শরিকদের কাছে বিএনপির ব্যাখ্যা

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ১৪ মে ২০১৯, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:১০
নানামুখী টানাপড়েনের প্রেক্ষিতে ২০দলীয় জোটের শরিকদের ক্ষোভ প্রশমনের উদ্যোগ নিয়েছে বিএনপি। শরিকদের কাছে সর্বশেষ সিদ্ধান্তগুলোর ব্যাপারে ব্যাখ্যা করা হয়েছে। সেই সঙ্গে বিএনপির তরফে ইঙ্গিত দেয়া হয়েছে রাজনীতিতে ২০দল ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সমন্বয়ে একটি বৃহত্তর রাজনৈতিক মঞ্চ গঠনের। একাদশ জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনে প্রার্থী দেবে বিএনপি। এছাড়া বগুড়া-৬ আসনের উপনির্বাচনে যাওয়ার ব্যাপারেও ইতিবাচক মনোভাব দেখিয়েছে বিএনপি। তবে এ ব্যাপারে চূড়ান্ত কোন সিদ্ধান্ত হয়নি। বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান রাজনৈতিক কার্যালয়ে ২০ দলের গতকালের বৈঠকে এমন ইঙ্গিত দিয়েছে বিএনপি। বৈঠকে অংশ নেয়া শরিক দলের কয়েকজন নেতা এ তথ্য জানিয়েছেন।


বৈঠকে অংশ নেয়া নেতারা জানান, মূলত শরিকদের ক্ষোভ প্রশমনের জন্য বিএনপি একটি সৌজন্য বৈঠকের আয়োজন করেছেন। যেখানে জোটের শরিক দল জাতীয় পার্টির (জাফর) মোস্তফা জামাল হায়দার, এনপিপির ড. ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, লেবার পার্টির মোস্তাফিজুর রহমান ইরান ও ডেমোক্রেটিক লীগের সাইফুদ্দিন মনিসহ কয়েকজন নেতা জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠন, ঐক্যফ্রন্টকে অধিকতর গুরুত্ব দেয়া, খালেদা জিয়াকে ছাড়া নির্বাচনে অংশগ্রহণ, কয়েকটি শরিক দলকে মনোনয়ন না দেয়া এবং সর্বশেষ বিএনপির জাতীয় সংসদে যোগদানের ব্যাপারে ক্ষোভ প্রকাশ ও সমালোচনা করেছেন।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর তার বক্তব্যে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠনের প্রয়োজনীয়তা ও পরিস্থিতির কথা তুলে ধরেন। জাতীয় সংসদে যোগদানের বিষয়টিও ব্যাখ্যা করেন তিনি। মির্জা আলমগীর বলেন, পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে, ভূ-রাজনৈতিক ও আন্তর্জাতিক রাজনীতির প্রেক্ষিতে নানা ঘটনা ঘটছে। তার সঙ্গে সঙ্গতি রেখেই আমাদের সামনের দিকে এগোতে হবে। এ সময় তিনি জোটের এবং ২০দল ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মধ্যে ঐক্যের প্রতি গুরুত্ব আরোপ করেন। সেই সঙ্গে আরও বৃহত্তর ঐক্য সৃষ্টির প্রয়োজনীয়তার কথা তুলে ধরেন। এদিকে সম্প্রতি জোট ছাড়ার ঘোষণা দেন বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির (বিজেপি) চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আন্দালিভ রহমান পার্থ। তারপরও জোটের তরফে তাকে বৈঠকে অংশগ্রহণের জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। তবে আমন্ত্রণ পেলেও বৈঠকে অংশ নেননি তিনি বা তার দলের কোন প্রতিনিধি।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন ২০ দলীয় জোটের সমন্বয়ক নজরুল ইসলাম খান। তিনি বলেন, ধানের মূল্য কম হওয়ায় কৃষক মারাত্মক ক্ষতির স্বীকার হচ্ছে। ২০ দল এমন ঘটনায় উদ্বেগ ও ক্ষোভ প্রকাশ করছে। খুব শিগগিরই আমরা ২০ দলের উদ্যোগে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করবো এবং সারাদেশে জোটের উদ্যোগে কৃষকদের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। দেশে আইনের শাসন না থাকায় ক্রমবর্ধমানহারে নারী ও শিশু নির্যাতন, হত্যা, ধর্ষণ, খুন, বেকারত্ব, জ্বালানী তেল ও গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির পায়তারা ইত্যাদি জনস্বার্থ বিষয়ে জোটগতভাবে কর্মসূচি দেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে। এসব বিষয়ে ২০ দল জোটগতভাবে এবং শরিকরা পৃথকভাবে কর্মসূচি পালন করবে। জোটের মধ্যে সমন্বয় বৃদ্ধির জন্য আরো বেশি বেশি যোগাযোগ রাখা এবং সভা করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘শুধু নিজেরটা ভাবলেতো হবে না’

সেই এনামুল বা‌ছির গ্রেপ্তার

‘এই নৈরাজ্য থামাতে হবে এখনই’

দুইদিনে ১০,০০০ কোটি টাকার মূলধন উধাও

সাড়ে আট বছরে গণপিটুনিতে নিহত ৮২৬

ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে মামলা তদন্তের নির্দেশ

হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ থেকে প্রিয়া সাহা বহিষ্কার

আর কোনো দেশে মশা মারতে রুল দিতে হয় না

বান্দরবান ও সাতক্ষীরায় দুই আওয়ামী লীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা

মশা মারতে কামান দাগাতে চাই না

গণপিটুনি বিএনপি জামায়াতের কৌশল ইঙ্গিত আইনমন্ত্রীর

‘ডেঙ্গু’তে হবিগঞ্জের সিভিল সার্জনের মৃত্যু

বিয়ের নেশা অতঃপর...

প্রিয়া সাহার বক্তব্যের সঙ্গে একমত নন আবুল বারকাত

বানভাসি মানুষদের বাঁচাতে জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলুন: ড. কামাল

অচল ঢাবি, শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফেরার আহ্বান ডাকসুর