ছেলেকে বাঁচাতে গুলির সামনে বুক পেতে দেন বাবা

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক | ১৮ মার্চ ২০১৯, সোমবার, ৫:৪৩ | সর্বশেষ আপডেট: ৮:২৮
জুলফিকার সিয়াহ। মাত্র দুই মাস আাগে ইন্দোনেশিয়া থেকে স্ত্রী-পুত্র নিয়ে নিউজিল্যান্ডে এসেছেন জুলফিকার। সবার কাছে মেধাবী ও পরিশ্রমী আর্টিস্ট হিসেবে পরিচিত সে। কিন্তু ঘাতকের বুলেট বেশিদিন সুখে শান্তিতে থাকতে দিল না সদালাপী জুলফিকার কে। তবে আহত হওয়ার আগে যে দৃষ্টান্ত তিনি রেখে গেলেন তা দিনের পর দিন অনন্য উধারণ হয়ে থাকবে পৃথিবীর আর দশটা পিতার কাছে।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের লিনউড মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার সময় হামলাকারীর গুলির সামনে দাঁড়িয়ে দুই বছরের ছেলের প্রাণ বাঁচিয়েছেন জুলফিকার। শরীরে বেশ কয়েক জায়গায় গুলি লেগেছে তার। গুরুতর আহত অবস্থায় নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে রেখে তার চিকিৎসা চলছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ দৈনিক ইন্ডিপেনডেন্ট।   

সিয়াহর আমেরিকান স্ত্রী আল্টা মারি এক ফেইসবুক পোস্টে লিখেছেন, লিনউড মসজিদে হামলার সময় আমার স্বামী ছেলেকে আড়াল করেছিলেন। এতে অধিকাংশ গুলি তার গায়ে লাগে এবং তিনি আমাদের ছেলের চেয়ে অনেক বেশি আহত হন।
এই পরিবারকে সহায়তায় ''Help Young Family Victimi“ed by Terrorist Attack''   শিরোনামে একটি ফান্ডরাইজিং পেইজ  খোলা হয়েছে। ৫০ হাজার ডলারের লক্ষ্য নিয়ে খোলা ফান্ডে এখন পর্যন্ত ২৪ হাজার ডলার জমা হয়েছে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Islam

২০১৯-০৩-১৮ ০৬:১৯:৪৮

May Allah Rabbul ALAMIN give him full recovery.

আপনার মতামত দিন

‘অভিযানে ধরা পড়া সবাই এক সময় যুবদল-বিএনপি করতো’

ব্যাংক নোটের আদলে টোকেন ব্যবহার দণ্ডনীয়

পুলিশ এতদিন কি করছিল?

মতিঝিলে আরও ৪ ক্লাবে অভিযান, পাওয়া গেছে ক্যাসিনো সামগ্রি, মাদক, নগদ টাকা

সিরিজ বোমা হামলা: ৫ জেএমবি সদস্যের কারাদণ্ড

কুষ্টিয়ায় মাদক মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন

বিচারকদের ফেসবুক ব্যবহারে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশনা

পাষণ্ড ছেলে...

যমুনায় নৌকা ডুবি, নিহত ১

ফাইনালে অনিশ্চিত রশিদ খান

ঢাবিতে ছাত্রদল-ছাত্রলীগের অবস্থান, স্লোগান, উত্তেজনা

আগস্টে ইন্টারনেট সংযোগ বেড়েছে ২০ লাখ: বিটিআরসি

সৌদি আরবে হামলা থামানোর প্রস্তাব হুতির, সমর্থন জাতিসংঘের

‘জাবিতে ভিসিবিরোধী আন্দোলন, সাবেক ভিসির এজেন্ডা’

জাবি’র ভর্তি পরীক্ষা শুরু, ২০ কোটি টাকার ফরম বিক্রি

পরিস্কার পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের মানবেতর জীবন যাপন