মহম্মদপুরে রউফ হত্যা মামলার আসামিরা প্রকাশ্যে

বাংলারজমিন

মহম্মদপুর (মাগুরা) প্রতিনিধি | ১৬ এপ্রিল ২০১৯, মঙ্গলবার
 মহম্মদপুরে অধ্যক্ষ রউফ হত্যার আসামিরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও পুলিশ কাউকেই গ্রেপ্তার করতে পারেনি বলে অভিযোগ করেন মামলার বাদী। তবে পুলিশ বলছে আসামিরা পলাতক। ২৬শে মার্চ রাতে নিহতের ভাই আব্দুল ওহাব মিলন বাদী হয়ে বালিদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা মো. পান্নু মোল্যাসহ ১২ জনের নামে মহম্মদপুর থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। আব্দুল ওহাব মিলন অভিযোগ করে বলেন, আসামিরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে। অথচ পুলিশ তাদের পাচ্ছে না। আমি আসামি রাজুকে মহম্মদপুর বাজারে চলাফেরা করতে দেখেছি। পরে শুনেছি সে ওই রাতে বাড়িতে ছিল। এছাড়া আসামি খালেকসহ অনেক আসামিকে প্রকাশ্যে থাকতে দেখেছি।
আব্দুর রউফ মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার কাদিরপাড়া সম্মিলনী ইসলামী আলিম মাদরাসার অধ্যক্ষ এবং মহম্মদপুর উপজেলার বালিদিয়া ইউনিয়নের ঘোষপুর এলাকার হাজী মোসলেম উদ্দীনের বড় ছেলে। পরিবার সূত্রে জানা যায়, মামলা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে গত ২১শে মার্চ উপজেলার বড়রিয়া নতুন বাজারে বালিদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা মো. পান্নু মোল্যার নেতৃত্বে সংঘবদ্ধ ১৫-১৬ জন লোক অধ্যক্ষ রউফের ওপর হামলা চালায়। এতে গুরুতর আহত হন তিনি। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে মহম্মদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে মাগুরা সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ২৫শে মার্চ বিকাল সাড়ে ৪টায় মাগুরার ২৫০ শয্যা হাসপাতালে তিনি মারা যান।
শিক্ষক সমাজ ও সাধারণ মানুষ সম্মিলিতভাবে রউফ হত্যা মামলার আসামিদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে কয়েক দফা মানববন্ধন, বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন ও  স্মারকলিপি পেশ করলে ও আসামিদের কাউকেই আটক করতে পারেনি পুলিশ। রউফ হত্যাকারীদের বিচার আদায় সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক শরীফ আক্তারুজ্জামান, সাবেক উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান স্বপ্না রানী বিশ্বাস, উপজেলা শিক্ষক সমিতির  সভাপতি মাহফুজুর রহমান ও বসুরধুলজুড়ি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রিয়াজুর রহমান দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, হত্যাকাণ্ডের দীর্ঘ ১৫ দিন পার হলে ও কোনো আসামিকেই পুলিশ আটক করতে পারেনি। তারা  হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার করে দ্রুত বিচারের আওতায় আনার জোর দাবি জানান। তারা যতদিন পর্যন্ত হত্যাকারীরা গ্রেপ্তার না হবে ততদিন ধারাবাহিকভাবে প্রতিবাদ কর্মসূচিসহ নানা কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার কথা বলেন। মামলার তদন্ত অফিসার মহম্মদপুর থানার ওসি (তদন্ত) লিটন কুমার সরকার বলেন, আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশ যথেষ্ট তৎপর রয়েছে। তারা সবাই পলাতক রয়েছে। বাদী পক্ষ যদি আসামিদের কোনো তথ্য পেয়ে থাকে তবে যেন তারা পুলিশকে অবহিত করে।




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

কেন্দুয়ায় পানিতে পড়ে ৩ শিশুর মৃত্যু

নববধূকে সিগারেটের আগুনে ছ্যাঁকার অভিযোগ, মামলা

জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

৩০ এপ্রিলের মধ্যে বিএনপির বাকিরাও শপথ নেবেন : হানিফ

লাবণ্যকে বহনকারী মোটরবাইক চালক আটক

সরকারের চাপে শপথ নিচ্ছে বিএনপির নির্বাচিতরা

‘গেট আউট’ মোকাব্বির যোগ দিলেন গণফোরামের কাউন্সিলে

‘সাংগ্রি-লা হামলায় নিহত হয়েছে জাহরান হাশমি’

শ্রীলঙ্কায় হামলার আশঙ্কা, মসজিদ বা গির্জায় প্রার্থনা না করার আহ্বান

নড়াইলে অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা

ইরাকে ৪৫ বাংলাদেশী শ্রমিক উদ্ধার

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে রিজভীর নেতৃত্বে মিছিল

কথিত বাংলাদেশী অভিবাসী ইস্যুতে উত্তপ্ত ভারতের সুপ্রিম কোর্টের বেঞ্চ

‘মাসের ত্রিশ দিনই ক্যামেরার সামনে থাকতে হচ্ছে’

বগুড়া জেলা বিএনপির সভাপতিকে শোকজ

কুষ্টিয়ায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত