মুম্বইয়ে শতবর্ষী ভবনধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ১৭ জুলাই ২০১৯, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৭:০৬

মুম্বইয়ে প্রায় ১০০ বছর পুরনো একটি বহুতল ভবন ধসে পড়ার ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩ জনে পৌঁছেছে। নিহতদের মধ্যে একাধিক শিশুও রয়েছে। ধ্বংসস্তুপের নিচে চাপা পড়ে আছেন অনেকে। মৃতের সংখ্যা আরো বাড়বে বলে আশঙ্কা করছেন কর্মকর্তারা। এ খবর দিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।
খবরে বলা হয়, মঙ্গলবার মুম্বইয়ের দক্ষিণাঞ্চলের ডোংরি এলাকার তান্ডেল রোডে ভেঙে পড়ে শতবর্ষী ভবনটি। আগ থেকেই এর অবস্থা জরাজীর্ণ ছিল। সাম্প্রতিক মৌসুমি বৃষ্টিতে এর ভিত্তি আরো দুর্বল হয়ে পড়লে এটি ধসে পড়ে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় কর্মকর্তারা। ভবনটিতে ১০-১৫টি পরিবার বাস করতো বলে জানা গেছে।


এদিকে, স্থানীয়দের বরাত দিয়ে এনডিটিভি জানিয়েছে, পুরো এলাকাটি বেশ ঘিঞ্জি হওয়ায় উদ্ধারকাজ ধীর গতিতে চলছে। তার মধ্যে স্থানীয়দের ভিড় কাজের গতি কমিয়ে দিয়েছে আরো অনেকটা। সরু রাস্তার কারণে উদ্ধারকাজে প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম ব্যবহার করা যাচ্ছে না। এমনকী অ্যাম্বুলেন্সও দাঁড় করাতে হচ্ছে ঘটনাস্থল থেকে বেশ দূরে।

 বিবিসি জানিয়েছে, ভারতে ভবন ধসে পড়ার ঘটনা প্রায়ই ঘটে থাকে। বিশেষ করে বর্ষাকালে এ ধরনের ঘটনা তুলনামূলকভাবে বেশি ঘটে থাকে। নি¤œমানের নির্মাণকাজ ও মেরামতের অভাবে এমনটা হয়ে থাকে। চলতি মাসে ইতোমধ্যে দেয়াল ও ভবন ধসে প্রাণ হারিয়েছেন কয়েক ডজন মানুষ। মাসের শুরুর দিকে একটি দেয়াল ধসের ঘটনায় মারা যান ২৯ জন।
স্থানীয়রা অভিযোগ করেছেন, জরাজীর্ণ বাড়িটির মেরামতের জন্য বহু বছর ধরে প্রশাসনের কাছে দাবি জানানো হলেও কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। এলাকাটিতে এমন আরো জীর্ণ বাড়ি রয়েছে।

স্থানীয়দের অভিযোগ স্বীকার করে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফডণবীস বলেন, বাড়িটি ১০০ বছরের পুরনো। কিন্তু জীর্ণ বাড়ির তালিকায় সেটির নাম ছিল না। এক নির্মাণ সংস্থাকে মেরামতের দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল।

আপনার মতামত দিন



বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত