চট্টগ্রামে গৃহশিক্ষকের হাতে খুন ছাত্রীর মা

অনলাইন

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি | ২০ নভেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার, ৬:৫৩
প্রেম ও বিয়ের প্রস্তাবে প্রত্যাখ্যাত হয়ে শেষে ছাত্রীর মাকে দা দিয়ে কুপিয়ে খুন করেছে গৃহশিক্ষক শাহজাহান (২৯)। একইভাবে কুপিয়ে মারাতœকভাবে জখম করেছে ছাত্রীর বাবা ও চাচাকে।
মঙ্গলবার বিকেল সোয়া ৩টার দিকে চট্টগ্রাম মহানগরীর বিশ্ব কলোনি বেড়া মসজিদ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর স্থানীয় লোকজন আহত বাবা ও চাচাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। আর গৃহশিক্ষক শাহজাহানকে আটক করে থানায় সোপর্দ করে।   

চট্টগ্রাম মহানগর আকবর শাহ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. জসিম উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে গৃহশিক্ষক শাহজাহানকে আটক করে পুলিশ।
ছাত্রীর মা শাহীনা বেগমের (৩৫) মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে (চমেক) হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। নিহত শাহীনা বেগম (৩৫) স্থানীয় বেড়া মসজিদ এলাকার জসিম উদ্দিনের স্ত্রী বলে জানান ওসি।
ওসি বলেন, জসিম উদ্দিনের দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়েকে পড়াতেন স্থানীয় শাহজাহান। জিজ্ঞাসাবাদে শাহজাহান জানান, তিনি প্রথমে ছাত্রীকে প্রেমের প্রস্তাব দেন।
ছাত্রী প্রত্যাখান করলে শাহজাহান জসিম উদ্দিন ও শাহীনা বেগমের কাছে বিয়ের প্রস্তাব দেন। তারাও ক্ষুব্ধ হয়ে শাহজাহানকে বাসায় আসতে মানা করেন।

এ নিয়ে মঙ্গলবার বিকেলে শাহজাহান আবারও ছাত্রীর বাসায় গেলে শাহীনার সঙ্গে তার কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে শাহজাহান দা দিয়ে শাহীনাকে কুপিয়ে মারাতœকভাবে জখম করে। জসিম ও তার ছোট ভাই শাহীনাকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে শাহজাহান তাদেরকেও কুপিয়ে আহত করে। তবে জসিম ও তার ভাইয়ের আঘাত গুরুতর নয় বলে জানান ওসি মো. জসিম উদ্দিন।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়িতে দায়িত্বরত সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) আলাউদ্দিন তালুকদার জানান, বিকেল ৪টার দিকে শাহীনাকে হাসপাতালে আনার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ময়নাতদন্তের জন্য তার লাশ ফরেনসিক বিভাগে পাঠানো হয়েছে। আহত বাবা ও চাচাকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Nm nehal

২০১৮-১১-২০ ০৭:০২:১৩

প্রাপ্তবয়স্ক মেয়ের প্রাইভেট শিক্ষক হিসেবে আরেকটি প্রাপ্তবয়স্ক ছেলেকে নিয়োগ দেয়ার দুঃখজনক এবং ভয়ানক কুফল এই ঘটনা। অন্যান্য অভিভাবকদের সতর্কতা কাম্য।

আপনার মতামত দিন

ক্ষমতায় আসতে না পারলে পদ্মা সেতুর কাজ বন্ধ হয়ে যাবে: প্রধানমন্ত্রী

শেষ মরণ কামড় দিচ্ছে সরকার: রিজভী

টাঙ্গাইল ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব গ্রেপ্তার

সংঘাত গণতন্ত্রের সংজ্ঞা হতে পারে না: মার্কিন রাষ্ট্রদূত

মৌলভীবাজারে বিএনপি নেতা কর্মীদের ভয়ভীতি ও হুমকি দেয়া হচ্ছে

ঝালকাঠিতে বিএনপি প্রর্থীর গাড়ী ভাংচুর, মারধর

দৌলতপুরে বিএনপির সাধারণ সম্পাদকসহ আটক ১৪

বাংলাদেশে নির্বাচনী প্রচারণা প্রাণঘাতী হয়ে উঠেছে

আমার ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার জন্যই এ বানোয়াট ফোনালাপ

পাবনায় অধ্যাপক সাঈদের গাড়িতে হামলা

এবারের নির্বাচন যাতে গতবারের মতো না হয়

চাঁপাইনবাবগঞ্জে এক মঞ্চে প্রার্থীরা, নিলেন শপথ

গো বলয়ের রঙ বদলে বিরোধীরা আত্মবিশ্বাসী

নিতাই রায় চৌধুরীর নির্বাচনী অফিসে হামলা-ভাংচুর

সিলেটে প্রচারণায় গিয়ে ডা. জাফরুল্লাহ অসুস্থ

খন্দকার মোশাররফের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ থানায়