চেন্নাই এফসির বিপক্ষে লড়াই আজ

ইনজুরি থাকলেও আশাবাদী আবাহনী

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৫ মে ২০১৯, বুধবার
নেপালের মানাং মার্সিয়াংদি ক্লাবকে হারিয়ে শুরু হয়েছিল আবাহনীর এএফসি কাপের গ্রুপ পর্ব। কিন্তু পরের দুই ম্যাচে ছন্দটা আর ধরে রাখতে পারেনি তারা। ১৭ই এপ্রিল ঘরের মাঠে মিনারভা পাঞ্জাবের সঙ্গে ২-২ গোলে ড্রয়ের পর ৩০শে এপ্রিল স্বাগতিক চেন্নাই এফসির কাছে ১-০ গোলে হারে আবাহনী। আজ নিজেদের ডেরায় সেই চেন্নাইয়ের মুখোমুখি হচ্ছে ঢাকা লীগের চ্যাম্পিয়নরা। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে চেন্নাই এফসির বিপক্ষে আবাহনীর ম্যাচটি শুরু হবে সন্ধ্যা ৭টায়। গুরুত্বপূর্ণ এ ম্যাচে রক্ষণভাগের সেরা খেলোয়াড় তপু বর্মণ ও ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার আতিকুর রহমান ফাহাদকে পাচ্ছে না আবাহনী। অস্ত্রোপচার করার কারণে তারা নামতে পারবেন না মৌসুমের বাকি ম্যাচগুলোতেও। আরেক ডিফেন্ডার টুটুল হোসেন বাদশা এবং মিডফিল্ডার ওয়েলিংটন প্রিওরিও চোটাক্রান্ত। আবাহনীর শিবিরে তাই দুশ্চিন্তা। তবুও নিজেদের মাঠে জয়ের আশা দলীয় কোচ মারিও লেমসের। গতকাল বাফুফে ভবনে সংবাদ-সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘আমরা যদি বলি তপু ও ফাহাদকে মিস করবো না, তাহলে মিথ্যা বলা হবে। জাতীয় দলের দুই ফুটবলার তপু-ফাহাদ আমাদের দলেরও গুরুত্বপূর্ণ সদস্য। ফুটবলে ইনজুরি হবেই, কিন্তু ইনজুরিতে মৌসুম শেষ হয়ে যাওয়া খুব দুর্ভাগ্যজনক। দলের আরো দুজনের ছোটখাটো ইনজুরি আছে। এ ম্যাচ জিততে না পারলে আমাদের আর কোনো সম্ভাবনাই থাকবে না। আমার ঘরের মাঠের ম্যাচটি জেতার জন্যই মাঠে নামবো।’
৩ ম্যাচে ৭ পয়েন্ট নিয়ে ‘ই’ গ্রুপের শীর্ষে চেন্নাই এফসি। তাদের চেয়ে ৩ পয়েন্ট পিছিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আবাহনী। তিনে থাকা মিনারভা পাঞ্জাবের ৩ পয়েন্ট। পরবর্তী রাউন্ডের টিকিট পেতে নিজেদের গ্রুপে সেরা হতেই হবে আবাহনীকে। এজন্যই ম্যাচটিকে ‘বাঁচা-মরার লড়াই’ বলছেন লেমস। অপরদিকে, চেন্নাইনের ইংলিশ কোচ জন গ্রেগরি আবাহনীকে সমীহ করলেও জয় নিয়ে ফিলতে চান। তিনি বলেন, ‘আবাহনী কঠিন প্রতিপক্ষ। তবে আমরা জয়ের জন্য সেরা খেলাটাই খেলবো। এ ম্যাচ জিতলে আমার কোয়ালিফাই করার ক্ষেত্রে এগিয়ে যাবে অনেকটা।’



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

দেশে ফিরেছেন ভূমধ্যসাগরে প্রাণে বেঁচে যাওয়া ১৫ বাংলাদেশি

শাহজালালে সোয়া তিন কোটি টাকার স্বর্ণ জব্দ, যাত্রী আটক

ইউরেনিয়াম উৎপাদন ৪ গুণ বাড়িয়েছে ইরান, বাড়ছে উত্তেজনা

বহিস্কৃত ছাত্রলীগ নেত্রী জারিনের আত্মহত্যার চেষ্টা!

বিশ্ববিদ্যালয় পালানো শিক্ষকরা

ধনবাড়ীতে স্বামীর নির্যাতনে অন্তসত্ত্বা গৃহবধূর মৃত্যু

‘গানে সেই আবেদনটা খুঁজে পাওয়া যায় না’

মধুর ক্যান্টিনের সংঘর্ষের ঘটনায় ছাত্রলীগের ৫ জনকে বহিষ্কার

বালিশে ওলটপালট চাকরির বাজার!

ঢাকায় বালিশ প্রতিবাদ

প্রধানমন্ত্রীর সফরে নিরাপত্তা সতর্কতা প্রত্যাহার চাইবে ঢাকা

শিশুটিকে দত্তক পেতে চতুর্মুখী লড়াই

রিকশাচালকের বিরুদ্ধে ২৭ লাখ টাকার চেক মামলা

ব্যাংকে নগদ টাকার সংকট সরকারি আমানত পেতে তোড়জোড়

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর ভেন্টিলেটর দিয়ে ফেলে দিলো পুলিশ সদস্য

সংসদ যেন একদলীয় করে তোলা না হয়