দোহারে বালু উত্তোলন চলছেই

বাংলারজমিন

দোহার (ঢাকা) প্রতিনিধি | ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:০৮
দোহার উপজেলার লটাখোলায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছেন প্রভাবশালীরা। গত ৫ই ফেব্রুয়ারি সেখানে অভিযান চালিয়ে বালু কাটার কাজে ব্যবহৃত চারটি শ্যালো মেশিন আগুনে পুড়িয়ে দিয়েছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সালমা খাতুন। তবে পরদিন থেকেই প্রশাসনকে তোয়াক্কা না করেই আবারো সেখানে বালু কাটছেন আকতার নামে এক প্রভাবশালী। গতকাল বিকাল ৪টায় ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, তিনটি শ্যালো মেশিন বসিয়ে খালের পাড় থেকে বালু কাটছে ৫/৬ জন শ্রমিক। সবাই ব্যস্ত কাজ নিয়ে। এসময় সংবাদকর্মীদের দেখতে পেরে দৌড়ে পালিয়ে যায় শ্রমিকরা। কিছুক্ষণ পরে ঘটনাস্থলে আসেন আকতার নামে একজন। তার নেতৃত্বে বালু কাটা হচ্ছে বলে স্বীকারও করেন তিনি।
একই সময় দম্ভোক্তির সঙ্গে বলেন, আমার জমিতে আমি মাটি কাটছি, আপনাদের সমস্যা কি? একটু পরেই আবার বলেন, জমিটা আমার না, আমি মাটি কিনছি, প্রতি বছরই কিনি। আবার মাটিও কাটি। তিনি আরো বলেন, প্রশাসনের সঙ্গে কথা চলছে, সব ঠিক হয়ে যাবে। বালু কাটার শ্রমিকরা জানান, আকতার ভাইয়ের মেশিনে আমরা মাসে ১০ হাজার টাকা বেতনে ৬ জন কাজ করি। ওনি কাটতে বলছেন তাই বালু কাটি। দৌড় দিলেন কেন- এমন প্রশ্নের জবাবে শ্রমিকরা জানান, মনে করেছিলাম পুলিশ আইছে- তাই দৌড় দিছি। সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত বালু উত্তোলন করা হয় বলে জানান শ্রমিকরা। এ সময় স্থানীয়রা ক্ষোভ প্রকাশ করলেও তার সামনে কিছু বলতে সাহস পাননি। তবে আকতার চলে গেলে কয়েকজন নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, এভাবে খাল থেকে বালু উত্তোলন করার ফলে আশেপাশের বাড়িঘরের ক্ষতি হচ্ছে। কিন্তু কেউ প্রতিবাদ করতে সাহস পাচ্ছে না।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন