আশুলিয়ায় শিক্ষার্থীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, সাভার থেকে | ২৩ মে ২০১৯, বৃহস্পতিবার
সাভারের আশুলিয়ায় ৮ম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী এক পরিবার। গত মঙ্গলবার আশুলিয়ার তৈয়বপুর রাজপাট এলাকার একটি নির্জন জঙ্গলে ওই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণচেষ্টার ঘটনা ঘটে। পরে রাতেই এ ঘটনায় আশুলিয়া থানায় হিমেল নামে এক বখাটের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগীর পরিবার। অভিযুক্ত হিমেল মণ্ডল (২২) আশুলিয়ার দিয়াখালী গ্রামের ফজল মণ্ডলের ছেলে। ভুক্তভোগীর পরিবার জানায়, তাজপুর মডেল হাই স্কুলের ৮ম শ্রেণি পড়ুয়া ওই শিক্ষার্থীকে দীর্ঘদিন ধরে স্কুলে যাওয়ার পথে প্রেমের প্রস্তার দিয়ে উত্ত্যক্ত করে আসছিল হিমেল মণ্ডল। তার প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ওই শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন সময় অপহরণের হুমকি ও মুঠোফোনে অশালীন মন্তব্য করে আসছিল হিমেল। গত মঙ্গলবার সকালে স্কুলে যাওয়ার পথে দিয়াখালী ব্রিজের উপর থেকে জোরপূর্বক ওই শিক্ষার্থীকে পার্শ্ববর্তী একটি নির্জন স্থানে নিয়ে যায় বখাটে হিমেল ও তার সহযোগীরা। পরে তার প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তাকে মারধর ও ধর্ষণচেষ্টা করে বখাটেরা। এসময় ওই শিক্ষার্থীর চিৎকারে স্থানীয় এক ব্যক্তি এগিয়ে আসলে বখাটেরা পালিয়ে যায়। পরে রাতেই এ ঘটনায় আশুলিয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়। আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সাজ্জাদুর রহমান বলেন, এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন তিনি। এ ঘটনায় অভিযুক্ত হিমেলকে আটকের চেষ্টা চলছে।


এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

এবার ফাঁস হলো জাবির প্রক্টর ও ছাত্রলীগ নেতার ফোনালাপ (অডিও)

৬ মাসে মালয়েশিয়ায় ৩৯৩ বাংলাদেশী শ্রমিকের মৃত্যু, তদন্তের আহ্বান

রাজবাড়ীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত

সুপারিশ না মানায় পুলিশকে পেটালো ভাইস চেয়ারম্যান

‘ছবিটি দর্শকদের শেষ পর্যন্ত দেখতে হবে’

আলোচনায় শোভন রাব্বানীর বিলাসী জীবন

কোটি টাকা চাঁদা দাবির অডিও ফাঁস

টিআইবির নির্বাহী পরিচালকের মন্তব্য অনভিপ্রেত: বেক্সিমকো

ডিপ্লোম্যাটের প্রচ্ছদে শেখ হাসিনা

জনগণের সঙ্গে পুলিশের নিবিড় সম্পর্ক থাকতে হবে

‘ছাত্রলীগ নেতাদের বহিষ্কারেই বোঝা যায় দেশে কতটা দুর্নীতি চলছে’

বিকেন্দ্রীকরণে বাধা দিচ্ছেন এমপিরা

বাংলাদেশে ৫টি অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তুলবে আরব আমিরাত

সিলেট সফরে যে বিতর্কের জন্ম দেন শোভন

পিয়াজের কেজি একলাফে বেড়ে ৭০ টাকা

প্রয়োজনে থানায় বসে ওসিগিরি করব