প্রথম ওয়ানডে শুরু কাল সকাল ৭টায়

নিউজিল্যান্ডেই শুরু হচ্ছে বিশ্বকাপ পরীক্ষা

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:২২
নিউজিল্যান্ডে সাবেক ক্রিকেটার আল শাহরিয়ার রোকনের সঙ্গে মাশরাফি, তামিম, মাহমুদুল্লাহ ও ম্যানেজার পাইলট
কাল ভোর ৭টায় ব্ল্যাক ক্যাপসদের বিপক্ষে নেপিয়ারে মাঠে নামবে বাংলাদেশ দল। ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ দিয়েই শুরু হচ্ছে টাইগারদের নিউজিল্যান্ড মিশন। তবে এই লড়াইয়ে শুরুর আড়ালে লুকিয়ে আছে মাশরাফি বিন মুর্তজার দলের বিশ্বকাপ পরীক্ষাও। আর তিন মাস পরেই ইংল্যান্ডে বসবে বিশ্বকাপের আসর।  সেখানে কেমন হবে বাংলাদেশ দল! কারা শেষ পর্যন্ত জায়গা করে নিবে বিশ্বমঞ্চে লড়াইয়ে? বলার অপেক্ষা রাখেনা এই সফরেই ওয়ানডে দলে সুযোগ পাওয়া প্রতিটি সদস্যের জন্যই অপেক্ষা করছে কঠিন পরীক্ষা। এখানে টিকে গেলেই অনেকটাই নিশ্চিত হবে বিশ্বকাপে খেলার আশা। যদিও এই সফরের পর আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজও আছে। তবে তার আগে ফর্মের বাইরে থাকাদের জন্য সুযোগ নিউজিল্যান্ডেই নিজেদের যোগ্যতার ফের প্রমাণ দেয়ার। প্রধান কোচ স্টিভ রোডসও দেশ ছাড়ার আগে বলে গেছেন কিউইদের বিপক্ষেই পরিমাপ করা যাবে যে বাংলাদেশ কতটা প্রস্তুত।
এরই মধ্যে নেপিয়ারে পৌঁছেছে মাশরাফির দল। আজ প্রস্তুতি নিবে আসল লড়াইয়ে নামার। অবশ্য এখানে কঠিন কন্ডিশনে কতটা চ্যালেঞ্জ তা দলের সকলেরই জানা। এর আগে তিনটি দ্বি-পাক্ষিক সিরিজের একটিও জয়ের রেকর্ড নেই টাইগারদের। সব শেষ মাশরাফির দল ২০১৭/২০১৭ তে  হোয়াইটওয়াশ হয়ে ফিরেছে। যদিও দুটি ম্যাচে কঠিন লড়াইয়ে জয়ের সামনে থেকে ফিরেছে। এবার তাই হবে জয়ের আত্মবিশ্বাস।
বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল) ফাইনাল শেষ হয়েছে ৮ই ফেব্রুয়ারি। নিউজিল্যান্ড সফরের জন্য ঘোষিত দলের সব ক্রিকেটারই ভীষণ ব্যস্ত ছিলেন ঘরোয়া ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় টি-টোয়েন্টি আসর নিয়ে। তাই গ্রুপ পর্ব শেষ হতেই ওয়ানডে দলে থাকা ৮ জন ক্রিকেটারকে নিয়ে প্রধান কোচ ও নয়া ম্যানেজার খালেদ মাসুদ পাইলট পাড়ি জমান নিউজিল্যান্ডে। এরপর আরো চার ক্রিকেটার যোগ দেন। এবং ফাইনাল শেষ হতেই অধিনায়ক মাশরাফি আরো তিন ক্রিকেটারকে নিয়ে গতকালই পৌঁছেন নেপিয়ারে। তবে ইনজুরির কারণে যেতে পারেননি তাসকিন আহমেদ ও সাকিব আল হাসান। তাসকিনের বদলি হিসেবে শফিউল ইমলাম অবশ্য দলের সঙ্গে আছেন। তবে সাকিব ছিটকে পড়েছেন ওয়ানডে দল থেকে। বিশ্বসেরা অল রাউন্ডার ও দলের সেরা ক্রিকেটারকে ছাড়া মিশন কঠিন হবে বলেই জানিয়েছে অধিনায়ক মাশরাফি। একই কথা জানালেন নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমনও। তিনি বলেন, ‘একে তো নিউজিল্যান্ড সফর আমাদের জন্য সব সময় কঠিন থাকে। তার ওপর দলের সেরা একজন সাকিব নেই। সবারই জানা তার মতো অলরাউন্ডার না থাকা মানে দলে দু’জন ক্রিকেটারের অভাব। এই অভাব পূরণ করা সম্ভব নয়। তবে আমরা আগেও সাকিবকে পাইনি অনেক সফরে। তাকে ছাড়া আশা করি কঠিন হলেও আমাদের দল লড়াই করতে সক্ষম।’
আজ নেপিয়ারের ম্যাকলিন পার্কে সাকিব ছাড়া কেমন হবে বাংলাদেশ একাদশ? নিউজিল্যান্ডের পেস বান্ধব কন্ডিশনে অবশ্য পেসাররাই প্রধান্য পাবে তা বলার অপেক্ষা রাখেনা। অধিনায়ক মাশরাফি নিজেই পেস আক্রমণের নেতৃত্ব দিবে সামনে থেকে। এরপর দেশের সেরা তরুণ পেসার মোস্তাফিজুর রহমান সঙ্গে রুবেল হোসেন তো থাকবেনই। চতুর্থ পেসার হিসেবে দলে দেখা যেতে পারে সাইফ উদ্দিনকে। এই চার পেসারের দলে স্পিনার হিসেবে কে জায়গা করে নেবেন? এই দৌড়ে এগিয়ে থাকবেন অবশ্য আরেক অফস্পিন অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজ। কারণ ব্যাটসম্যান তো থাকতেই হবে। ওপেনিংয়ে তামিম ইকবালের সঙ্গী হবে অবশ্য লিটন দাস। এরপর মুশফিকুর রহীম, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ও সাব্বির রহমানের খেলা অনেকটাই নিশ্চিত। তবে প্রস্তুতি ম্যাচে সাব্বির, মাহমুদুল্লাহ ও মুশফিকুর রহীম রান পেয়েছেন। কিন্তু সৌম্য ব্যর্থতার গণ্ডি থেকে বের হতে পারেননি। তাই মূল ম্যাচে সৌম্যের না থাকার সম্ভাবনাই বেশি। সেখানে একাদশে দেখা যেতে পারে মোহাম্মদ মিঠুনকে। আর বেশি চমক দেখাতে চাইলে খেলানো হতে পারে তরুণ অফস্পিনার নাঈম হাসানকেও।
নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তাদের মাটিতে বাংলাদেশ দল এখন পর্যন্ত কোনো ওয়ানডে ম্যাচেই জিততে পারেনি। এখনকার বৈরী কন্ডিশন আর তীব্র বাতাসও বড় প্রতিপক্ষ টাইগারদের জন্য। এখন দেখার বিষয় সব প্রতিকূলতা দূরে সরিয়ে এই সিরিজে মাশরাফির দল জয়ের দেখা পায় কিনা!   



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন