‘বিশ্বকাপে ব্যাটসম্যানেরাই সুবিধা পাবে’

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৭ মে ২০১৯, শুক্রবার
বিশ্বকাপে বড় রানের খেলা হবে বলে মনে করেন মার্টিন গাপটিল। নিউজিল্যান্ডের এই তারকা ব্যাটসম্যান মনে করেন, ইংল্যান্ডের উইকেট হবে ব্যাটিং স্বর্গ। এবার ব্যাটসম্যানরাই বেশি সুবিধা পাবেন। আর বিশ্বকাপের আগে নির্ভার থাকতে চান গাপটিল। তিনি মনে করেন বিশ্বকাপের চাপ মাথায় নেয়া অর্থহীন। আইসিসি’র ওয়েবসাইটে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে গাপটিল বলেন, ‘আমার মনে হয়, এবারের বিশ্বকাপে বড় রানের ম্যাচ হবে। ইংল্যান্ডের ফ্লাট উইকেট ব্যাটিংয়ের জন্য আদর্শ। বিশ্বকাপ প্রস্তুতি ও একটু বুঝেশুনে খেলতে পারলেই বড় ইনিংস খেলা সম্ভব।’
ইংল্যান্ডের মাটিতে নিউজিল্যান্ডের এই মারকুটে ব্যাটসম্যানের পারফরম্যান্স দুর্দান্ত। ১৪ ম্যাচে তার মোট রান ৬৫২। যার মধ্যে রয়েছে ২০১৩ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১৫৫ বলে ১৮৯ রানের অপরাজিত ইনিংস। গাপটিল বলেন, ‘আমি ইংল্যান্ডে খেলতে পছন্দ করি। ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ডের উইকেটের সঙ্গে খুব একটা পার্থক্য নেই। এখানে ক্রিকেট দারুণভাবে উপভোগ করা যায়। ইংল্যান্ড মজার একটা জায়গা এবং এখানের সমর্থকরাও দারুণ।’
২০১৫ বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডকে বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠানোর কারিগর এই কিউই মারকুটে ব্যাটসম্যান। সে আসরে ৬৮.৩৭ গড়ে ৫৪৭ রান সংগ্রহ করেন গাপটিল। বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে হার না মানা ২৩৭ রানের ইনিংস খেলেন গাপটিল। আন্তর্জাতিক ওয়ানডেতে ১৬৯ ম্যাচে গাপটিলের সংগ্রহ ৬ হাজার ৪৪০ রান।
গাপটিল বলেন, ‘আমি তো চলতি পাকিস্তান বনাম ইংল্যান্ড সিরিজের ম্যাচগুলো দেখি, তাহলে বুঝা যায় ওখানের উইকেট কেমন হবে। বিশ্বকাপের সময়ও উইকেট এমনই থাকবে। ফলে শুরুতে একটু ধরে খেলতে পারলে আমাদের পক্ষে বড় রান তোলা খুব কঠিন হবে না। শুধু মনে এই বিশ্বাস রাখতে হবে যে, আমরাও বড় রান করার ক্ষমতা রাখি।’ আগামী রোববার বিশ্বকাপ খেলা উদ্দেশ্যে ইংল্যান্ডে পৌছবে নিউজিল্যান্ড। ২৫শে মে ভারত ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২৮শে মে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে কিউইরা। আগামী ১লা জুন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষের ম্যাচ দিয়ে শুরু করবে বিশ্বকাপ মিশন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

দেশে ফিরেছেন ভূমধ্যসাগরে প্রাণে বেঁচে যাওয়া ১৫ বাংলাদেশি

শাহজালালে সোয়া তিন কোটি টাকার স্বর্ণ জব্দ, যাত্রী আটক

ইউরেনিয়াম উৎপাদন ৪ গুণ বাড়িয়েছে ইরান, বাড়ছে উত্তেজনা

বহিস্কৃত ছাত্রলীগ নেত্রী জারিনের আত্মহত্যার চেষ্টা!

বিশ্ববিদ্যালয় পালানো শিক্ষকরা

ধনবাড়ীতে স্বামীর নির্যাতনে অন্তসত্ত্বা গৃহবধূর মৃত্যু

‘গানে সেই আবেদনটা খুঁজে পাওয়া যায় না’

মধুর ক্যান্টিনের সংঘর্ষের ঘটনায় ছাত্রলীগের ৫ জনকে বহিষ্কার

বালিশে ওলটপালট চাকরির বাজার!

ঢাকায় বালিশ প্রতিবাদ

প্রধানমন্ত্রীর সফরে নিরাপত্তা সতর্কতা প্রত্যাহার চাইবে ঢাকা

শিশুটিকে দত্তক পেতে চতুর্মুখী লড়াই

রিকশাচালকের বিরুদ্ধে ২৭ লাখ টাকার চেক মামলা

ব্যাংকে নগদ টাকার সংকট সরকারি আমানত পেতে তোড়জোড়

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর ভেন্টিলেটর দিয়ে ফেলে দিলো পুলিশ সদস্য

সংসদ যেন একদলীয় করে তোলা না হয়