বরগুনায় অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে বাসায় ডেকে ধর্ষণ

অনলাইন

বরগুনা প্রতিনিধি | ২০ জানুয়ারি ২০১৯, রোববার, ৬:৫৫
অভিযুক্ত সাইফুল
বরগুনায় অষ্টম শ্রেণির এক মাদরাসা শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় আ'লীগ নেতার ছেলের বিরুদ্ধে। আজ দুপুর ১টার দিকে বরগুনা সদর উপজেলার কেওড়াবুনিয়া এলাকায় সাহেবের হাওলা রাফেজিয়া দাখিল মাদরাসার সন্নিকটে মাদরাসা শিক্ষক শিক্ষার্থীকে গাইড দেয়ার কথা বলে তার বাসায় ডেকে নিয়ে এ ঘটনা ঘটে। পরে ধর্ষিত ওই শিক্ষার্থীকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় অভিযুক্তের নাম মো. সাইফুল ইসলাম। সে বরগুনা সদর উপজেলার ফুলঝুড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাহেবের হাওলা রাফেজিয়া দাখিল মাদরাসার সহকারি শিক্ষক মো. ইব্রাহিম মাওলানার ছেলে। অভিযুক্ত সাইফুল ইসলামও একই মাদরাসার শরীরচর্চা শিক্ষক হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

নির্যাতিত ওই শিক্ষার্থীকে উদ্ধারকারী সমাজকর্মী মো. আরিফুর রহমান মারুফ মৃধা বলেন, দুপুরে গাইড দেয়ার কথা বলে এই শিক্ষার্থীকে মাদরাসায় ডেকে নেয় লম্পট সাইফুল। মাদরাসার খুব কাছেই ধর্ষক সাইফুলদের বাড়ি। সাইফুলের ডাকে এই শিক্ষার্থী মাদরাসায় গেলে সাইফুল তাকে তাদের ঘরের দোতলায় নিয়ে পাশবিক নির্যাতন করে।
সাইফুলের পাশবিক নির্যাতনে ওই শিক্ষার্থী গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ঘরে রেখেই পালিয়ে যায় সাইফুল। পরে স্থানীয়দের কাছে এ ঘটনার খবর শিক্ষার্থীর বাবা জানতে পেরে তাকে ফোনের মাধ্যমে জানায়।
পরে তিনি ওই বাড়িতে গিয়ে কিশোরীকে উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এদিকে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে গিয়ে জানা যায়, পাশবিক নির্যাতনের ফলে কিশোরীটির অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হচ্ছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তার চিকিৎসা চলছে বরগুনা জেনারেল হাসপাতলে।

এ বিষয়ে বরগুনা সদর থানার ওসি মো. আবির হোসেন মাহমুদ বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কিশোরীর খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে। অভিযুক্ত সাইফুলকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে বলেও জানান তিনি।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোঃ শরীফুজ্জামান

২০১৯-০১-২২ ১৭:০৮:২৪

এই সব লেবাসধারী ভন্ডদের উপযুক্ত শাস্তির প্রয়োজন। প্রধান মন্ত্রী নিজেও এইসব আওয়ামী লীগ পরিচয় কারী কুলাঙ্গারদের বরদাস্ত করেন না।

কাবির

২০১৯-০১-২০ ২০:২২:২৫

যারা রাজনিতি করে তাদের এটা অধিকার, আর যদি হয় সরকারদলীয় তাহিলে তো হালাল।

Mustafizur Rahman

২০১৯-০১-২০ ০৮:১৪:২৭

Cross Fire

HUMAYUN KHAN

২০১৯-০১-২০ ২০:২৪:৪৫

শিশুর / নারী ধর্ষণ ও হত্যাকারীদের নিয়ে অস্ত্র উদ্ধারে যাওয়ার জন্য র‍্যাবের প্রতি অনুরোধ রইল

আপনার মতামত দিন

রক্তাক্ত লঙ্কা পেছনে কারা?

দেশে সন্ত্রাসী হামলার ঝুঁকি নেই

পাসপোর্ট বইয়ের সংকটে দুর্ভোগ চরমে

দগ্ধ তরুণীকে বাঁচানো গেল না

শেয়ারবাজারে উত্থান পতনের পেছনে কেউ জড়িত

ব্রুনাইয়ের সঙ্গে ৬ সমঝোতা সই

রাজধানীতে নিরাপত্তা জোরদার

ঘুমের ইনজেকশন দিয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, চিকিৎসক আটক

ব্যারিস্টার আমিনুল হকের দাফন আজ

কালা মিয়ার কাটা পা এখনো উদ্ধার হয়নি

সঞ্চয়পত্রে ঝোঁক সবার নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা সরকারের

শবেবরাত পালিত

অমিত শাহ বললেন বাংলাদেশি হলেই নাগরিকত্ব!

পশ্চিমবঙ্গে ৯২ শতাংশ বুথে আধা সামরিক বাহিনী

গণআন্দোলনের প্রস্তুতি নিন: মোশাররফ

ঋণখেলাপিদের আরো বড় ছাড় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের