ভালুকায় পৃথক ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ২

বাংলারজমিন

ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি | ২৬ এপ্রিল ২০১৯, শুক্রবার
ভালুকায় তৃতীয় শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী ও এক গার্মেন্ট শ্রমিককে ধর্ষণের অভিযোগে গত বুধবার রাতে পৃথক ২টি ধর্ষণ মামলায় জেলে ও মিল শ্রমিককে আটক করেছে ভালুকা মডেল থানা পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ধামশুর গ্রামের বিদ্যুৎ চন্দ্র বর্মণের মেয়ে (১০)কে একই এলাকার নিতাই চন্দ্র মণ্ডলের ছেলে হেমন্ত চন্দ্র মণ্ডল (৫২) ফুসলিয়ে তার বসতঘরে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। পরে ওই মেয়ের চিৎকার ও চেঁচামেচিতে স্থানীয় লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ ওই জেলেকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এ ঘটনায় বুধবার রাতে মেয়ের মা কল্পনা রানী বাদী হয়ে ভালুকা মডেল থানায় মামলা (নং-৬৬) করেছেন। অপরদিকে, উপজেলার ভরাডোবা গ্রামের গোলাম মাসুদ খানের ছেলে শফিকুল ইসলাম খান (৩০) উপজেলার পানিভাণ্ডা গ্রামের হজরত আলীর মেয়ে রেহেনা আক্তারকে (২৫) বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ অবৈধ মেলামেশায় লিপ্ত ছিল। সম্প্রতি ওই মেয়ে তার প্রেমিক শফিকুলকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে শফিকুল টালবাহানা শুরু করে। পরে রেহেনা ময়মনসিংহ পুলিশ সুপার বরাবর লিখিত অভিযোগ দিলে ভালুকা মডেল থানায় ১টি মামলা রুজু হয়।
বুধবার সন্ধ্যায় পুলিশ শফিকুল ইসলাম খানকে গ্রেপ্তার করে। ভালুকা মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ মাজহারুল ইসলাম জানান, পৃথক দুটি ধর্ষণের অভিযোগে ২টি মামলা হয়েছে। দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন