সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানোর তৎপরতা নেই

শেষের পাতা

বিশেষ প্রতিনিধি | ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৫৩
সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানো নিয়ে সরকারের কোনো তৎপরতা নেই। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় এনিয়ে কোনো ধরনের কাজও করছে না। তাই মন্ত্রিসভা বৈঠকে প্রস্তাবটি উঠানোর বিষয়টি গুজব ছাড়া কিছুই নয়। যদিও চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানোর বিষয়ে ইতিবাচক জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিসহ সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগ। বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চাইলে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন মানবজমিনকে বলেন, সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা নিয়ে আমরা কোনো কাজ করছি না। আগামীতে কোনো কাজ করলে প্রথমে গণমাধ্যমকেই জানাবো। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদের শেষদিকে শিক্ষার্থী ও চাকরিপ্রার্থীদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে চাকরিতে প্রবেশের সময়সীমা বাড়ানোর উদ্যোগ নেয়া হয়।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির ২৯তম সভায় চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ বছর করার সুপারিশ করে। এরপর ওই প্রস্তাবনার খসড়াটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে যায়। তবে ওই প্রস্তাবটি আলোর মুখ দেখেনি। বর্তমানে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের সাধারণ বয়স ৩০ বছর। মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩২ বছর। আর অবসরের বয়স ৫৯ বছর। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সূত্রে জানা গেছে, ১৯৯১ সালের আগে দেশে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়স ছিল ২৭ বছর। ১৯৯১ সালের জুলাই মাসে সেটা বাড়িয়ে করা হয় ৩০ বছর। এরপর ২০১১ সালের ডিসেম্বরে সরকারি চাকরিতে সাধারণ কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অবসরের বয়স দুই বছর বাড়িয়ে ৫৯ বছর করা হয়। এরপর মুক্তিযোদ্ধা কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অবসরের বয়স এক বছর বাড়িয়ে ৬০ বছর করা হয়। অবসরের বয়স বাড়ানোর কারণে সরকারি চাকরিতে শূন্য পদের সংখ্যা কমে যায়। ফলে চাকরিপ্রার্থীদের চাকরি পাওয়ার পথ সংকুচিত হয়। পাশাপাশি একদিকে চাকরিতে তীব্র প্রতিযোগিতা, আরেক দিকে শিক্ষাজীবন শেষ করে চাকরি পেতেও অনেকের দীর্ঘ সময় লেগে যায়। এ জন্য অবসরের বয়স বাড়ানোর পর থেকেই চাকরিতে প্রবেশের বয়স বাড়ানোর দাবিতে আন্দোলনে নামেন একদল শিক্ষার্থী।

তারা মানববন্ধন, অনশনসহ বিভিন্ন ধরনের কর্মসূচি পালন করে আসছেন। দেশে শিক্ষিত  বেকারের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় এই দাবি আরো জোরালো হয়। জাতীয় সংসদেও বিষয়টি আলোচনা হয়। কিন্তু সরকার তাতে সাড়া দিচ্ছিল না। এর মধ্যে গত জুনে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির ২৯তম সভায় সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ বছর করার সুপারিশ করা হয়। এর আগে কমিটির ২১তম সভায় ৩২ বছর করার সুপারিশ করা হয়েছিল। এসব সুপারিশ বাড়ানোর বিষয়ে আপাতত কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলছেন, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে কোনো নির্দেশনা পেলে এ সংক্রান্ত প্রস্তাবটি মন্ত্রিসভায় উঠানো হবে। আপাতত বিষয়টি ফাইল ওয়ার্কে সীমাবদ্ধ আছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

MD. NAZMUL ISLAM

২০১৯-০২-২১ ১৩:২৫:৩৮

সরকার তরুনদের সাথে তামাশা করছে। সরকারের কথার সাথে কাজের মিল নাই। নির্বাচনের আগে ভোট পাবার আশায় বলেছিল বয়স বাড়াবে কিন্তু এখন সরকারের সেই স্বার্থ নেই তাই তৎপরতাও নেই। সরকার তরুন বেকারদের জন্য কোন কাজই করছে না। চাকুরির প্রবেশের বয়স বাড়ালে সরকারের কোনো ক্ষতি নেই তাহলে সরকার কেন এই বিষয়টা এখন পর্যন্ত কাজ করছে না????

জুয়েল

২০১৯-০২-২০ ০৮:২৩:২০

রক্ত দিয়ে হলেও তা আদায় করে নিতে হবে

Atiqur Rahman Khan

২০১৯-০২-২০ ১৪:১৬:৪৫

সরকার একদিন সতিই বয়স সীমা বাড়িয়ে ৩৫ বছর করবে । কিন্তু সেদিন অনেক দেরি হয়ে যাবে । আজকের আন্দোলনকারীদের বয়সও সেদিন ৩৫ পেরিয়ে যাবে । সরকারকে সেদিন গুনতে হবে নতুন মাশুল ।

আপনার মতামত দিন

৩৬ লক্ষ টাকার অগ্রিম চেক লিখিয়ে নিলেন গৌরনদী উপজেলা ভাইসচেয়ারম্যান

জরিপকে আমল না-দিয়ে জোটে নজর বিরোধীদের

ভারতে শেয়ার বাজারে রেকর্ড উলম্ফন

পূর্ণ শক্তি নিয়ে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত আমরা: সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী

দুর্নীতির কারণেই ধানের দাম পাচ্ছেন না কৃষক

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর ভেন্টিলেটর দিয়ে ফেলে দিলো পুলিশ সদস্য

চট্টগ্রাম চেম্বারের ভাইস প্রেসিডেন্ট হলেন তরফদার মো.রুহুল আমিন

জাবির শৃঙ্খলা অধ্যাদেশে বিতর্কিত ধারা, নিন্দার ঝড়

ফুলবাড়ীতে ভিজিডি’র সঞ্চয়ের দেড় কোটি টাকা গায়েব, কর্মকর্তা উধাও

মাদারীপুরে ট্রাকের ধাক্কায় শিশু নিহত, মহাসড়ক অবরোধ!

রূপপুরে বালিশসহ আসবাব কেনার তদন্ত প্রতিবেদন চেয়েছেন হাইকোর্ট

কৌশল নির্ধারণে কলকাতায় আসছেন চন্দ্রবাবু, বৈঠক করবেন মমতার সঙ্গে

মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন রুমিন ফারহানা

মির্জা ফখরুলের সংসদে যোগদান আবশ্যক ছিল: কাদের

মুসলিমদের ওপর সহিংসতা, স্থগিত শ্রীলংকা-পাকিস্তান বাণিজ্য

গ্লোবাল মিডিয়া এওয়ার্ড জিতলেন হেলসিঙ্গিন সানোমা