‘মিরাকল’-এর আশায় দক্ষিণ আফ্রিকা

ক্রিকেট বিশ্বকাপ-২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক | ২১ জুন ২০১৯, শুক্রবার
বিশ্বকাপে পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা ও অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে বাকি তিন ম্যাচ খেলবে দক্ষিণ আফ্রিকা। এই তিন ম্যাচে শুধু জিতলেই হবে না, সঙ্গে অলৌকিক কিছু হতে হবে বলে মনে করেন প্রোটিয়া অধিনায়ক ডু প্লেসি। তিনি বলেন, ‘সেমিতে যাওয়া বেশ কঠিন হয়ে গেছে। আমাদের তিনটা ম্যাচ বাকি। এই তিনটা ম্যাচে জিতলেই হবে না। সঙ্গে আমাদের পক্ষে অবিশ্বাস্য কিছু ঘটতে হবে।’ নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হেরে বিশ্বকাপ থেকে প্রায় ছিটকে গেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। ৬ ম্যাচে মাত্র একটি ম্যাচে জয় পেয়েছে প্রোটিয়ারা। বুধবার নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৪ উইকেটে হার দেখে দক্ষিণ আফ্রিকা।
হারের পর প্রোটিয়া অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসি বলেন, ‘ড্রেসিং রুমে সবাই কষ্ট পেয়েছে। চার বছর (২০১৫ বিশ্বকাপ) আগের মতো কষ্টের অনুভূতি হচ্ছে। মনে হচ্ছে সবকিছু হারিয়ে ফেলেছি। তবে আমরা নিউজিল্যান্ডের চেয়ে খারাপ খেলিনি।’ ২০১৫’র বিশ্বকাপে সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৪ উইকেটে হেরে শিরোপার স্বপ্ন ভাঙে দক্ষিণ আফ্রিকার।
নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টস হেরে আগে ব্যাটিংয়ে নামে দক্ষিণ আফ্রিকা। ব্যাট হাতে হাশিম আমলা (৫৫) ও ফন ডার ডুসেনের (৬৭) অর্ধশতকে ২৪১ রানের পুঁজি পায় প্রোটিয়ারা। জাবাবে ব্যাট করতে নেমে কেন উইলিয়ামসনের (১০৬) অপরাজিত সেঞ্চুরিতে ৩ বল হাতে রেখেই জয় তুলে নেয় নিউজিল্যান্ড। ম্যাচ শেষে ডু প্লেসি বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য ছিল ২৬০/২৭০ রান। আমরা সেখানেই পিছিয়ে গেছি। কিন্তু আমরা ভালো বল করেছি। কেন উইলিয়ামসন দারুণ খেলেছে। সে উইকেটে অপেক্ষা করেছে হিট করার জন্য। কেন উইলিয়ামসনের সেঞ্চুরিটাই ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দিয়েছে।’
এবারের বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটসম্যানরা তেমন কিছু দেখাতে পারেনি। বিশ্বকাপে একমাত্র বাংলাদেশের বিপক্ষে ৩০৯ রান তুলতে পেরেছে প্রোটিয়ারা। যদিও সে ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে ২১ রানে হার দেখে দক্ষিণ আফ্রিকা। বাকি ম্যাচগুলোতে ২০০ রান তুলতেই হিমশিম খেতে হয়েছে তাদের। এনিয়ে ডু প্লেসি বলেন, ‘আপনি যদি আমাদের ব্যাটিং লাইনআপের দিকে তাকান তাহলে দেখবেন অন্য দলের চেয়ে আমাদের ব্যাটিং লাইনআপ ততটা অভিজ্ঞ নয়। কিন্তু হ্যা, আমাদের ব্যাটিং অন্যদের চেয়ে ভালো। আমরা বড় স্কোর করতে পারছি না।’




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রংপুরেই এরশাদের সমাধি

লক্ষাধিক বিও অ্যাকাউন্ট বন্ধ

যে কারণে পুঁজিবাজারে পতন থামছে না

মিন্নি গ্রেপ্তার

হাসপাতালে হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের ভিড়

ছুরি নিয়ে কীভাবে গেল তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে

সব আদালতে নিরাপত্তা বাড়ানো হবে

ঘাতকের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি, মামলা ডিবিতে

উদ্যোক্তা সৃষ্টিতে উপজেলা পর্যায়ে কারিগরি প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হচ্ছে

বাসর হলো না নবদম্পতির

১১ কোম্পানির দুধে সিসা ও ক্যাডমিয়াম

চীনা ডেমু ট্রেন আর কেনা হবে না

বিচারকদের নিরাপত্তা চেয়ে রিট

আসাদকে পাল্টা জবাব আরিফের

৩ মাস পর কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অ্যাকশন শুরু

বাঁচানো গেল না সার্জেন্ট কিবরিয়াকে