রূপগঞ্জে জমে উঠেছে উপজেলা নির্বাচন

বাংলারজমিন

জয়নাল আবেদীন জয়, রূপগঞ্জ থেকে | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, শনিবার
রূপগঞ্জে জমে উঠেছে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। গত ৩রা  ফেব্রুয়ারি উপজেলা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পরপর প্রার্থীরা দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন। ইতিমধ্যে চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন পেতে নবীন-প্রবীণের যুদ্ধ শুরু হয়েছে। ভাইস চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রার্থী না থাকায় সেখানে লড়াইয়ের তীব্র ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। তবে নবীনরা আলোচনায় থাকলেও মূলত পুরনোরাই নতুন করে পদের বিপরীতে হেভিওয়েট প্রার্থী হিসেবে বিবেচ্য হচ্ছেন।
জানা গেছে, আগামী ৩১শে মার্চ ৪র্থ দফায় আয়োজিত রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী ৫/৬ জন থাকলেও বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান ভূঁইয়া, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আলহাজ তাবিবুল কাদির তমাল ও মুড়াপাড়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্র সংসদের ভিপি শাহরিয়ার পান্না সোহেলের নাম আলোচিত হচ্ছে।
এরা সকলেই আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। তবে শেষ পর্যন্ত বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান শাহজাহান ভূঁইয়াকে চূড়ান্তভাবে দলের প্রার্থী করা হবে বলে শোনা যাচ্ছে। তিনি দুঃসময়ে আওয়ামী লীগকে আগলে  রেখেছেন।
শাহজাহান ভূঁইয়া দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত হলে বিকল্প প্রার্থী হিসেবে আলহাজ তাবিবুল কাদির তমালের মনোনয়ন পাবার সম্ভাবনা রয়েছে। স্বচ্ছ ও পরিচ্ছন্ন নেতা হিসেবে তার ব্যাপক পরিচিতি আছে। অন্যদিকে উপজেলা ছাত্রলীগের অন্যতম পৃষ্ঠপোষক ভিপি সোহেলের পক্ষে ছাত্রলীগের বড় একটি অংশ কাজ করছেন।
উন্মুক্ত পদ্ধতিতে নির্বাচন হওয়ায় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী রয়েছেন অন্তত ৯ জন। তারমধ্যে রূপগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শিক্ষানুরাগী ও বর্তমান উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ হাবিবুর রহমান হারেজ, রূপগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ মোতাহার হোসেন ভূঁইয়া নাদিম, রূপগঞ্জ উপজেলা বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের সভাপতি এড. সাইফুর রহমান স্বপন, নারায়ণগঞ্জ জেলা দলিল লেখক সমিতির সহ-সম্পাদক আব্দুল আলিম সরকারের নাম অধিক আলোচিত হচ্ছে। টানা ২ বার ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্বে থাকা হাবিবুর রহমান হারেজ ফের স্বপদে বহাল থাকতে পারেন বলে আলোচনা হচ্ছে। তবে নবীন প্রার্থীদের মাঝে আলহাজ মোতাহার হোসেন ভূঁইয়া নাদিম জনপ্রিয় প্রার্থী হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। ছাত্র রাজনীতিতে দীর্ঘদিন সক্রিয় রাজনীতিতে যুক্ত থাকায় উপজেলা যুব সমাজের বৃহৎ একটি অংশ তার পক্ষে কাজ করছেন।
মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের অন্তত এক ডজন মনোনয়নপ্রত্যাশী রয়েছে। তারমধ্যে অন্যতম নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ও বর্তমান উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দা  ফেরদৌসী আলম নীলা। তিনি দায়িত্ব পালনকালে এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। এ ছাড়া অন্য প্রার্থীদের মধ্যে উপজেলা যুব মহিলা লীগ নেত্রী ও শিক্ষানবিশ আইনজীবী অ্যাড. শায়লা তাহসীন সিথী, রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী মহিলা লীগের সহ-সভাপতি নাসরিন আক্তার চম্পা, দাউদপুর ইউনিয়ন যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক ফেরদৌসী জান্নাত রুমা আলোচনায় রয়েছেন।
তবে বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান ফেরদৌসী আলম নীলার জয়ের ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। তাকেই তৃণমূল আওয়ামী লীগ সমর্থন দিতে পারে বলে শোনা যাচ্ছে। তবে নবীন প্রার্থী হিসেবে আলোচনায় রয়েছে অ্যাডভোকেট শায়লা তাহসীন সীথি এবং নাসরিন আক্তার চম্পা। এই তিন প্রার্থীর মাঝে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হতে পারে বলে ধারণা স্থানীয়দের।




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বিনম্র শ্রদ্ধায় বীর শহীদদের স্মরণ

বিপর্যয়ের মুখে তেরেসা মে

অনেক বাস হাওয়া, দুর্ভোগে রাজধানীবাসী

জাপায় কেন এই অস্থিরতা?

অনলাইনে ডলার বিক্রির নামে প্রতারণা

হঠাৎ বেড়েছে গুলির ঘটনা

ওবায়দুল কাদেরকে কেবিনে নেয়া হয়েছে

ডাক বিভাগের ‘নগদ’-এর কার্যক্রম উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

সিনেটরকে ডিম মারা প্রসঙ্গে যা বললেন ‘ডিম বালক’

মুক্তি কিসে স্বৈরশাসনে নাকি গণতন্ত্রের পুনঃউদ্ভাবনে?

বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশ বিশ্বদরবারে প্রতিষ্ঠিত হতো না

৪৮ বছর পরও আমরা এমনটি আশা করিনি

বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে আবেগাপ্লুত মাহবুব তালুকদার

বিএনপি নেতিবাচক রাজনীতি না করলে দেশের আরো উন্নতি হতো

খালেদা জিয়াকে মুক্ত করাই বিএনপির অঙ্গীকার

বিনম্র শ্রদ্ধায় সারা দেশে স্বাধীনতা দিবস পালিত