ভিসিকে ভিপির চ্যালেঞ্জ

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ১২ মার্চ ২০১৯, মঙ্গলবার, ৩:১৩ | সর্বশেষ আপডেট: ১১:২০
ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে প্রথম বক্তব্যেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছেন ডাকসুর নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নুর। বলেন, আমি ভিসি স্যারকে চ্যালেঞ্জ করছি, যদি সুষ্ঠু নির্বাচন হয়, আর ছাত্রলীগ একটি পদও পায়, তাহলে স্বেচ্ছায় ভিপি পদ ত্যাগ করে চলে যাবো। আজ ছাত্রলীগের হামলার পর নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ এনে এবং পুন:তফসিল ঘোষণার দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সমাবেশে বক্তব্যকালে তিনি এ চ্যালেঞ্জ করেন।  এ সময় তিনি অনির্দিষ্টকালের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে ধর্মঘটের ডাক দেন।

বক্তব্যের শুরুতে নুর বলেন, আপনার জানেন ২৮ বছর পর ডাকসুতে নির্বাচন হয়েছে। নির্বাচনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রসমাজের দিকে তাকিয়ে ছিলো সারাদেশ। যখন জাতীয় নির্বাচনসহ অন্যান্য নির্বাচন ব্যবস্থার প্রতি মানুষের বিরূপ ধারনা তৈরী হয়েছে, সেই জায়গা থেকে দেশের মানুষ ডাকসু নির্বাচনের দিকে তাকিয়ে ছিল। কিন্তু দলকানা প্রশাসন নীলনকশা অনুযায়ী যতরকম কারচুপি করা যায়, তার সবই করেছে।

নবনির্বাচিত ভিপি বলেন, এতো কারচুপির পরও আমাকে আর আখতারকে তারা আটকাতে পারেনি। তবে অন্যদের আটকাতে সক্ষম হয়েছে।

তিনি ছাত্রী হলগুলোর উদাহরণ তুলে ধরে বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচন হলে শামসুন্নাহার হল, কুয়েত-মৈত্রী হলের মতোই সব ফলাফল হতো। এসময় তিনি ভিসিকে উদ্দেশ্য করে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন।

নির্বাচনের দিনের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, সব অনিয়ম এবং কারচুপি তুলে ধরায়  রোকেয়া হলের সামনে ছাত্রলীগের লেডি সন্ত্রাসীদের হাতে আমাকে আহত হতে হয়েছে। আজও এই অনিয়মের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়ায় ছাত্রলীগের সেই হাতুড়ি এবং হেলমেট বাহিনী আমাদের ওপর হামলা চালিয়েছে।

নুর হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অগ্নিস্ফুলিঙ্গ। এখানে কোন অনিয়ম ছাত্রসমাজ মেনে নেবে না। তাদের স্ফুলিঙ্গে সব ছারখার হয়ে যাবে। প্রশাসনের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ছাত্রীদের যৌন হয়রানী ও নিপীড়নকারীকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিস্কার করতে হবে।

প্রহসনের মাধ্যমে আপনাকে জেতানো হয়েছে ছাত্রলীগের এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে সাংবাদিকদের করা এক প্রশ্নের জবাবে নুর বলেন, ছাত্রলীগ একটা গুজবলীগ। সুষ্ঠু নির্বাচন হলে তাদের অবস্থা হতো শামসুন্নাহার হলের মতো।

ভিপি পদ গ্রহণ করবেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে বলেন, এটা কোন নির্বাচন হয়নি। এতো কারচুপির পরও সাধারণ শিক্ষার্থীদের ভোটে নির্বাচিত হয়েছি। প্রয়োজনে এ পদে থেকেই অনিয়মের বিরুদ্ধে সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে যাবো।    

পরে ভোট কারচুপির অভিযোগ এনে স্বচ্ছ নির্বাচনের দাবিতে অনির্দষ্টকালের জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ধর্মঘট ডেকেছেন ডাকসুর নবনির্বাচিত এই ভিপি।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

রিপন

২০১৯-০৩-১৩ ২০:০৬:৩৪

দু দু'টো অসঙ্গতি প্রকট লাগছে আমার কাছে, অবশ্যই আমার ব্যক্তিগত মূল্যায়ন, যে কেউ সানন্দে ভিন্নমত পোষণ করতে পারেন, মাইন্ড করবো না। ১. মি. ভিসিকে এখানে চ্যালেঞ্জ দেয়ার কী আছে? চ্যালেঞ্জ দিলে সে তার প্রতিপক্ষ ছাত্রলিগকে চ্যালেঞ্জ দিলেই বরং শোভন ও যৌক্তিক লাগতো। মি. ভিসি, তা তিনি যাদের প্রতিই অনুকূল মনোভাব পোষণ করে থাকুন না কেন, কখনও কি তিনি প্রকাশ্যে বলেছেন - ছাত্রলিগই জয়ী হতো, অন্য কেউ নয়, যদি সুষ্ঠু নির্বাচন হতো? তেমন কিছু বলে থাকলে তার উল্লেখ প্রতিবেদনে করা হলে, চ্যালেঞ্জটিকে তবুও যৌক্তিক, প্রাসঙ্গিক মনে হতো, এবং আমার মতো আনাড়ির কিছু বলার থাকতো না। ২. একই সাথে ভিপি পদ আঁকড়ে থেকে প্রকারান্তরে নির্বাচনটিকে বৈধতা দেয়া ,গ্রহণযোগ্যতা দেয়া, যুগপৎ নির্বাচনে কারচুপি হয়েছে এই অজুহাতে এই নির্বাচন বাতিল ও পুনঃ তফসিল ঘোষণার দাবিকে এর মুখে বেমানান লাগছে, স্ববিরোধী লাগছে। হ্যাঁ দাবিটি যদি এমনভাবে করা হতো - আমি ভিপি পদ চাই না, নির্বিশেষে সকল শিক্ষার্থীর গণতান্ত্রিক অধিকার ভোটাধিকার চাই, ডাকসুতে ঢাবি ক্যাম্পাসে গণতন্ত্র ফিরে পেতে চাই; - তবেই বলা যেত নুরু যথার্থ বলছে। প্রসঙ্গত, নির্বাচনটিকে সুষ্ঠু বলে আমি মনে করি না, খবরাখবর ১১ তারিখ থেকে আজ পর্যন্ত যা পড়েছি মানবজমিনে, তাতে আমার দৃঢ় প্রতীতি জন্মেছে ডাকসুর গৌরবময় অস্তিত্বে কালিমা লেপন করা হয়েছে। কলংকের ভারে ন্যুব্জ ২০১৯-এর ডাকসু আর তার কলঙ্কিত নায়কদের যতই দেখি, ততই মনে হচ্ছে এসবের পরিণতি খুব সুখদ কিছু বয়ে আনছে না। অবশ্য, এর সবই আমার একান্ত ব্যক্তিগত অভিমত, যা প্রতিবেদনটি পড়ে আমার মনে সৃষ্টি হয়েছে। সবাই অভিমত প্রকাশ করছেন। সবার পাশে সবার শেষে আমি না হয় খানিকটা উঁকিঝুঁকিই দিলাম। দোষণীয় নয়, নিশ্চয়ই? কী বলেন? প্রীতি নিন সকলে।

MohAmmad Serajul

২০১৯-০৩-১২ ০৯:১৮:৫৪

পৃথিবীর ইতিহাসে অন্যায়,জুলুম ও প্রলোভনের কাছে তারুণ্য হারমানেনি, আত্মসমর্পন করেছে শুধু বিছিন্ন কিছু কাপুরুষ আর চরিত্রহীনরা। আমাদের কি হবে ?

Emon

২০১৯-০৩-১২ ০৬:১২:১৩

This is victory of Bangladesh. You are symbol of Bangladesh. যদি fair elections হয় সমগ্রহ বাংলাদেশে আওয়ামিলীগের কি অবস্তা হতে পারে তা তারা খুব ভাল করে জানে।ভোট ডাকাতি করে হয়ত আরো কয়েকটা বছর ক্ষময়তায় থাকা যাবে কিন্তু ইতিহাসে তো সব অপকর্ম রেকর্ড হচ্ছে।

Raju

২০১৯-০৩-১২ ১৭:১৩:০৪

আপনি পূনঃনির্বাচনের দাবিতে অটল থাকুন,তবে দলকানা প্রশাসন আপনাকে নতুন নির্বাচন হলে তখন হারাইয়া দিবে,সব বেহায়ারা একজোট হইছে।

মোহাম্মদ কামালহোসেন

২০১৯-০৩-১২ ০৩:৫০:১৭

নুর তুমি এগিয়ে যাও।

Md Harun al Rashid

২০১৯-০৩-১২ ১৬:৪১:২২

নূর,অভিনন্দন ! Compromise leads to surrender-এটা মনে রেখে এগোয় ।

ইফতেখার হোসেন

২০১৯-০৩-১২ ০৩:৩৩:১০

***নুর ও মনসুর*** বুড়ো গরু যাবর কাটে লোভী কুকুর হাড্ডি চাটে বুক ফুলিয়ে নুরের দল বকুল ফুলের পথে হাটে। বাঙলা মায়ের সোনার ছেলে সাহস নিয়ে সামনে গেলে লোভী কুকুর লেজ গুটিয়ে ছুট লাগাবে হাড্ডি ফেলে!

ইমাম হোসেন

২০১৯-০৩-১২ ০৩:৩২:০৭

চ্যালেন্জ এর জন্য ধন্যবাদ। ভি পি পদ গ্রহণকরে তুমি ভুলকরে ফেলবে মনে হয়।একবার পাকিস্তানের শাসকেরা বংগবন্ধুকে প্যারোলে মুক্তিনিয়ে তাদেরসাথে আলোচনা করতে আহবান জানিয়েছিলো, বংগবন্ধু তা প্রত্যাখ্যান করে, নিজের মু্ক্তির দাবীতে অনড় ছিলেন, তারপরের ইতিহাস সবার জানা।তুমি কারচুপি মুক্ত অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন এর দাবীতেঅনড় থাকো। ইতিহাসতোমাকেস্মরণকরতেবাধ্য হবে।

nasim morol

২০১৯-০৩-১২ ০৩:৩১:২১

ধন্যবাদ জানাই নূরুল হককে। আর পুনঃরায় নির্বাচন দেওয়া হউক। নুরুল হকরাই জিতবে। তাদের দ্বারাই বাংলাদেশে রচিত হবে নতুনদের জয়যাত্রা।

জাফর আহমেদ

২০১৯-০৩-১২ ০৩:২২:৫৯

আমরা আপনার সাথে একমত পোষণ করে আপনার সাথে থাকার অঙ্গীকার করছি।

মানিক রাজ

২০১৯-০৩-১২ ০২:৫৫:৩১

অসংখ্য ধন্যবাদ নুরু কে।

কবির আহমেফ

২০১৯-০৩-১২ ০২:৩৯:৫৬

আজ নুরু সঠিক কথা বলেছে।সুষ্ঠ নির্বাচন হলে ছাত্রলীগ প্যানেলের কেউ জিত্তে পারত না।

আপনার মতামত দিন

‘ঢাকায় ছিনতাইকারী নেই, সকলকে ধরে জেলে পাঠানো হয়েছে’

এফআর টাওয়ারে আগুন: নির্মাণে ত্রুটি, দায়ী ৬৭ জন

নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় ইন্দোনেশিয়ায় নিহত ৬

বালিশ কাণ্ডে নির্বাহী প্রকৌশলী প্রত্যাহার

ম্যাচমেকার শারদ পাওয়ার

ভারতে স্টোর রুমে ২৪ ঘন্টার নজরদারি

১০০ দিনের এজেন্ডা প্রস্তুতের নির্দেশ

খালেদা জিয়াসহ ৫ জনকে প্রাথমিক মনোনয়ন বিএনপির

আজও ক্ষতিপূরণ দেয়নি গ্রিনলাইন, তীব্র ক্ষোভ হাইকোর্টের

শ্রীলঙ্কায় বৌদ্ধ-মুসলিম রক্তাক্ত পরিণতির আশঙ্কা ভারতের

ভারতে শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থা, কে বসবেন দিল্লির মসনদে?

যৌনতা কমছে দেশে দেশে

ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু, উপচেপড়া ভিড় কমলাপুরে

বাংলাদেশে আইএসের নেটওয়ার্কে ঘনিষ্ঠভাবে নজরদারি করছে ভারত

হুয়াওয়ে সংকটের আদ্যোপান্ত

‘চলচ্চিত্রের সময়টা এখন মোটেও ভালো যাচ্ছে না’