স্পেনের ইতিহাসে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য বিচার

রকমারি

অনলাইন ডেস্ক | ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, বৃহস্পতিবার
স্পেনে মঙ্গলবার কাতালুনিয়ার বিচ্ছিন্নতাকামীদের বিচার শুরু হয়েছে৷ একে দেশটির শতাব্দীর সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য বিচার বলে আখ্যায়িত করা হচ্ছে৷

কীসের বিচার?
 
২০১৭ সালে কাতালুনিয়ার রাজ্য সরকার রাজ্যের স্বাধীনতার লক্ষ্যে একটি গণভোট (ছবি) আয়োজন করেছিল। স্পেনের সাংবিধানিক আদালত অবশ্য সেই গণভোট আয়োজনকে অবৈধ বলে রায় দিয়েছিল৷ গণভোটের ২৬ দিন পর কাতালুনিয়ার স্বাধীনতা ঘোষণা করা হয়। এসব ঘটনায় স্পেনের তৎকালীন সরকার কাতালুনিয়ার সরকার ভেঙে রাজ্যের ক্ষমতা কেন্দ্রে নিয়ে যায়৷ এবং বিচ্ছিন্নতাকামীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে৷
 

কাদের বিচার?
মোট বার জনের বিরুদ্ধে বিচার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে৷ এর মধ্যে ১০ জন রাজনীতিবিদ, বাকি দুজন অ্যাক্টিভিস্ট৷ রাজনীতিবিদদের মধ্যে আছেন কাতালুনিয়ার সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট ওরিয়ল শোঙকেরাস, রাজ্য সরকারের সাবেক স্পিকার এবং মন্ত্রিসভার কয়েকজন সাবেক সদস্য৷

অভিযোগ
কাতালুনিয়ার সাবেক ভাইস-প্রেসিডেন্ট শোঙকেরাসের বিরুদ্ধে বিদ্রোহের অভিযোগ আনা হয়েছে৷ আর জনগণের টাকা খরচ করে গণভোট আয়োজন করায় মন্ত্রিসভার সদস্যদের বিরুদ্ধে অর্থ অপচয়ের অভিযোগ উঠেছে৷ এছাড়া রাষ্ট্রদোহিতা ও অবাধ্যতার অভিযোগ আনা হয়েছে৷

রায় কবে?
প্রায় ৫০০ জন প্রত্যক্ষদর্শীর বক্তব্য শোনা হবে৷ ফলে বিচার কার্য শেষ হতে অন্তত তিনমাস লাগবে৷ এরপর রায় হতে লাগবে আরো কয়েক মাস৷ বিচারকার্য টেলিভিশনে সরাসরি প্রচার করা হবে৷ ছবিতে স্পেনের সুপ্রিম কোর্ট দেখতে পাচ্ছেন যেখানে বিচার চলছে৷

সাজার মেয়াদ
বিদ্রোহের অভিযোগ প্রমাণিত হলে কাতালুনিয়ার সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট শোঙকেরাসের ২৫ বছর পর্যন্ত সাজা হতে পারে৷ এছাড়া স্পিকার ও দুই অ্যাক্টিভিস্টের ১৭ বছরের জেল হতে পারে৷  

আপিলের সুযোগ
রায় যা-ই হোক না কেন দুই পক্ষই আপিল করতে পারবে৷ এছাড়া অনুশোচনা প্রকাশ করে ক্ষমা চাইলে কেন্দ্রীয় সরকারের ক্ষমা করে দেয়ার সুযোগ থাকবে৷

পুজদেমন কোথায়?
গণভোট আয়োজনের সময় কাতালুনিয়ার প্রেসিডেন্ট ছিলেন কার্লেস পুজদেমন৷ গণভোটের পর তিনি পালিয়ে প্রথমে ব্রাসেলস চলে যান৷ এখন আছেন জার্মানিতে৷ স্পেন তাকে ফেরত পাঠানোর অনুরোধ জানিয়েছিল৷ কিন্তু জার্মানির এক আদালত বলেছে, বিদ্রোহের অভিযোগে বিচার জন্য পুজদেমনকে স্পেনে পাঠানো যাবে না৷ ফলে তিনি এখনো জার্মানিতেই আছেন৷

সংঘাতের শুরু
২০১৭ সালের গণভোট আয়োজনের প্রেক্ষাপট জানতে ২০১০ সালে ফিরে যেতে হবে৷ সেই সময় কাতালুনিয়ার আঞ্চলিক চার্টার বা সনদে কাতালুনিয়াকে নেশন হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছিল৷ কিন্তু স্পেনের সাংবিধানিক আদালত সেটি ফেলে দেন৷ ঐ ঘটনার পর কাতালুনিয়ায় বিচ্ছিন্নতাবাদী আন্দোলন গতি পায়৷



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘ঢাকায় ছিনতাইকারী নেই, সকলকে ধরে জেলে পাঠানো হয়েছে’

এফআর টাওয়ারে আগুন: নির্মাণে ত্রুটি, দায়ী ৬৭ জন

নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় ইন্দোনেশিয়ায় নিহত ৬

বালিশ কাণ্ডে নির্বাহী প্রকৌশলী প্রত্যাহার

ম্যাচমেকার শারদ পাওয়ার

ভারতে স্টোর রুমে ২৪ ঘন্টার নজরদারি

১০০ দিনের এজেন্ডা প্রস্তুতের নির্দেশ

খালেদা জিয়াসহ ৫ জনকে প্রাথমিক মনোনয়ন বিএনপির

আজও ক্ষতিপূরণ দেয়নি গ্রিনলাইন, তীব্র ক্ষোভ হাইকোর্টের

শ্রীলঙ্কায় বৌদ্ধ-মুসলিম রক্তাক্ত পরিণতির আশঙ্কা ভারতের

ভারতে শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থা, কে বসবেন দিল্লির মসনদে?

যৌনতা কমছে দেশে দেশে

ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু, উপচেপড়া ভিড় কমলাপুরে

বাংলাদেশে আইএসের নেটওয়ার্কে ঘনিষ্ঠভাবে নজরদারি করছে ভারত

হুয়াওয়ে সংকটের আদ্যোপান্ত

‘চলচ্চিত্রের সময়টা এখন মোটেও ভালো যাচ্ছে না’