবে না কারও। ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেটসহ রেল ও সড়কপথে কুলাউড়ায় এসে সিএনজি, টমটম, রিকশা যোগে যেতে পারবেন। কুলাউড়া শহর থেকে ১০০-১২০ টাকা লাগবে।

আপনার মতামত দিন



বাংলারজমিন অন্যান্য খবর

সেনবাগের ৪ শহীদ এখনো পায়নি রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি

২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

’৬৯-এর আইয়ুববিরোধী আন্দোলনে শহীদ সেনবাগের ৪ সূর্য সন্তান এখনো পাননি রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি। ৬৯’ এর এই ...

মৌলভীবাজারে ১৭ মাদক ব্যবসায়ীর আত্মসমর্পণ

২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

‘মাদক ছেড়ে এসো আলোর পথে’ জেলা পুলিশের উদ্যোগে এই ব্যতিক্রমী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে কনকপুর ইউনিয়নকে মাদকমুক্ত ...

বাজিতপুরে যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার

২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর উপজেলার মাইজচর ইউনিয়নের আইনারগোপ পশ্চিমপাড়া গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে পরশ মিয়া (২৬) এর ...

মহাত্মা গান্ধী অ্যাওয়ার্ড পেলেন মেয়র জাহাঙ্গীর

২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ভারতের কলকাতা ও বাংলাদেশের দু’টি সোসাল কালচারাল সংগঠনের যৌথ প্রয়াসে মহাত্মা গান্ধী অ্যাওয়ার্ড  পেয়েছেন গাজীপুর ...

ভাষা সৈনিক শামসুজ্জোহার মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ সহচর, মহান স্বাধীনতা সংগ্রামের অন্যতম সংগঠক, ভাষা সৈনিক ...

বান্দরবান এলজিইডি’র সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা

২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০

বান্দরবান এলজিইডি’র উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে সাংকৃতিক প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার জেলা ...

ঝিনাইদহে জেন্ডারভিত্তিক সহিংসতা নিয়ে সংলাপ

২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ঝিনাইদহে জেন্ডারভিত্তিক সহিংসতা প্রতিরোধ ও মোকাবেলা বিষয়ে জাতীয় ও স্থানীয় পর্যায়ের প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার ...

বাঁশখালীতে ট্রলার ডুবে প্রবাসী নিহত

২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০

চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে সাগরে মাছ ধরার ট্রলার ডুবে মো. আক্কাছ নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। সে ওমান ...

গাইবান্ধা উপনির্বাচন

৫ প্রার্থীর মনোনয়ন জমা

২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০

গাইবান্ধা-৩ (পলাশবাড়ি-সাদুল্লাপুর) আসনের উপ-নির্বাচনের মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিনে গতকাল ৫ প্রার্থী অংশ নিয়েছে। জেলা ...

জাতীয় পার্টির পটুয়াখালী পৌর শাখার সভাপতিসহ ৫৮ জনের পদত্যাগ

২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০

পারিবারিক ও ব্যক্তিগত সমস্যার কথাবলে জাতীয় পার্টির পটুয়াখালী পৌর শাখা ৭১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির সভাপতি ...

চীন ফেরত বরগুনার সেই শিক্ষার্থী করোনায় আক্রান্ত নন

২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০

বরগুনা সদর জেনারেল হাসপাতালে করোনা ভাইরাস সন্দেহে আইসোলেশন ইউনিটে চিকিৎসাধীন চীন ফেরত শিক্ষার্থী করোনা ভাইরাসে ...

সিরাজগঞ্জে মানববন্ধন

২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০

পত্রিকায় পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব কবির বিন আনোয়ার অপুর বিরুদ্ধে মানহানিকর সংবাদ প্রকাশ করার প্রতিবাদে ...



বাংলারজমিন সর্বাধিক পঠিত