এরশাদ আইসিইউতে

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ২৭ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:৩৪
জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের (সিএমএইচে) আইসিইউতে ভর্তি হয়েছেন। গুরুতর অসুস্থ হওয়ায় চিকিৎসকরা এরশাদকে আইসিইউতে নেয়ার পরামর্শ দেন। গতকাল সকালে তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়। জাপা মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা মানবজমিনেক জানান, স্যার মঙ্গলবার রাতে জ্বরের কারণে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে বুধবার সকালে সিএমএইচে নেয়া হয়। ডাক্তাররা তাকে আইসিইউতে নেয়ার পরামর্শ দেন।

জাপা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও এরশাদের সহোদর জিএম কাদের পার্টির চেয়ারম্যানের সুস্থতা কামনায় দেশবাসীর দোয়া চেয়েছেন।
পার্টির একাধিক নেতা জানান, মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে এরশাদ শারীরিকভাবে অসুস্থতা অনুভব করেন। তিনি কয়েকদিন ধরেই জ্বরে ভুগছিলেন।
সকালে অবস্থার অবনতি হলে সিএমএইচে নেয়া হয়।

এরশাদ দীর্ঘ দিন ধরে রক্তে হিমোগ্লোবিন ও লিভারের সমস্যায় ভুগছেন। এখন তার সঙ্গে আবার দেখা দিয়েছ নিউমোনিয়া। এর নিয়মিত চিকিৎসা নিচ্ছেন এরশাদ। তিনি সিএমএইচে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করান।
একাদশ জাতীয় নির্বাচনের আগে গত বছরের ২০শে নভেম্বর ইমানুয়েল কনভেনশন সেন্টারে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সামনে সবশেষ বক্তব্য রাখেন এরশাদ। এরপর অসুস্থতার কারণে আর কোনো কর্মসূচিতে অংশ নেননি তিনি। ৬ই ডিসেম্বর গাড়িতে করে অফিসের সামনে এলেও সেখানে বসে কথা বলেই চলে যান। এরপরে জাপার কূটনৈতিকদের সম্মানে রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে তাকে হুইল চেয়ারে করে উপস্থিত করা হলেও তিনি কথা বলতে পারেননি।

গত ১০ই ডিসেম্বর চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে যান এরশাদ। ভোটের মাত্র ৩ দিন আগে ২৬শে ডিসেম্বর দেশে ফিরলেও কোনো নির্বাচনী কর্মসূচিতে যোগ দেননি। এমনকি নিজের ভোটও দিতে পারেননি সাবেক এই প্রেসিডেন্ট।
বিরোধী দলনেতা হিসেবে শপথ নেন আলাদা সময়ে। সেদিনও স্পিকারের কক্ষে হাজির হয়েছিলেন হুইল চেয়ারে বসে। ২০শে জানুয়ারি ফের সিঙ্গাপুরে যান চিকিৎসার জন্য। সেখান থেকে ফেরেন ৪ঠা্‌ ফেব্রুয়ারি। সংসদ অধিবেশনে মাত্র একদিনের জন্য হাজির হয়েছিলেন হুইল চেয়ারে ভর করেই।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রংপুরেই এরশাদের সমাধি

লক্ষাধিক বিও অ্যাকাউন্ট বন্ধ

যে কারণে পুঁজিবাজারে পতন থামছে না

মিন্নি গ্রেপ্তার

হাসপাতালে হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের ভিড়

ছুরি নিয়ে কীভাবে গেল তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে

সব আদালতে নিরাপত্তা বাড়ানো হবে

ঘাতকের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি, মামলা ডিবিতে

উদ্যোক্তা সৃষ্টিতে উপজেলা পর্যায়ে কারিগরি প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হচ্ছে

বাসর হলো না নবদম্পতির

১১ কোম্পানির দুধে সিসা ও ক্যাডমিয়াম

চীনা ডেমু ট্রেন আর কেনা হবে না

বিচারকদের নিরাপত্তা চেয়ে রিট

আসাদকে পাল্টা জবাব আরিফের

৩ মাস পর কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অ্যাকশন শুরু

বাঁচানো গেল না সার্জেন্ট কিবরিয়াকে