কমিউনিটি ক্লিনিকে আরো ১২০০০ কর্মী নিয়োগ হচ্ছে

প্রথম পাতা

ফরিদ উদ্দিন আহমেদ | ১৯ জুন ২০১৯, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:৪৯
কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোতে শিগগিরই নিয়োগ হচ্ছে ১২ হাজার সিএইচসিপি। এতে প্রাধান্য পাবেন নারীরা। কমিউনিটি ক্লিনিক স্বাস্থ্য সহায়তা ট্রাস্টি বোর্ডের সভাপতি অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। বলেছেন, সরকারের বিধি অনুযায়ী থাকবে সকল সুযোগ-সুবিধাও। এছাড়া কর্মীদের   পদোন্নতির বিষয়ে চিন্তা-ভাবনা চলছে বলেও তিনি জানিয়েছেন।
কমিউনিটি ক্লিনিক সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তরা জানান, বর্তমানে দেশব্যাপী ওয়ার্ড পর্যায়ে ১৩ হাজার ৫০০টি কমিউনিটি ক্লিনিক চালু রয়েছে। কমিউনিটি ক্লিনিক প্রকল্প চালুর পর এই পর্যন্ত ১৩ হাজার ৮২২জনকে সিএইচসিপি (কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রভাইডার) হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ৫৪ শতাংশই নারী।
এক হাজার ৯৩৫জন নারী সিএইচসিপিকে সিএসবিএ প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে।  ২ লাখ ২৯ হাজার ৫০০ কমিউনিটি গ্রুপ সদস্য এবং ৬ লাখ ৮৮ হাজার ৫০০ কমিউনিটি সাপোর্ট গ্রুপ সদস্য ও নির্বাচিত স্থানীয় সরকার প্রতিনিধি কমিউনিটি ক্লিনিক পরিচালনায় স্থানীয়ভাবে অংশগ্রহণ করছে। ২০০৯-২০১৭ সাল পর্যন্ত কমিউনিটি ক্লিনিক থেকে সেবা গ্রহীতার মোট ভিজিটের সংখ্যা ৬৫ কোটিরও বেশি। ৩ হাজারের অধিক সংখ্যক কমিউনিটি ক্লিনিকে এই পর্যন্ত ৫৩ হাজারের বেশি স্বাভাবিক প্রসব সম্পন্ন হয়েছে। তবে এখানে বছরে ১ শতাংশ মায়ের মৃত্যু ঘটেছে বলে সূত্র জানিয়েছে। গ্রামীণ জনগণের স্বাস্থ্যসেবায় সারাদেশের কমিউনিটি ক্লিনিকের জন্য বছরে ১৮০ কোটি টাকার ওষুধ সরবরাহ করা হয়। কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোর জন্য সংসদে নতুন আইন পাসের মাধ্যমে ট্রাস্টি বোর্ড গঠন করা হয়েছে। এছাড়া নতুন কমিউনিটি ক্লিনিক ভবনের ডিজাইন চূড়ান্ত হয়েছে। এ ডিজাইনে চারটি রুম ও দুইটি বাথরুম থাকবে। আগামীতে যতো কমিউনিটি ক্লিনিক হবে সব নতুন ডিজাইনেই করা হবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

১৯৯৬ সালে ছয় হাজার গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর জন্য একটি কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেয় তৎকালীন সরকার। ১৯৯৮ সালের ২৮শে জুন একনেক সভায় এটি অনুমোদন লাভ করে। পরে সরকার পরিবর্তন হলে ২০০১ সালে প্রকল্পটির কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়। ২০০৯ সালে বর্তমান সরকার কমিউনিটি ক্লিনিক প্রকল্প পুনরায় চালু করে। এলাকাবাসীর জমি দান ও সক্রিয় অংশগ্রহণ এবং সরকারের কারিগরি সহায়তায় কমিউনিটি ক্লিনিকগুলো গড়ে উঠেছে। ঘরের কাছে স্বাস্থ্যসেবায় বাংলাদেশের কমিউনিটি ক্লিনিক প্রকল্প এখন বিশ্বের কাছে উদাহরণ। কমিউনিটি ক্লিনিকে সাধারণ মানুষ বিনামূল্যে প্রাথমিক চিকিৎসা এবং ৩২ ধরনের ওষুধ পাচ্ছেন। কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোতে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে গ্রামের মানুষের স্বাস্থ্য তথ্য সংরক্ষণ হচ্ছে এবং প্রয়োজনে রাজধানীর চিকিৎসকদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে চিকিৎসা নেয়ার ব্যবস্থা করেছে সরকার।

এদিকে গতকাল রাজধানীর বিএমআরসিন ভবনে কমিউনিটি ক্লিনিক স্বাস্থ্য সহায়তা ট্রাস্টি বোর্ডের সভাপতি অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মোদাচ্ছের আলীর সভাপতিত্বে এবং ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য ও বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের মহাসচিব শাবান মাহমুদের পরিচালনায় ‘এসডিজি বাস্তবায়নে কমিউনিটি ক্লিনিক ও ইউনিভার্সেল হেলথ কভারেজ’ বিষয়ক এক সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইন্টারপার্লামেন্টারী ইউনিয়নের স্বাস্থ্য বিষয়ক উপ-কমিটির সভাপতি এবং সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা. হাবিবে মিল্লাত পরিসংখ্যান দিয়ে বলেন, দেশে ৫০ শতাংশ ইউনিভার্সেল হেলথ কভারেজ এসেছে। বিশ্বে চিত্রে এটা ৬৪ শতাংশ। কমিউনিটি ক্লিনিক স্বাস্থ্য সহায়তাকে ইউনিভার্সেল হেলথ কভারেজের প্রাথমিক পর্যায়ের স্বাস্থ্যসেবা উল্লেখ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশে কাঙ্ক্ষিত গুণগত স্বাস্থ্যসেবা দিতে হলে প্রতিবছর বাজেটে স্বাস্থ্যে ১ শতাংশ করে বরাদ্দ বাড়াতে হবে। বিশ্বে স্বাস্থ্যসেবা নিতে গিয়ে বছরে ১২২ মিলিয়ন লোক দরিদ্র হন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

jobaer

২০১৯-০৬-২০ ১১:২৪:১৫

স্বাস্থ্য সেবায় অজ্ঞ CHCP না নিয়ে MEDICALASSISTANT নিন অন্তত দেশবাসীর উপকার হবে। বেতন না হয় ওইটা ই দিবেন

Md. ALAMGIR hossain

২০১৯-০৬-২০ ১০:২৪:২৭

CHCP দিয়ে কমিউনিটি ক্লিনিক ভরে ফেলতেছেন... তাদের দিয়ে অসহায় রোগীদের চিকিৎসা করাচ্ছেন.. যারা ইন্টার পাশ.. অথচো সেখানে চিকিৎসা করার কথা SACMO দের.. যারা 4 বছরের ডিপ্লোমা করা ডাক্তা।। তাদের নিয়োগ কবে দিবেন.....

Rabeya akter

২০১৯-০৬-২০ ০৭:১৬:১০

Mats pass kore application kora jabe??? Ar salary scaleta kemon hobe??

জুয়েল

২০১৯-০৬-২০ ০৫:৩৩:০০

কমিউনিটি ক্লিনিকে উপসহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার নিয়োগ কই?

সৌভিক দাস জয়

২০১৯-০৬-১৯ ২০:৩২:১৪

কমিউনিটি ক্লিনিকে উপসহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার নিয়োগ কই?

কামরুল হাসান

২০১৯-০৬-১৮ ১৯:৫৯:০৬

অনেক ভালো এবং মহত উদ্যোগ।কিলিনিকে সাপে কটা ভ্যকসিন এবং হজ্জ এর টিকা রাখার ব্যবস্থা করা উচিত

আপনার মতামত দিন

৮দিন পর বান্দরবানের সঙ্গে সারাদেশের সড়ক যোগাযোগ চালু

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ট্রাকের ধাক্কায় বাইসাইকেল আরোহী নিহত

চৌদ্দগ্রামে ৩দিনেও সন্ধান মেলেনি অটোরিকশা চালকের

৪ দফা দাবিতে ৭ কলেজের শিক্ষার্থীদের শাহবাগ অবরোধ

আগামীতে বিদ্যুৎচালিত ট্রেন চলবে: প্রধানমন্ত্রী

মার্কিন পার্লামেন্টে ভোটের মাধ্যমে ট্রাম্পের বর্ণবাদী মন্তব্যের নিন্দা

এইচএসসিতে পাসের হার ও জিপিএ-৫ বেড়েছে

মুম্বইয়ে শতবর্ষী ভবনধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩

কাজিপুরে রিং বাঁধ ধসে ৩ গ্রাম প্লাবিত, পানিবন্দী ৩০০ পরিবার

৪১ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পাস করেননি কেউ

টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ একরাতে নারীসহ নিহত ৩

একই উত্তর ৯৫৯ পরীক্ষার্থীর খাতায়

এরশাদের সংসদীয় আসন শূন্য ঘোষণা

যেভাবে জানা যাবে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল

‘গান আগের মতো স্থায়িত্ব পাচ্ছে না’

নিরাপত্তা জোরদার আইনের শাসন নিশ্চিতের তাগিদ