মাদরাসা ছাত্রী আটক

শেষের পাতা

ফেনী প্রতিনিধি | ১৭ এপ্রিল ২০১৯, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৪৯
সোনাগাজীর মাদরাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যা মামলার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গতকাল দুপুরে জান্নাতুল আফরোজ মনি নামে এক আলিম পরীক্ষার্থীকে আটক করেছে পিবিআই। সোনাগাজী সিনিয়র ফাজিল মাদরাসার পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে পরীক্ষা শেষে দুপুর দেড়টায় তাকে আটক করা হয়।

তবে জান্নাতুল আফরোজ মনিকে আটকের বিষয়টি পিবিআই’র কোনো কর্মকর্তা স্বীকার না করলেও সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদরাসার কেন্দ্র সচিব নুরুল আফসার ফারুকী নিশ্চিত করেছেন। এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও পিবিআই এর পরিদর্শক মো. শাহ আলাম জানান, তাদের কোনো টিম মনি নামে কাউকে আটক করেনি। তবে অন্য কোনো বাহিনী আটক করেছে কিনা তা তিনি নিশ্চিত করে জানাতে পারেননি।

এদিকে এ মামলায় এজহারভুক্ত ৮ জনের মধ্যে ৭ জন ও সন্দেহভাজন হিসেবে আরো ৮ জনকে গ্রেপ্তার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

অপরদিকে নুসরাত জাহান রাফিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় অপরাধী আসামিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে ফেনী ও সোনাগাজীতে মানববন্ধন করেছে একাধিক সংগঠন। মঙ্গলবার সকালে শহরের জিরো পয়েন্ট সংলগ্ন শহীদ মিনারের সামনে মানববন্ধন করে ফেনী শহর ব্যবসায়ী সমিতির ব্যবসায়ীরা, বিকালে একাদশ শ্রেণির প্রথম বর্ষের পরীক্ষা শেষে শহরের শহীদ শহীদুল্যাহ কায়সার সড়কে মানববন্ধন করে সরকারি জিয়া মহিলা কলেজের শিক্ষার্থীবৃন্দ।
এদিকে সকালে সোনাগাজী বাজারের জিরো পয়েন্টে মানববন্ধন করে ‘সোনাগাজী মহিলা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। এছাড়া ফেনী ও সোনাগাজীতে বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন সংগঠন মানববন্ধন করেছে। এ সময় ওইসব সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

ফেনী শহর ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মোশারফ হোসেন মানববন্ধনে তার বক্তব্যে বলেন, দুই আসামির জবানবন্দিতে নুসরাত হত্যার সঙ্গে জড়িত সোনাগাজী উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রুহুল আমিনের নাম উঠে এসেছে। অবিলম্বে তাকে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন।
তিনি ছাড়াও অন্য বক্তারা নুসরাত হত্যার ঘটনায় সোনাগাজী সিনিয়র ফাজিল মাদরাসার অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলাসহ সব অপরাধীদের শনাক্ত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন। কোনোভাবে যেন মামলা ভিন্ন খাতে প্রবাহিত না হয় সে জন্য সরকারের সুদৃষ্টি কামনা করেন।

গত ৬ই এপ্রিল সকালে নুসরাত আলিমের আরবি পরীক্ষা প্রথমপত্র দিতে গেলে মাদরাসায় দুর্বৃত্তরা তার গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ ঘটনায় দগ্ধ নুসরাত ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৫ দিন পর বুধবার রাতে মারা যায়। বৃহস্পতিবার বিকালে তার জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। এ ঘটনায় মাদরাসার অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলাকে প্রধান আসামি করে ৮ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ৪-৫ জনকে আসামি করে নুসরাতের ভাই নোমান মামলা দায়ের করেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Kazi

২০১৯-০৪-১৬ ২৩:২১:০০

এর চেয়ে জঘণ্য অপরাধ আর কিছুই হয় না। জড়িতদের ফাঁসির দড়িতে লটকিয়ে ফাঁসি দিলেও কম শাস্তি হবে। গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে উন্মুক্ত স্থানে মৃত্যুদণ্ড এদের প্রাপ্য। এভাবে শাস্তি দিলে ভবিষ্যতে য কেউ এরকম কাজ করতে সাহস পাবে না ।

মোঃ সালাহ উদ্দিন

২০১৯-০৪-১৭ ১০:৪৬:১৪

নুসরাত হত্যার সাথে জড়িত মাদরাসা ছাত্রী আটক জান্নাতুল আফরোজ মনি কে ও ফাসি দেয়া হোক। পুরুষদের যে শাস্তি দেয়া হউক তার চেয়ে যে কয়েকজন নারী এই হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করছি।

আপনার মতামত দিন

ভিপি নুরের ওপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

কাজের মাধ্যমে জনগণের আস্থা অর্জন করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

ইইউ নির্বাচনে হেরে আগাম নির্বাচনের ডাক দিলেন গ্রিক প্রধানমন্ত্রী

মৌলভীবাজারে নারী আইনজীবী খুন

কাঠমান্ডুতে তিন বিস্ফোরণে ৪ নিহত

ক্ষমতাসীনরা খালেদা জিয়ার জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে: রিজভী

ভারতে মুসলিম তরুণের টুপি খুলে ‘জয় শ্রী রাম’ গাইতে বাধ্য করার অভিযোগ

ডায়ানাকে নিয়ে রগরগে মন্তব্যকারী ট্রাম্পের সঙ্গে হাত মিলাতে হবে উইলিয়াম, হ্যারিকে

বিশ্বকাপে ভারতকে হারাবে পাকিস্তান: ইনজামাম

মালিবাগ বিস্ফোরণের দায় স্বীকার আইএসের

মালিবাগে বিস্ফোরিত বোমাটি শক্তিশালী: ডিএমপি কমিশনার

প্রথম বিদেশি প্রেসিডেন্ট হিসেবে জাপানি সম্রাটের সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন ট্রাম্প

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতার বোন ইয়াবাসহ আটক

এ যেন কোনো প্লাস্টিক গ্রহ!

সেই সেনাদের জেল থেকে ছেড়ে দিয়েছে মিয়ানমার

দিনাজপুরে ট্রাকের ধাক্কায় দুই লিচু ব্যবসায়ী নিহত