ফখরুলের পদত্যাগ করা উচিত বলে মনে করেন কাদের

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক | ১৬ জানুয়ারি ২০১৯, বুধবার, ৩:১৯ | সর্বশেষ আপডেট: ৩:১৯
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলের পদত্যাগ করা উচিত বলে মনে করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, আন্দোলন ও নির্বাচনে ব্যর্থতার দায়ে, লজ্জা থাকলে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলের পদত্যাগ করা উচিত। আজ বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দক্ষিণ যুবলীগ আয়োজিত বর্ধিত সভায় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

নির্বাচনে কারচুপির কারণে ওবায়দুল কাদেরকে জাতির সামনে ক্ষমা চাইতে হবে- বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামের এ বক্তব্যের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, মির্জা ফখরুল বেপরোয়া গাড়িচালক। কখন যে একসিডেন্ট করে তাই সকলকে সতর্ক থাকতে হবে। যে মহাসচিব ১০ বছরে ১০ মিনিটও আন্দোলন করতে পারেননি। নির্বাচনে ১০টিও আসন পাননি। এমন ব্যর্থতায় লজ্জা থাকলে তার (ফখরুল) পদত্যাগ করা উচিত।

তিনি বলেন, এ অভূতপূর্ব বিজয় যারা প্রত্যাখ্যান করছেন জাতির কাছে তাদের ক্ষমা চাওয়া উচিত। নির্বাচন স্বচ্ছ ও সুন্দর হয়েছে।
নির্বাচনের দিন বিএনপি-ঐক্যফ্রন্টের  কোনো এজেন্ট কি নির্বাচনের স্বচ্ছতা নিয়ে প্রতিবাদ করেছেন?

টিআইবির নির্বাচনের স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন তুললে আওয়ামী লীগের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সাংগঠনিক এ নেতা বলেন, নির্বাচনের দিন টিআইবির কোনো এজেন্ট কি নির্বাচনে স্বচ্ছতা নিয়ে কথা বলেছে? নির্বাচন নিয়ে এতদিন পর কেনো অলীক, অবিশ্বাস রূপকথার গল্প সাজাচ্ছেন আমরা জানি। এর জবাব দেশের জনগণই দেবে।

এর আগে রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংরক্ষিত নারী আসনের জন্য দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রির কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে ওবায়দুল কাদের বলেন, সংরক্ষিত নারী আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেয়ার ক্ষেত্রে ত্যাগী ও রাজপথে সক্রিয়দের অগ্রাধিকার দেয়া হবে। রাজপথের আন্দোলন-সংগ্রামে যারা অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছেন, ত্যাগ স্বীকার করেছেন মনোনয়নে তারা অগ্রাধিকার পাবেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

শওকত

২০১৯-০১-১৬ ২২:০৩:০২

মন্ত্রীর কথা ১০০% সঠিক। বিএনপির নেতাগুলোর উচিত অবসরে যাওয়া। যেখানে তাদের নেত্রী অনেকদিন থেকে জেলের মধ্যে থাকা সত্ত্বেও ঐ দলের নেতাকর্মীরা একদিন হরতালও পালন করতে পারেনি। তাই মন্ত্রী মহোদয়ের কথা সাথে আমি সহমত পোষণ করছি।

সাইফুল ইসলাম

২০১৯-০১-১৬ ০৪:৩৫:৫৫

মন্ত্রীর দায়িত্বশীল ও সংযত আচরণ করা প্রয়োজন। উনি বরাবরই কমেডি টাইপের কথাবার্তা বলে থাকে। কে পদত্যাগ করবে আর কে করবে না সেটা ঠিক করার উনি কে?

আপনার মতামত দিন

রক্তাক্ত লঙ্কা পেছনে কারা?

দেশে সন্ত্রাসী হামলার ঝুঁকি নেই

পাসপোর্ট বইয়ের সংকটে দুর্ভোগ চরমে

দগ্ধ তরুণীকে বাঁচানো গেল না

শেয়ারবাজারে উত্থান পতনের পেছনে কেউ জড়িত

ব্রুনাইয়ের সঙ্গে ৬ সমঝোতা সই

রাজধানীতে নিরাপত্তা জোরদার

ঘুমের ইনজেকশন দিয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, চিকিৎসক আটক

ব্যারিস্টার আমিনুল হকের দাফন আজ

কালা মিয়ার কাটা পা এখনো উদ্ধার হয়নি

সঞ্চয়পত্রে ঝোঁক সবার নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা সরকারের

শবেবরাত পালিত

অমিত শাহ বললেন বাংলাদেশি হলেই নাগরিকত্ব!

পশ্চিমবঙ্গে ৯২ শতাংশ বুথে আধা সামরিক বাহিনী

গণআন্দোলনের প্রস্তুতি নিন: মোশাররফ

ঋণখেলাপিদের আরো বড় ছাড় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের