ঘাম ঝরানো জয়

ক্রিকেট বিশ্বকাপ-২০১৯

বিশ্বকাপ ডেস্ক | ১৯ জুন ২০১৯, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৯:২৭
খাতা কলমে বেশ শক্তিশালী দক্ষিণ আফ্রিকা দল। শক্তিশালী বোলিং লাইন আপের পাশাপাশি ব্যাটিং লাইন আপটাও মন্দ না। হাশিম আমলা, ডু প্লেসি, ডি ককদের নিয়ে বেশ সাজানো দল নিয়েই বিশ্বকাপ খেলতে এসেছে তারা। তবে একের পর এক হার দেখা দলটি আজ নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাত্র ২৪১ রানে শেষ হয় তাদের ইনিংস। সেই টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে বেশ বেগ হয় নিউজিল্যান্ডকে। শেষ ওভার পর্যন্ত গড়ানো ম্যাচে ৪ উইকেটের জয় পায় তারা। বিশ্বকাপের ২৫তম ম্যাচে আজ নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি দক্ষিণ আফ্রিকা। বাংলাদেশ সময় বিকাল তিনটায় টস হওয়ার কথা থাকলেও আউটফিল্ড ভেজা থাকায় টস হতে বিলম্ব হয়।
এরপর টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নামে প্রোটিয়ারা। টুর্নামেন্টে টিকে থাকতে হলে আজকের ম্যাচে জয় নিশ্চিত করতেই হতো তাদের।

দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথমে ব্যাট করতে নেমে রাশি ফন ডুসেন ও হামিশ আমলার অর্ধশতকে ভর করে মাত্র ২৪১ রান। ডুসেন অপরাজিত ৬৭ ও আমলা করেন ৫৫ রান। আমলার নামের পাশে এক রেকর্ড রচিত হয়েছে। ৮ হাজার রান ক্লাবে নাম লেখিয়েছেন তিনি। এছাড়া মার্করাম করেন ৩৮ ও ডেভিড মিলারের ব্যাট থেকে আসে ৩৬ রান।

নিউজিল্যান্ডের বোলাররা তুলে নেন ৬টি উইকেট। ৩টি নেন লকি ফার্গুসন আর ১টি করে উইকেট পান ট্রেন্ট বোল্ড, কলিন ডি গ্রান্ডহোম ও মিসেল সান্টনার। জবাবে ৪ উইকেটের জয় পেলেও বেশ বেগ পেতে হয় তাদের। অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের অপরাজিত শতকে ভর করেই জয় আসে কিউদের। হন ম্যাচ সেরা। তিনি করেন ১০৬। আর ডি গ্রান্ডহোম করেন ৬০ রান। ৬ টি উইকেটের মধ্যে ৩টি পান ক্রিস মরিচ। ১ টি করে পান রাবাদা, লুঙ্গি ও পেহলুকাইয়ো। 

দক্ষিণ আফ্রিকা একাদশ
হাশিম আমলা, কুইন্টন ডি কক (উইকেটরক্ষক), এইডেন মার্করাম, ফ্যাফ ডু প্লেসি (অধিনায়ক), রাশি ফন ডার সার ডুসেন, ডেভিড মিলার, আন্দিল পেহলুকাইয়ো, ক্রিস মরিস, কাগিসো রাবাদা, লুঙ্গি এনগিদি এবং ইমরান তাহির।

নিউজিল্যান্ড একাদশ
মার্টিন গাপটিল, কলিন মুনরো, কেন উইলিয়ামসন (অধিনায়ক), রস টেইলর, টম ল্যাথাম (উইকেটরক্ষক), জেমস নিশাম, কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম, মিচেল সান্টনার, ম্যাট হেনরি, লকি ফার্গুসন, ট্রেন্ট বোল্ট।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ওয়াশিংটনে ইমরান খান যা বললেন

ট্যাংকার জব্দ: ইরান-বৃটেন উত্তেজনা অব্যাহত

‘টিভি চ্যানেলগুলো নাচের শিল্পীদের যথাযথ মূল্যায়ন করে না’

বানভাসি মানুষের দুর্ভোগ বাড়ছে

নৈরাজ্য

১৯ জনকে গণপিটুনি নিহত ৩

মার্কিন দূতাবাসের দুরভিসন্ধি

মিন্নির জামিন মেলেনি

পুঁজিবাজারে একদিনেই ৫ হাজার কোটি টাকার মূলধন হাওয়া

মশায় অতিষ্ঠ মানুষ ঘরে ঘরে ডেঙ্গু আতঙ্ক

অর্থনৈতিক কূটনীতির ওপর গুরুত্ব দিতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের আন্দোলনে অচল ঢাবি

যে কারণে সিলেটে মহিলা কাউন্সিলর লাকীর ওপর হামলা

৬ ঘণ্টা বিদ্যুৎ ও পানিবিহীন শাহজালাল বিমানবন্দর

সাত দিনের মধ্যে প্রথম কিস্তি পরিশোধের নির্দেশ

এ যেন খোঁড়াখুঁড়ির নগরী