লতিফ সিদ্দিকী কারাগারে

অনলাইন

বগুড়া প্রতিনিধি | ২০ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ২:২৪
বগুড়ার জেলা জজ আদালতে দুদকের মামলায় হাজিরা দিতে এসে জামিন না মঞ্জুর হওয়ায় কারাগারে পাঠানো হয়েছে সাবেক বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীকে। আজ বৃহষ্পতিবার দিনের প্রথম ভাগে তিনি বগুড়া জেলা জজ ও সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক নরেশ চন্দ্র সরকারের আদালতে হাজির হন। তার পক্ষে বগুড়া বারের সিনিয়র আইনজীবী এডভোকেট আল মাহমুদ, এডভোকেট নরেশ মুখার্জ্জি এডভোকেট হেলালুদ্দিন বিচারকের কাছে জামিনের জন্য আবেদন জানান। তবে বিচারক সরাসরি জামিনের আবেদন নাকোচ করে দেন।

জামিন না মঞ্জুর হওয়ার পর তাকে সরাসরি বগুড়া জেল হাজতে পাঠিয়ে দেয়া হয়।

বগুড়া দুদকের আইনজীবী পিপি আবুল কালাম আজাদ মামলার বিবরণ দিয়ে জানান,  জেলার আদমদীঘী উপজেলার দারিয়াপুর এলাকায় বিজেসির নিয়ন্ত্রাধীন একটি ক্রয় কেন্দ্রসহ ২ একর ৩৮ শতক জমি ক্ষমতার অপব্যবহার ও দুর্নীতির আশ্রয় নিয়ে তৎকালীন পাটমন্ত্রী লতিফ সিদ্দিকী বিনা টেন্ডারে তার পুর্বপরিচিতা বগুড়ার জাহানারা রশিদকে লিজ দেন।

এই ক্রয়কেন্দ্রসহ জমির লিজ প্রদানকালীন সময়ের বাজার মুল্য সরকারি এসেসমেন্ট অনুযায়ী ৬৪ লাখ ৬৩ হাজার ৭৯৫ টাকা হলেও তিনি ৪০ লাখ ৬৯ হাজার টাকায় লিজ পত্র লিখে দেন। এর ফলে সরকারের রাজস্ব ক্ষতি হয়েছে ২৩ লাখ ৪০ হাজার টাকা।

তৎকালীন পাটমন্ত্রীর এই দুর্নীতি ও ক্ষমতার অপব্যবহারের সংবাদ মিডিয়ায় আসার পর দুদক বিষয়টির অনুসন্ধান শুরু করে। অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়ার পর দুদকের বগুড়া শাখার এডি আমিনুল ইসলাম ২০১৭ সালের ১০ই অক্টোবর আদমদীঘী থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলাটির তদন্ত প্রক্রিয়া শেষ করে এ বছরের ১৮ই ফেব্রুয়ারি মামলাটির চার্জশিট করা হয়।
এ মামলায় জামিনের জন্য আজ বৃহস্পতিবার আদালতে হাজিরা দিতে আসেন আসলে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Kazi

২০১৯-০৬-২১ ০২:০৮:৫৫

Only 23 lacs 40 thousand government loss from lease. He did not took government money. It could be an estimate error. People robbed crores are moving freely. Strange ! However, those who are in power, as minister and MP this case is an example for them. Because MR. Latif once was a powerful minister of ruling party.

আপনার মতামত দিন

রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা হচ্ছে

ব্যবস্থা চান বিশিষ্টজনরা

কেলেঙ্কারি-জালিয়াতিতে ডুবছে ২২ ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান

ত্রাণ-আশ্রয়ের জন্য ছুটছে মানুষ

ডেঙ্গু রোগীদের ৮০ ভাগই শিশু

ঢাকায় ডেঙ্গু পরিস্থিতি উদ্বেগজনক: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

‘জনগণকে নিয়ে গণঅভ্যুত্থান ঘটাতে হবে’

৪৮ ঘণ্টার মধ্যে বিএসটিআই পরিচালকের অপসারণ দাবি

ছেলেধরা সন্দেহে তিন জনকে পিটিয়ে হত্যা

রংপুর-৩ সদর শূন্য আসন নিয়ে আলোচনার ঝড়

পশ্চিমবঙ্গেও চালু হলো এনআরসি!

পর্নোগ্রাফি ও ব্ল্যাকমেইল নেশা সিলেটের এহিয়ার

গণপিটুনিতে জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে

রাঘববোয়ালদের নিয়ে কাজ করতে সমস্যা হয়

মাদ্রাসাছাত্রীকে ইজিবাইক থেকে নামিয়ে ধর্ষণের পর হত্যা

ভারতের কৌশল ধ্বংস করছে সার্ককে