ডোনাল্ডের রেকর্ড ভাঙলেন তাহির

ক্রিকেট বিশ্বকাপ-২০১৯

স্পোর্টস রিপোর্টার | ২৪ জুন ২০১৯, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ১০:২৬
এবারের বিশ্বকাপে প্রথমবার খেলার সুযোগ পেয়েই ব্যাটে আলো ছড়ালেন হারিস সোহেল। আর বল হাতে নৈপুণ্য নিয়ে গর্বের এক রেকর্ডে দক্ষিণ আফ্রিকার বাকি তারকাদের ছাড়িয়ে গেলেন ইমরান তাহির। গতকাল লর্ডসে আগে ব্যাটিং শেষে পাকিস্তানের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৩০৮/৭-এ। পাঁচ নম্বরে ব্যাট হাতে ৫৯ বলে ৮৯ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেন হারিস সোহেল। টস জিতে ব্যাটিং বেছে নেন পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। আর দলকে দারুণ সূচনা এনে দেন দুই ওপেনার ফখর জামান ও ইমাম উল হক। পাওয়ার প্লের ১০ ওভারে পাকিস্তানের সংগ্রহ ছিল বিনা উইকেটে ৫৮ রান। আর ওপেনিং জুটিতে পাকিস্তানের স্কোর বোর্ডে জমা পড়ে ৮১ রান।
তবে অল্প ব্যবধানে পাকিস্তানের দুই ওপেনারকে সাজঘরে ফিরিয়ে প্রোটিয়াদের ম্যাচে ফেরান দক্ষিণ আফ্রিকার পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত লেগস্পিনার ইমরান তাহির। ১৪.৫তম ওভারে তাহিরের ডেলিভারিতে দলীয় ৮১ রানে ফখর জামান ক্যাচ দেন হাশিম আমলার হাতে। ১৭ রানের ব্যবধানে আরেক ওপেনার ইমাম উল হকের উইকেট তুলে নেন তাহির। ২০.৩তম ওভার শেষে পাকিস্তানের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৯৮/২-এ।
গতকাল লর্ডসে ১০ ওভারে ৪১ রানে দুই উইকেট নেন লেগস্পিনার ইমরান তাহির। এতে তিনি ভেঙে দেন বিশ্বকাপে অ্যালান ডোনাল্ডের রেকর্ড। বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকার বোলারদে মধ্যে সর্বাধিক ৩৯ উইকেট শিকার ইমরান তাহিরের। ক্রিকেটের মহাযজ্ঞে প্রোটিয়া সাবেক পেসার ডোনাল্ডের রয়েছে ৩৮ শিকার। তবে ‘সাদা বিদ্যুত’ খ্যাত ডোনাল্ডের চেয়ে বিশ্বকাপে কম ম্যাচ খেলেছেন ইমরান তাহির।

তৃতীয় উইকেটে ইনিংস সামাল দেয়ার চেষ্টা করেন বাবর আজম ও মোহাম্মদ হাফিজ। কিন্তু ব্যক্তিগত ২০ রানের হাফিজের বিদায়ে ভাঙে ৪৫ রানের জুটি। এর পর বড় সংগ্রহের ভিত রচিত হয় পাকিস্তানের চতুর্থ উইকেট জুটিতে। গতকাল শোয়েব মালিকের জায়গায় একাদশে সুযোগ পান হারিস সোহেল। পঞ্চম উইকেটে বাবর আজমের সঙ্গে তিনি গড়েন ৮১ রানের জুটি। ব্যক্তিগত ৬৭ রানে বাবর আজম প্রোটিয়া পেসার আন্দিলে ফেলুকোয়াওয়ের ডেলিভারিতে অপর পেসার লুঙ্গি এনগিডির হাতে ক্যাচ দিলে ৪১.২তম ওভারে পাকিস্তানের সংগ্রহ দাঁড়ায় ২২৪/৪-এ। পঞ্চম উইকেটে ইমাদ ওয়াসিমকে নিয়ে ৭১ রানের জুটি গড়েন হারিস। এতে দলীয় ৩০০ রান নিশ্চিত হয় পাকিস্তানের।
ইমাদ ৩ বাউন্ডারিতে ১৫ বলে ২৩ করে বদলি ফিল্ডার জেপি ডুমিনির হাতে ধরা পড়েন। শেষ দশ ওভারে ৯১ রান তোলা পাকিস্তান আক্ষেপ করতেই পারে। উইকেট না হারালে সংগ্রহটা খুব সহজেই ৩৩০ রানের আশপাশে চলে যেত। শেষ ওভারে পাকিস্তানের দুই উইকেট তুলে নিয়ে মাত্র ৪ রান দেন প্রোটিয়া পেসার লুঙ্গি এনগিডি।
শেষ ওভারের পঞ্চম বলে নিজের উইকেট দেয়ার আগে ইনিংসে হারিস সোহেল হাঁকান ৯টি চার ও তিনটি ছক্কা। দক্সিণ আফ্রিকার বল হাতে ১০ ওভারের স্পেলে ৬৪ রানে তিন উইকেট নেন পেসার লুঙ্গি এনগিডি।
বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকার সর্বাধিক উইকেট
খেলোয়াড় ম্যাচ উই. সেরা ইকো. সাল
ইমরান তাহির ২০ ৩৯ ৫/৪৫ ৪.৩৫ ২০১১-১৯
অ্যালান ডোনাল্ড ২৫ ৩৮ ৪/১৭ ৪.১৭ ১৯৯২-০৩
শন পোলক ৩১ ৩১ ৫/৩৬ ৩.৬০ ১৯৯৬-০৭
মরনে মরকেল ১৪ ২৬ ৩/৩৩ ৪.৬৬ ২০১১-১৫
ডেল স্টেইন ১৪ ২৩ ৫/৫০ ৪.৬৭ ২০১১-২০১৫



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ওয়াশিংটনে ইমরান খান যা বললেন

ট্যাংকার জব্দ: ইরান-বৃটেন উত্তেজনা অব্যাহত

‘টিভি চ্যানেলগুলো নাচের শিল্পীদের যথাযথ মূল্যায়ন করে না’

বানভাসি মানুষের দুর্ভোগ বাড়ছে

নৈরাজ্য

১৯ জনকে গণপিটুনি নিহত ৩

মার্কিন দূতাবাসের দুরভিসন্ধি

মিন্নির জামিন মেলেনি

পুঁজিবাজারে একদিনেই ৫ হাজার কোটি টাকার মূলধন হাওয়া

মশায় অতিষ্ঠ মানুষ ঘরে ঘরে ডেঙ্গু আতঙ্ক

অর্থনৈতিক কূটনীতির ওপর গুরুত্ব দিতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের আন্দোলনে অচল ঢাবি

যে কারণে সিলেটে মহিলা কাউন্সিলর লাকীর ওপর হামলা

৬ ঘণ্টা বিদ্যুৎ ও পানিবিহীন শাহজালাল বিমানবন্দর

সাত দিনের মধ্যে প্রথম কিস্তি পরিশোধের নির্দেশ

এ যেন খোঁড়াখুঁড়ির নগরী