শিশুদের পার্ক নাকি ‘শিশু তৈরির পার্ক'

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক | ১৯ মার্চ ২০১৯, মঙ্গলবার, ৯:০১
বাংলাদেশের শহরগুলোতে শিশুদের বিনোদনের ব্যবস্থা তেমন একটা নেই এ কথা মোটাদাগে বলাই যায়। শিশু পার্ক যেগুলো আছে সেগুলোতে ছোটদের চেয়ে বড়দের আনাগোনাই বেশি৷ খুলনার গিলাতলায় এক শিশুপার্কে গিয়ে হয়েছে বিব্রতকর অভিজ্ঞতা৷
রাজধানী ঢাকায় শিশুদের নিয়ে ঘুরতে যাওয়ার নানা ব্যবস্থা রয়েছে৷ প্রয়োজনের তুলনায় কম হলেও শিশুপার্কের পাশাপাশি বড় বড় শপিং মলগুলোতে রয়েছে শিশুদের জন্য আলাদা বিনোদন পার্ক৷ ঢাকার আশেপাশেও একাধিক এরকম পার্ক রয়েছে৷ কিন্তু রাজধানীর তুলনায় কম গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলোতে শিশুদের জন্য ঘরের বাইরে চিত্তবিনোদনের ব্যবস্থা বলতে শুধু শিশু পার্ক৷

খুলনার গিলাতলায় সেরকমই এক শিশুপার্কে যাওয়ার অভিজ্ঞতা হয়েছে এবার৷ বনবিলাস নামের পার্কটি বাইরে থেকে বেশ পরিচ্ছন্ন মনে হলো৷ ভেতরে শিশুদের নানারকম রাইডও আছে৷ কিন্তু সেগুলো ব্যবহার করতে গেলে দেখা যায় নানা বিড়ম্বনা৷ দাদাদাদির সঙ্গে ঘুরতে যাওয়া দুই শিশুকে পর্যবেক্ষণ করতে গিয়ে বুঝলাম রাইডগুলোর অবস্থা বেশ নাজুক৷ কোনোটাতে ব্যাটারি নেই, কোনোটা নিয়মিত ব্যবহার করা হয় না বলে ময়লার আবরণে ঢাকা পড়ে গেছে৷

শিশুপার্কটিতে শিশুদের নানা রাইড রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে ব্যবহার অনুপোযোগী হয়ে পড়লেও পার্কটিতে দর্শণার্থীর তেমন একটা অভাব চোখে পড়লো না৷ বরং তরুণ বয়সিদের আনাগোনা সেখানে বেশি৷ জোড়ায় জোড়ায় তরুণ-তরুণীদের পার্কের নানা কোনায় অত্যন্ত ঘনিষ্ঠভাবে সময় কাটাতে দেখা গেল৷ শিশু পার্কে শিশুদের সামনেই তাদের অতিঘনিষ্ঠ হওয়ার দৃশ্য দৃষ্টিকটু বটে!
বনবিলাস পার্কটি তাই নামে শিশু পার্ক হলেও সেটি যে আসলে একটি ‘ডেটিং স্পট' তা বুঝতে বেশি সময় লাগেনি৷ আর তখন রাইডগুলোর দুরাবস্থার কারণ বোঝা গেল৷ মালিক কর্তৃপক্ষ সম্ভবত ‘শিশু পার্ক' নামটি ঢাল হিসেবে ব্যবহার করে তরুণ-তরুণীদের প্রেমলীলার এক নিরাপদ আশ্রয় বানিয়েছেন পার্কটিকে৷ অথচ সেনানিবাসের খুব কাছে অবস্থিতি এই পার্কে শিশুদের জন্য আরো উন্নত পরিবেশ আশা করে সাধারণ মানুষ৷

খোঁজ নিয়ে জানলাম, শিশু পার্কটিতে যে এরকম কর্মকাণ্ড ঘটছে তা অতীতে বিচ্ছিন্নভাবে গণমাধ্যমে এসেছে৷ তবে তাতে পরিস্থিতি তেমন একটা বদলায়নি৷ বরং ফেসবুকে কেউ কেউ সেটির নাম দিয়েছে ‘শিশু তৈরির পার্ক'৷ অবশ্য শুধু বনবিলাস নয়, এরকম অবস্থা কমবেশি আরো অনেক শিশুপার্কে দেখা যায়৷ বিশেষ করে জেলা শহরগুলোতে শিশুদের জন্য তৈরি পার্কে জোড়ায় জোড়ায় তরুণ-তরুণীদের দেখা মেলে বেশি৷ তাই, অভিভাবকরা সেসব পার্কে না যাওয়াকেই শ্রেয় মনে করেন৷ ফলে বঞ্চিত হয় শিশুরা৷
সূত্র- আরাফাতুল ইসলাম, ডয়চে ভেলে




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Dupur

২০১৯-০৩-১৯ ২১:১৬:০৬

Dudhorsho, vutopurbo, heading

আপনার মতামত দিন

চিরঘুমে জায়ান

সিপিডির বক্তব্য অগ্রহণযোগ্য

শ্রীলঙ্কায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৫৯

কার্যকর গণতন্ত্রে মানবাধিকার ও মিডিয়ার স্বাধীনতা গুরুত্বপূর্ণ

সাংবাদিকদের চোর বলিনি

প্রেসক্রিপশন ছাড়া অ্যান্টিবায়োটিক বিক্রি বন্ধে রিট

আইসিডিডিআর’বিতে ঘণ্টায় ৩৬ নতুন রোগী

বাংলাদেশে ঝুঁকি এড়াতে সতর্কতার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের

ইউক্রেনে ডিটেনশন সেন্টারে ২০৮ বাংলাদেশি

দেশবাসীকে সজাগ ও সতর্ক থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

যুক্তরাষ্ট্রে সিপ্রোহেপটাডিন রপ্তানির অনুমোদন পেলো বেক্সিমকো ফার্মা

শেখ হাসিনা মিষ্টি পাঠান মমতা পাঠান কুর্তা

৩০শে এপ্রিল শাহবাগে ঐক্যফ্রন্টের গণজমায়েত

পুলিশের ৪ সদস্যের গাফিলতি খুঁজে পেয়েছে তদন্ত কমিটি

হুমকির অভিযোগ মিজানুরের

প্রতিবাদ আর কান্নায় পালিত হলো রানা প্লাজার ৬ষ্ঠ বার্ষিকী