এখন আমাদের সব ম্যাচই ফাইনাল: হোল্ডার

ক্রিকেট বিশ্বকাপ-২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৯ জুন ২০১৯, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:৪৯
বাংলাদেশের কাছে হেরে সেমিফাইনালে যাওয়া কঠিন হয়ে গেল বলে মনে করেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক জেসন হোল্ডার। তবে এখনো আশা হারাচ্ছেন না এই ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক। তিনি বলেন, ‘সেমিফাইনালে যাওয়া এই মুহূর্তে কঠিন হয়ে গেলো। তবে, এটা অসম্ভব নয়। আমাদের এখন প্রত্যেকটি ম্যাচই ফাইনালের মতো খেলতে হবে। আমাদের সব ম্যাচই জিততে হবে। আমাদের যদি সেমিতে যেতে হয় তাহলে সেরা দলগুলোকে হারাতে হবে।’
বিশ্বকাপে ৫ ম্যাচে এক জয় ও এক ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ায় ৩ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার অষ্টম স্থারে রয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এখনো ৪ ম্যাচ বাকি ক্যারিবীয়দের।
আগামী শনিবার নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এর পর ভারত, শ্রীলঙ্কা ও আফগানিস্তানের বিপক্ষে খেলবে ১৯৭৫ ও ১৯৭৯’র চ্যাম্পিয়নরা। সোমবার টনটনে আগে ব্যাট করে ৩২২ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয় ক্যারিবীয়রা। পরে সাকিব ও লিটনের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে ৫১ বল হাতে রেখেই ৭ উইকেটে জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ। টাইগারদের বিপক্ষে এমন হার শেষে হোল্ডার বলেন, ‘আমি মনে করি না দলের সাম্যে আজ কোনো বিষয় ছিল। আমরা আমাদের নিজেদের ভুলেই হেরেছি। নতুন বলে আমাদের উইকেট প্রয়োজন ছিল যা আমরা পাইনি। তবে বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানরা ভালো ব্যাট করেছে তাদের এ কৃতিত্ব দিতেই হয়। সাকিবকে ফেরানোর গুরুত্বপূর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করেছি আমরা। ফিল্ডিংয়ে আমরা ভালো করতে পারিনি। এ হারের কোন ব্যাখ্যা নেই।’
টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা দারুণ ছিল উইন্ডিজের। কিন্তু শেষপর্যন্ত বাংলাদেশকে ৩২২ রানের লক্ষ্য ছুড়ে দিতে পারে ক্যারিবীয়রা। মাঝে দ্রুত উইকেট পতনে বড় লক্ষ্য গড়তে ব্যর্থ ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ম্যাচ শেষে সেই কথা বললেন হোল্ডার। তিনি বলেন, ‘এই উইকেটে আমরা ৪০-৫০ রান কম করেছি। আমরা গুরুত্বপূর্ণ সময়ে উইকেট হারিয়েছি। টপঅর্ডারের চারজনের যে কোনো একজনকে শেষপর্যন্ত থাকা উচিত ছিল। দুঃখজনকভাবে সেটা হয়নি।’
ম্যাচ নিয়ে হোল্ডার বলেন, ‘যখন এ রকম উইকেটে ৩২১ রান করবেন। তখন আপনাকে ফিল্ডিং, বোলিংয়ে সর্বোচ্চটা দিতে হবে। আমরা দ্রুত উইকেট নিতে পারিনি। বেশ কিছু ক্যাচও মিস করেছি।’



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রংপুরেই এরশাদের সমাধি

লক্ষাধিক বিও অ্যাকাউন্ট বন্ধ

যে কারণে পুঁজিবাজারে পতন থামছে না

মিন্নি গ্রেপ্তার

হাসপাতালে হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের ভিড়

ছুরি নিয়ে কীভাবে গেল তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে

সব আদালতে নিরাপত্তা বাড়ানো হবে

ঘাতকের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি, মামলা ডিবিতে

উদ্যোক্তা সৃষ্টিতে উপজেলা পর্যায়ে কারিগরি প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হচ্ছে

বাসর হলো না নবদম্পতির

১১ কোম্পানির দুধে সিসা ও ক্যাডমিয়াম

চীনা ডেমু ট্রেন আর কেনা হবে না

বিচারকদের নিরাপত্তা চেয়ে রিট

আসাদকে পাল্টা জবাব আরিফের

৩ মাস পর কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অ্যাকশন শুরু

বাঁচানো গেল না সার্জেন্ট কিবরিয়াকে