গ্রামে থাকার একমাত্র শর্ত...

রকমারি

অনলাইন ডেস্ক | ২২ নভেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার
এই গ্রামের বাসিন্দাদের আর্থিক অবস্থা বেশ স্বচ্ছল। গ্রামবাসীরা বেশ শৌখিনও। চোখে দামি সানগ্লাস, গলায় সোনার চেন, আংটি, বড় বড় পানশালা, শিশুদের জন্য রয়েছে বিনোদন কেন্দ্র, পার্ক কী নেই এই গ্রামে।

সব থেকেও এই গ্রামে যে জিনিসটা নেই। তা হলো, গ্রামবাসীদের গায়ে কোনও জামা-কাপড়। না, আন্দামানের জাড়োয়া বা দক্ষিণ আমেরিকা কাওয়াহিবা আদিবাসীদের কথা বলছি না। এই গ্রামের বাসিন্দারা জাতে ব্রিটিশ। ব্রিটেনের হার্টফোর্ডশায়ারের এই গ্রামটির নাম স্পিলপ্লাজ।

শোনা যায়, ১৯২৯ সালে লন্ডন ছেড়ে চার্লস ম্যাকস্কি এবং তার স্ত্রী ডোরথি এই গ্রামে বসতি স্থাপন করেন। এই অঞ্চলে জমি কিনে প্রথমে তাবু তৈরি করে বসবাস শুরু করেন দুজনে। এলাকাটির নাম দেন ‘স্পিলপ্লাজ’ বা খেলার জায়গা। সপ্তাহান্তে ম্যাকস্কি আর ডোরথির পরিচিতরা তাঁদের সঙ্গে দেখা করতে আসতেন। এই ভাবে ধীরে ধীরে ম্যাকস্কি আর ডোরথির অতিথিদের কেউ কেউ এখানে বসবাস শুরু করেন। ১২ একর জমিতে গড়ে ওঠা এই গ্রামে বর্তমানে মোট ৫৫টি বাড়ি রয়েছে।

গ্রামে বিদ্যুত সংযোগ রয়েছে। গৃস্থলির প্রয়োজনীয় যাবতীয় আধুনিক সরঞ্জাম রয়েছে গ্রামবাসীদের কাছে। এমন কী আধুনিক, ফ্যাশনেবল জামা-কাপড়ও রয়েছে তাঁদের কাছে। গ্রামের বাইরে গেলে জামা-কাপড় পরেই যান তাঁরা। তবে গ্রামে থাকার সময় নগ্নতাই তাঁদের পছন্দ। স্পিলপ্লাজ গ্রামের বাসিন্দারা এই গ্রামটিকে ব্রিটেনের সবচেয়ে পুরনো নগ্নতাবাদী অঞ্চল বলে দাবি করেন। বাসিন্দাদের এই নগ্নতাবাদকে সমর্থন না করতে পারলে, এখানে এক চিলতেও জমি জায়গা কেনা যাবে না। তবে স্পিলপ্লাজের বাসিন্দাদের নগ্নতাবাদকে মেনে নিতে পারলে সেখানে জলের দরে জমি পেয়ে যেতে পারেন যে কেউ।

সূত্র- জিনিউজ



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রাঙ্গামাটিতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে সেনাসদস্য নিহত

ঈদে সড়কেই প্রাণ গেল ২২৪ জনের

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন আদৌ শুরু হচ্ছে কি?

কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৮

এখনো উচ্চ ঝুঁকি ২৪ ঘণ্টায় ১৭০৬ রোগী ভর্তি

পার্বত্য চট্টগ্রাম ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ

ডেঙ্গুর প্রজননস্থলে কতটা যেতে পারছেন মশক নিধন কর্মীরা?

বৈঠকের পর চামড়া বিক্রিতে সম্মত আড়তদাররা

জনগণকে সতর্ক পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকার পরামর্শ

ছিনতাইকারীর হাতে খুন হন কলেজছাত্র রাব্বী

শিক্ষিকাকে গণধর্ষণের পর হত্যা

শহিদুল আলমের মামলা স্থগিতই থাকবে

ডেঙ্গুর ভয়ে স্কুলে যাওয়া বন্ধ তবুও...

রক্ত পরীক্ষার রিপোর্ট নিয়ে ঢামেকে সংঘর্ষ, আহত ২৫

টার্গেট রাজনৈতিক সম্পর্ক দৃঢ়করণ

ইউজিসি প্রফেসর হলেন ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ