উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

বাংলারজমিন

| ২০ জানুয়ারি ২০১৯, রোববার
ভূঞাপুরে প্রার্থিতা ঘোষণা
ভূঞাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি: আসন্ন ভূঞাপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থিতা ঘোষণা করেছেন জাতীয় শ্রমিক লীগ টাঙ্গাইল জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও জাতীয় বিদ্যুৎ শ্রমিক লীগ টাঙ্গাইল জেলা শাখার সভাপতি আব্দুল লতিফ। শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় ভূঞাপুর প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে তার প্রার্থিতার ঘোষণা দেন। আব্দুল লতিফ তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, সারা জীবন দলের হয়ে কাজ করেছি। কখনো দলের কাছে কিছু চাইনি। জীবনের শেষ বেলায় এসে ভূঞাপুরের মানুষের প্রতি অগাধ শ্রদ্ধাবোধ ও সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে জনপ্রতিনিধি হিসেবে তাদের সেবা করতে চাই। ভূঞাপুরকে মাদক, সন্ত্রাস ও দুর্নীতি মুক্ত এবং স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে চাই। আর এ লক্ষ্যে দলের কাছে উপজেলা চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন চাইবো। আশা করি দল আমাকে নিরাশ করবে না।
ভূঞাপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি আসাদুল ইসলাম বাবুলের সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন টাঙ্গাইল জেলা শ্রমিক ফেডারেশনের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল দর্পন, জাতীয় শ্রমিক লীগ জেলা শাখার সহ-সভাপতি আজহারুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন সোহাগ, মহিলা সম্পাদিকা রহিমা আক্তার, জেলা শ্রমিক ফেডারেশনের প্রচার সম্পাদক হারুন অর রশিদ হারুন ও বিভিন্ন জাতীয় পত্রিকার সাংবাদিক বৃন্দ।

লালমোহনে আলোচনায় যিনি
লালমোহন (ভোলা) প্রতিনিধি: লালমোহনে আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আলোচনায় উপজেলা বিআরডিবির সাবেক চেয়ারম্যান, এনজিও দ্বীপ উন্নয়ন সোসাইটির নির্বাহী পরিচালক মো. ইউনূছ মিয়াকে। তিনি ইতিমধ্যে সমাজ সেবায় বিশেষ অবদান রাখার কারণে পেয়েছেন নেলসন ম্যান্ডেলা স্বর্ণ পদক ও মাদার তেরসা গোল্ড মেডেল।
ইউনূছ মিয়া দীর্ঘ বিগত ১৫ বছর ধরে লালমোহনের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের জন্য কাজ করছেন। উপজেলার কয়েক শত প্রতিবন্ধীর আর্থিক সহযোগিতাসহ তাদের মাঝে বিভিন্ন উপকরণ বিতরণ করেছেন। এ ছাড়াও তিনি তার এনজিওর মাধ্যমে প্রায় এক হাজার যুবক-যুবতীকে বেকারত্ব থেকে মুক্ত করেছেন। উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় নিরাপদ পানির জন্য টিউবওয়েলের ব্যবস্থা করেছেন। অন্যদিকে তিনি উপজেলা আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক এবং উপজেলা মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি হিসেবে সফলতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন। ইউনূছ মিয়া বলেন, আমি প্রায় দেড় যুগ ধরে সাধারণ মানুষের সেবা করছি। যদি আগামী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দল থেকে আমাকে মনোনয়ন দেয়া হয়, তাহলে দায়িত্বে থেকে সাধারণ মানুষের জন্য আরো কাজ করবো। একই সঙ্গে সাধারণ মানুষের ন্যায্য অধিকার প্রদান করে দল ও ভোলা-৩ আসনের সংসদ সদস্য দ্বীপবন্ধু আলহাজ নূরুন্নবী চৌধুরী শাওনের সুনাম আরো বৃদ্ধি করবো।

তজুমদ্দিনে মতবিনিময়
তজুমদ্দিন (ভোলা) প্রতিনিধি: আগামী উপজেলা নির্বাচনে ভোলার তজুমদ্দিনে উপজেলা পরিষদে সম্ভাব্য মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী কোহিনূর বেগম শিলা তজুমদ্দিনে কর্মরত সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেছেন। শুক্রবার সন্ধ্যায় তজুমদ্দিন প্রেস ক্লাবের হলরুমে এ মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয়। তিনি তজুমদ্দিন উপজেলা আওয়ামী লীগ সদস্য ও বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগ ঢাকা মহানগর উত্তরের সদস্য। কোহিনূর বেগম শিলা জানান, নারী নেতৃত্বকে আরো গতিশীল করতেই আমার রাজনীতিতে আসা। নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় ও সমাজ সেবায় নূরুন্নবী চৌধুরী শাওনের হাতকে শক্তিশালী করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মাধ্যমে তজুমদ্দিনের উন্নয়নে অবদান রাখবো। তিনি জানান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আমি দলের সমর্থন চাইবো, শেষ পর্যন্ত আমার চেষ্টা চালিয়ে যাব। সাংবাদিকদের মাধ্যমে সবার সহযোগিতা কামনা করেন এই সম্ভাব্য প্রার্থী। কোহিনূর বেগম শিলা উত্তরা ইউনিভার্সিটি থেকে এমএ পাস করেন। তিনি ছাত্রী জীবন থেকে আওয়ামী রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত রয়েছেন। মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন, অ্যাডভোকেট শাহাবুদ্দিন গাজী ও উপজেলা মহিলা লীগের নেতৃবৃন্দ।

মহেশপুরে সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ
মহেশপুর (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি: মহেশপুরে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদের মনোনয়ন নিয়ে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন সরকারদলীয় নেতারা। আগামী মার্চ মাসে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন হলে হাতে আর বেশি সময় নেই। তাই সম্ভাব্য প্রার্থীরা চায়ের আসরে নিজেদেরকে মনোনয়নপ্রত্যাশী বলে ভোটারদের কাছে দোয়া নেয়ার সঙ্গে ভোট চাওয়া শুরু করে দিয়েছেন। যদিও এখনো নির্বাচন কমিশন উপজেলা পরিষদের নির্বাচনের তফসিল বা দিন-তারিখ কোনোটাই ঘোষণা করেন নি। কিন্তু মহেশপুরের সম্ভাব্য উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থীরা আগে ভাগেই চায়ের দোকান থেকে শুরু করে উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে গ্রামে দলীয় নেতাকর্মীদের কাছে দোয়া ও সমর্থন  চেয়ে আসছেন। এখন পর্যন্ত মহেশপুর উপজেলায় আওয়ামী লীগের ৮ জন নেতা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদের মনোনয়নপ্রত্যাশী বলে জানা গেছে। মনোনয়নপ্রত্যাশীদের মধ্যে রয়েছেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধাদের গর্ব ড. আবদুল মালেক গাজী, জেলা পরিষদ সদস্য ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এমএ আসাদ, সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ময়জুদ্দীন হামিদ, জেলা কৃষক লীগের সহ-সভাপতি সাজ্জাদুল ইসলাম সাজ্জাদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক প্রচার সম্পাদক মুক্তার হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও সাবেক ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মীর সুলতানুজ্জামান লিটন, মান্দারবাড়ীয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হারুনুর রশীদ হারুন ও পান্তাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা ইসমাইল হোসেন। মনোনয়নপ্রত্যাশীরা তাদের স্বপক্ষে সমর্থন পাওয়ার জন্য দলের নেতাকর্মীদের চায়ের দোকানে ডেকে নিয়ে আলাপ- আলোচনা শুরু করেছেন। ফেসবুক পাতায় প্রার্থী ও তার সমর্থকরা দলের নেতাকর্মীদের সমর্থন আদায়ের জন্য ব্যাপক প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। দলের মনোনয়ন পাওয়ার  ব্যাপারে সবাই আশাবাদী। তবে বিএনপি,জামায়াত, জাতীয় পার্টি বা অন্য কোনো দলের প্রার্থীর নাম এখনো পর্যন্ত চায়ের দোকানে বা গ্রাম অঞ্চলে শোনা যায়নি।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রক্তাক্ত লঙ্কা পেছনে কারা?

দেশে সন্ত্রাসী হামলার ঝুঁকি নেই

পাসপোর্ট বইয়ের সংকটে দুর্ভোগ চরমে

দগ্ধ তরুণীকে বাঁচানো গেল না

শেয়ারবাজারে উত্থান পতনের পেছনে কেউ জড়িত

ব্রুনাইয়ের সঙ্গে ৬ সমঝোতা সই

রাজধানীতে নিরাপত্তা জোরদার

ঘুমের ইনজেকশন দিয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, চিকিৎসক আটক

ব্যারিস্টার আমিনুল হকের দাফন আজ

কালা মিয়ার কাটা পা এখনো উদ্ধার হয়নি

সঞ্চয়পত্রে ঝোঁক সবার নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা সরকারের

শবেবরাত পালিত

অমিত শাহ বললেন বাংলাদেশি হলেই নাগরিকত্ব!

পশ্চিমবঙ্গে ৯২ শতাংশ বুথে আধা সামরিক বাহিনী

গণআন্দোলনের প্রস্তুতি নিন: মোশাররফ

ঋণখেলাপিদের আরো বড় ছাড় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের