তিউনিশিয়া থেকে ফিরলো আরো ২৪ জন

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ২৭ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:২৭
তিউনিশিয়া উপকূলে উদ্ধার হওয়া ৬৪ বাংলাদেশির মধ্যে তৃতীয় ধাপে ২৪ জন দেশে ফিরেছেন। গতকাল বিকালে কাতার এয়ারওয়েজের কিউআর-৬৩৪ ফ্লাইটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছান তারা। এর আগে ২১শে জুন প্রথম ধাপে দেশে ফিরে আসেন ১৭ জন। আর গত মঙ্গলবার দেশে ফেরেন ১৫ জন। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত তিউনিশিয়া ফেরত ২৪ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ইমিগ্রেশনে রাখা হয়েছে। তাদের ঠিকানা নিশ্চিত হতে সংশ্লিষ্ট থানাগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ করে ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার দেশে আসা ১৫ জন গতকাল রাতেও ইমিগ্রেশনে অবস্থান করছিলেন বলে জানা গেছে। লিবিয়ার বাংলাদেশ দূতাবাস সূত্রে জানা গেছে, এখন পর্যন্ত তিন ধাপে দেশে ফিরলেন ৫৬ বাংলাদেশি।

বাকি ৮ জন দেশে ফিরতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।
তবে তাদেরও ফেরত পাঠাতে তিউনিসিয়া কর্তৃপক্ষ ও আইওএম-এর সঙ্গে যোগাযোগ করছে লিবিয়ার বাংলাদেশ দূতাবাস। এদিকে ব্র্যাক অভিবাস কর্মসূচির প্রধান শরিফুল হাসান জানান, তিউনিশিয়ায় ভূমধ্যসাগর থেকে উদ্ধার হওয়া ৬৪ বাংলাদেশির মধ্যে ২৬ জন মাদারীপুরের। বাকিদের মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ১৫ জন, সিলেটের ৮ জন, শরীয়তপুরের ৩ জন, মৌলভীবাজারের ৩ জন, নোয়াখালীর ২ জন, চাঁদপুরের ১ জন, সুনামগঞ্জের ১ জন, গাজীপুরের ১ জন, ঢাকার ১ জন, নরসিংদীর ১ জন, ফরিদপুরের ১ জন এবং টাঙ্গাইলের ১ জন। প্রায় তিন সপ্তাহ ধরে তিউনিসিয়ায় সাগরে একটি নৌকায় ভাসছিলেন ৭৫ জন শরণার্থী, যাদের মধ্যে ৬৪ জনই ছিলেন বাংলাদেশি। নৌকাটি তিউনিসিয়ার উপকূলে পৌঁছালেও কর্তৃৃপক্ষ তীরে নামার অনুমতি দেয়নি। দূতাবাসের পক্ষ থেকে নৌকায় ভাসতে থাকা সব বাংলাদেশিকে দেশে ফেরত পাঠানো হবে বলে নিশ্চয়তা দেয়া হয়। এরপর ১৮ জুন বন্দরে নামার অনুমতি পান তারা। দূতাবাসের পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা আইওএম-এর সহায়তায় তাদের দেশে ফেরার ব্যবস্থা করা হয়।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা হচ্ছে

ব্যবস্থা চান বিশিষ্টজনরা

কেলেঙ্কারি-জালিয়াতিতে ডুবছে ২২ ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান

ত্রাণ-আশ্রয়ের জন্য ছুটছে মানুষ

ডেঙ্গু রোগীদের ৮০ ভাগই শিশু

ঢাকায় ডেঙ্গু পরিস্থিতি উদ্বেগজনক: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

‘জনগণকে নিয়ে গণঅভ্যুত্থান ঘটাতে হবে’

৪৮ ঘণ্টার মধ্যে বিএসটিআই পরিচালকের অপসারণ দাবি

ছেলেধরা সন্দেহে তিন জনকে পিটিয়ে হত্যা

রংপুর-৩ সদর শূন্য আসন নিয়ে আলোচনার ঝড়

পশ্চিমবঙ্গেও চালু হলো এনআরসি!

পর্নোগ্রাফি ও ব্ল্যাকমেইল নেশা সিলেটের এহিয়ার

গণপিটুনিতে জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে

রাঘববোয়ালদের নিয়ে কাজ করতে সমস্যা হয়

মাদ্রাসাছাত্রীকে ইজিবাইক থেকে নামিয়ে ধর্ষণের পর হত্যা

ভারতের কৌশল ধ্বংস করছে সার্ককে