ডাকসু নির্বাচন

সরগরম ক্যাম্পাস প্রথম দিন মনোনয়নপত্র নেননি আলোচিত কেউ

শেষের পাতা

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার | ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:৪৮
আসন্ন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল ছাত্রসংসদ নির্বাচনের মনোনয়ন ফরম বিতরণ শুরু হয়েছে। গতকাল সকাল ১০টা থেকে  শুরু হয়ে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ১৮টি হলে একযোগে মনোনয়ন ফরম বিতরণ করা হয়। হল প্রাধ্যক্ষদের কাছ থেকে প্রার্থীরা মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করতে পারছেন। বিকালে হলগুলোতে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রথম দিনে ২৮টি মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করা হয়েছে। এদিন আলোচিত কোনো প্রার্থী মনোনয়নপত্র নেননি।

আগামী ১১ই মার্চ অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ডাকসু ও হল সংসদ নির্বাচন ঘিরে ক্যাম্পাসে সরগরম অবস্থা বিরাজ করছে। সব ছাত্র সংগঠনের সক্রিয় উপস্থিতিতে মধুর ক্যান্টিনেও তিল ধারণের ঠাঁই নেই। ক্যাম্পাস, হল, শ্রেণিকক্ষসহ সব জায়গায় ডাকসুর আলোচনা।
প্রাণচাঞ্চল্য বিরাজ করছে সাধারণ শিক্ষার্থীদের মধ্যেও। দুপুরে মধুর ক্যান্টিনে এক সংবাদ সম্মেলনে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন রুটে শিক্ষার্থীদের জন্য চলাচলকারী বাসগুলোর কমিটির নেতারা ছাত্রলীগের মতো হলেই ভোটকেন্দ্র করার দাবি করেছে।

সংবাদ সম্মেলন করার আগে বাসগুলোর কমিটির নেতারা গত পরশু আইবিএ ক্যান্টিনে ডাকসু নির্বাচন নিয়ে ছাত্রলীগের সঙ্গে এক বৈঠক করেছিল। দুপুর ১টার দিকে ভিসির কার্যালয়ে গিয়ে ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানকে এক স্মারকলিপি দিয়েছে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও প্রজন্ম পরিষদ। স্মারকলিপিতে সংগঠনটি ছাত্রদলকে নির্বাচনে অযোগ্য ঘোষণার আবদার করেছে। এছাড়া কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের প্ল্যাটফর্ম বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ গতদিনের মতো গতকালও ক্যাম্পাসের বিভিন্ন একাডেমিক ভবন ও কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে লিফলেট বিতরণ করেছে।

প্রথমদিনে ২৮টি মনোনয়ন সংগ্রহ: গতকাল মনোনয়ন ফরম বিতরণের প্রথম দিনে ১৮টি হলের ৫ হল থেকেই কোনো প্রার্থী মনোনয়ন সংগ্রহ করেনি। অন্য ১৩টি হল থেকে মাত্র ২৮ প্রার্থী মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন। সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলে মনোনয়ন ফরম বিতরণ। শিক্ষার্থীরা নিজ নিজ হলের প্রাধ্যক্ষ থেকে পরিচয়পত্র দেখিয়ে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করতে পারছেন। তবে প্রথম দিনে ছাত্র সংগঠনগুলো মনোনয়ন সংগ্রহ করা থেকে বিরত ছিলেন। মনোনয়ন বিতরণ চলবে আগামী ২৫শে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। বিকালে হলগুলোতে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মাস্টারদা’ সূর্য সেন হল থেকে ৫টি, শহীদ সার্জেন্ট জহরুল হক হলে ৫টি, হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলে ৪টি, শামসুন্নাহার হলে ২টি, সলিমুল্লাহ মুসলিম হলে ২টি, বিজয় একাত্তর হলে ১টি, সুফিয়া কামাল হলে ১টি, মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হলে ৫টি, অমর একুশে হলে ১টি, জগন্নাথ হলে ১টি এবং রোকেয়া হল ১টি মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করা হয়েছে।

অন্যদিকে, ফজলুল হক মুসলিম হল, স্যার এ এফ রহমান হল, ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ হল, বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল ও কুয়েত মৈত্রী হল থেকে কেউ মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেনি। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. জিয়াউর রহমান বলেন, এখনো পর্যন্ত কেউ মনোনয়ন সংগ্রহ করেনি। আমরা বিকাল ৪টা পর্যন্ত এখানে অবস্থান করবো এবং মনোনয়ন বিতরণ করবো। এরপরই হলটিতে এক শিক্ষার্থীকে মনোনয়ন ফরম কিনতে যেতে দেখা গেছে। হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক নিজামুল হক ভূইয়া বলেন, মনোনয়ন সংগ্রহ ও বিতরণ শুরু হয়েছে। চলবে ২৫শে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। আমরা আশা করছি উৎসবমুখর পরিবেশে চলবে মনোনয়ন বিতরণ। মনোনয়ন ফরম বিতরণ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মু. সামাদ বলেন, বৃহস্পতিবার থেকে হলগুলোতে প্রাধ্যক্ষরা মনোনয়ন ফরম বিতরণ শুরু করেন, আগামী ২৫শে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলবে। আমরা আশা করছি উৎসবমুখর পরিবেশ শিক্ষার্থীরা মনোনয়ন ফরম কিনবে।

ছাত্রলীগের সঙ্গে বৈঠক: বাস কমিটিও চায় হলে ভোটকেন্দ্র: পরশু আইবিএ ক্যান্টিনে ডাকসু নির্বাচন নিয়ে ছাত্রলীগের সঙ্গে এক বৈঠকে মিলিত হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনাবাসিক শিক্ষার্থীদের জন্য বিভিন্ন রুটে চলাচলকারী বাস কমিটির নেতাদের সংগঠন ‘সম্মিলিত বাস রুট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়’। এরপরই গতকাল দুপুরে মধুর ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলন করে হলেই ভোটকেন্দ্র করার পক্ষে নিজেদের অবস্থানের ঘোষণা দেয় তারা। ভোটকেন্দ্র নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে যখন ছাত্র সংগঠনগুলোর মধ্যে চলছে তুমুল আলোচনা, ঠিক তখনই এমন সিদ্ধান্তের কথা জানান বাস কমিটির নেতারা।

যদিও বাসে যাতায়াতকারী অনেক শিক্ষার্থীই দাবি করেন কমিটি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনা না করে ছাত্রলীগের সঙ্গে হাত মিলিয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান ফাল্গুনী বাস কমিটির সভাপতি নূর মোহাম্মদ বাপ্পী। তিনি বলেন, ‘ডাকসু নির্বাচনকে ঘিরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক ও অনাবাসিক শিক্ষার্থীদের মধ্যে কৃত্রিম বিভেদ সৃষ্টির অপচেষ্টা করা হচ্ছে। অনাবাসিক শিক্ষার্থীরা হলের সঙ্গে অঙ্গাঙ্গিভাবে সম্পৃক্ত। হলে আমাদের যাতায়াত অবাধ। আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক কর্মকাণ্ড হলের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, অনাবাসিক শিক্ষার্থীদের হলে ভোটদানের সার্বিক পরিবেশ আছে। ডাকসু নির্বাচন নিয়ে আর কোনো জলঘোলা হোক, তা আমরা চাই না।’ এ সময় বাসে যাতায়াতকারী অনাবাসিক শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে সাত দফা দাবি তুলে ধরা হয়। ডাকসু নির্বাচনে বিভিন্ন সংগঠন ও জোটের ইশতেহারে এসব দাবির অন্তর্ভুক্তি চান তারা। দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে প্রত্যেক রুটে বাস বৃদ্ধি, নতুন ডাবল ডেকার বাস, বাসের রুট বৃদ্ধি, বিআরটিসির পক্ষ থেকে দক্ষ চালক ও হেলপার নিয়োগ ইত্যাদি।

ডাকসু নির্বাচনে ছাত্রদলকে অযোগ্য ঘোষণার আবদার মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের: আসন্ন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ নির্বাচনে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলকে অযোগ্য ঘোষণার দাবি করেছে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও প্রজন্ম পরিষদ। গতকাল দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানকে চার দফা দাবিতে দেয়া এক স্মারকলিপিতে এ দাবি জানায় সংগঠনটি। স্মারকলিপিতে ছাত্রদলকে প্রতিক্রিয়াশীল গোষ্ঠী উল্লেখ করে তাদের মধুর ক্যান্টিনে নিয়ে আসার প্র?তিবা?দও জানানো হয়। এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সনেট মাহমুদ বলেন, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মূল্যবোধ ও প্রগতির ধারক বাহক।

এখানে যদি কেউ প্রতিক্রিয়াশীল গোষ্ঠী নিয়ে মধুর ক্যান্টিনে আসে তা আমরা বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম কখনই মেনে নেবো না! এটা আমাদের এই বিদ্যাপীঠের সকল ছাত্র-ছাত্রীদের বিকাশের পরিপন্থি বলে মনে করি!’ স্মারক?লি?পি মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও প্রজন্ম পরিষদের চার দফা দাবির মধ্যে রয়েছে- ডাকসু নির্বাচনে প্রতিটি হল সংসদে স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক পদ সংযোজন করতে হবে; ছাত্রশিবিরকে নিয়ে সম্প্রতি মধুর ক্যান্টিনে প্রবেশ করার অপরাধে ছাত্রদলকে ডাকসু নির্বাচনে অযোগ্য ঘোষণা করতে হবে; ফেসবুকের ‘কোটা সংস্কার চাই’ পেইজের এডমিন, মডারেটর এবং মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযোদ্ধাদের কটূক্তিকারীদের ছাত্রত্ব বাতিল করে দ্রুত আইনের আওতায় এনে বিচার করতে হবে;  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বাসভবনে হামলাকারী, গুজব সৃষ্টিকারী ও উসকানিদাতাদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘দর্শক আমাকে অন্যভাবে আবিষ্কার করবে’

আমিই এখন তোমার মা ও বাবা

থমথমে পাহাড় গুলিতে আওয়ামী লীগ নেতা নিহত

সিনেমা হলের সূচনার গল্প

বাবার সামনেই বাস পিষে মারলো আবরারকে

একদিনে সড়কে নিহত ১২

নুরের একাত্মতা, আঘাত এলে দাঁতভাঙা জবাব

খাগড়াছড়িতে বুধবার সকাল-সন্ধ্যা হরতাল

এখনো চলছে সেই জাবালে নূর পরিবহন

প্লেসমেন্ট শেয়ার নিয়ে পুঁজিবাজারে অস্থিরতা

‘খালেদা অসুস্থ আদালতে আসার আগেও বমি করেছেন’

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিবেদন একপেশে প্রত্যাখ্যান করছি

নরসিংদীতে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপে গোলাগুলি, নিহত ২

সাধারণ শিক্ষার্থীরা বিজয় এনে দিয়েছে

আত্মবিশ্বাসী শতাব্দী রায়, আরো বড় ব্যবধানে জিততে চান

সরকারি হাইস্কুলে তিন বিষয়ে ১৫০৬টি পদ সৃষ্টি হচ্ছে