‘ইংল্যান্ডকে অনুসরণ করা উচিত দক্ষিণ আফ্রিকার’

ক্রিকেট বিশ্বকাপ-২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক | ২৫ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ৯:২৫
দুই ম্যাচ বাকি রেখেই বিদায় নিশ্চিত দক্ষিণ আফ্রিকার। বিশ্বকাপের ইতিহাসে মাত্র দ্বিতীয়বার আসরের প্রথমপর্ব থেকেই বিদায় নিলো প্রোটিয়ারা। আর প্রোটিয়াদের এমন মলিন নৈপুণ্য দেখে ইংল্যান্ডকে অনুসরণ করার পরামর্শ দিলেন সাবেক তারকা জ্যাক ক্যালিস। ২০১৫ বিশ্বকাপের প্রথম পর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছিল ইংল্যান্ড। পরে খোলনলচে পালটে যায় ইংল্যান্ডের ক্রিকেটের। আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলে ইংলিশরা টানা সাফল্যে দখলে নেয় ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ স্থান। এবারের বিশ্বকাপে শুরুর সাত ম্যাচের পাঁচটিতে হার দেখে দক্ষিণ আফ্রিকা। বিশ্বকাপের এক আসরে এতো হার দেখেনি তারা কখনো।
ক্যালিসের মতে এর অন্যতম কারণ, প্রোটিয়াদের রক্ষণাত্মক ক্রিকেট। ইতিহাসের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার জ্যাক ক্যালিস বলেন, আপনার খুব বেশি পরিবর্তনের দরকার নেই, ইংল্যান্ড দলের নেতৃত্ব দিচ্ছে এইউন মরগান, চার বছর আগেও সে-ই ছিল। আইসিসির ওয়েবসাইটে লেখা নিবন্ধে জ্যাক ক্যালিস বলেন, কারও কারও দাবি হয়তো দলের সবটাই বদলে ফেলতে হবে কিন্তু আমি মনে করি অনেক ভেবে চিন্তে এগোতে হবে। দক্ষিণ আফ্রিকার এখনকার ক্রিকেট দেখে খুশি নন জ্যাক ক্যালিস। তিনি মনে করেন এটা মান্ধাতার আমলের ক্রিকেট। ক্যালিস বলেন, দক্ষিণ আফ্রিকা এখন যে ধরনের ক্রিকেট খেলছে সেদিকে দেখা দরকার এবং খেলোয়াড়দের নিজেদের মধ্যে আলোচনা করাটা জরুরী। নিজেদের মধ্যে খোলামেলা আলোচনা করা চাই, একে অপরের উপর বিশ্বাস রাখা চাই। দক্ষিণ আফ্রিকার ক্যারিয়ারে ৩২৮ ওয়ানডেতে ১১৫৭৯ রান ও ২৭১ উইকেট শিকারি জ্যাক ক্যালিস বলেন, দক্ষিণ আফ্রিকা দলে দারুণ কয়েকজন তরুণ ক্রিকেটার আছে (কাগিসো রাবাদা ২৪, লুঙ্গি এনগিডি ২৩, আন্দিলে ফেকাওয়ো ২৩, এইডেন মার্করাম ২৪) তারা ভবিষ্যত দল গঠনে ভিত্তি হতে পারে। মাত্র চার বছরে কীভাবে একটি দল বদলে যেতে পারে তার উৎকৃষ্ট উদাহরণ ইংল্যান্ড।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ওয়াশিংটনে ইমরান খান যা বললেন

ট্যাংকার জব্দ: ইরান-বৃটেন উত্তেজনা অব্যাহত

‘টিভি চ্যানেলগুলো নাচের শিল্পীদের যথাযথ মূল্যায়ন করে না’

বানভাসি মানুষের দুর্ভোগ বাড়ছে

নৈরাজ্য

১৯ জনকে গণপিটুনি নিহত ৩

মার্কিন দূতাবাসের দুরভিসন্ধি

মিন্নির জামিন মেলেনি

পুঁজিবাজারে একদিনেই ৫ হাজার কোটি টাকার মূলধন হাওয়া

মশায় অতিষ্ঠ মানুষ ঘরে ঘরে ডেঙ্গু আতঙ্ক

অর্থনৈতিক কূটনীতির ওপর গুরুত্ব দিতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের আন্দোলনে অচল ঢাবি

যে কারণে সিলেটে মহিলা কাউন্সিলর লাকীর ওপর হামলা

৬ ঘণ্টা বিদ্যুৎ ও পানিবিহীন শাহজালাল বিমানবন্দর

সাত দিনের মধ্যে প্রথম কিস্তি পরিশোধের নির্দেশ

এ যেন খোঁড়াখুঁড়ির নগরী