বিকেল ২টায় রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন শুরু

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৫ নভেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৪:৫১
আজ বিকাল ২টায় শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন। সকালে কক্সবাজারে সাংবাদিকদের ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেছেন পুনর্বাসন ও ত্রাণ বিষয়ক কমিশনার মোহাম্মদ আবুল কালাম। তিনি বলেছেন, যেসব রোহিঙ্গা স্বেচ্ছায় ফিরে যেতে চান তাদেরকেই বান্দরবানের ঘুমধুম স্থল পয়েন্ট দিয়ে ফেরত পাঠানো হবে। অনলাইন ডেইলি স্টারে এ খবর প্রকাশিত হয়েছে। এর আগে বার্তা সংস্থা রয়টার্স দুটি সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেছিল, আজ শুরু হচ্ছে না রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন। কিন্তু মোহাম্মদ আবুল কালাম বলেছেন, আজই শুরু হচ্ছে প্রত্যাবর্তন। এক্ষেত্রে কোনো রোহিঙ্গাকে জোর করে মিয়ানমারে ফেরত পাঠানো হবে না। এর আগে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক হাই কমিশনার নিশ্চিত করে যে, আহ ফেরত পাঠানো হবে ৩০টি পরিবারের ১৫০ রোহিঙ্গাকে।
তার আগে তাদেরকে তিন দিনের খাদ্য দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন আবুল কালাম আজাদ। তাদেরকে বহন করার জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে ৫টি বাস। তাছাড়া সব রকম প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। তিনি আরো বলেন, আগামী ১৫ দিনের মধ্যে মিয়ানমারে ফেরত পাঠানো হবে ২২৬০ জন রোহিঙ্গার মধ্যে বাকিদের। জাতিসংঘ, আইন প্রয়োগকারী সংস্থা ও স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক সভা শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব তথ্য দেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Joi

২০১৮-১১-১৫ ০১:৪৫:৫১

Good initiative

আপনার মতামত দিন

আওয়ামী লীগের আরো ৫ বছর ক্ষমতায় থাকা প্রয়োজন

‘অবরুদ্ধ’ এলাকাছাড়া পাঁচ প্রার্থী

কমনওয়েলথের মাধ্যমে অবাধ নির্বাচনে অংশগ্রহণে বাংলাদেশিদের অধিকার রক্ষার অঙ্গীকার করতে হবে

ঐক্যফ্রন্টের ইশতেহার জাতির সঙ্গে তামাশা- আওয়ামী লীগ

লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড এখন অর্থহীন কথায় পর্যবসিত হয়েছে

আমার লাশ নিয়ে যাবে ভোট দিতে

কোটা আন্দোলনের নেতাদের চোখে ঐক্যফ্রন্টের ইশতেহার

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে মার্কিন দূতের সাক্ষাৎ, শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের আশা

জেলে থাকা ১৪ প্রার্থীর মুক্তি দাবি ঐক্যফ্রন্টের

মাঠ ছাড়বো না

আওয়ামী লীগের ইশতেহার ঘোষণা আজ

নির্বাচন কমিশন সক্ষমতা দেখাচ্ছে না: বাম জোট

হামলা-সংঘাত অব্যাহত

উচ্চ আদালতে আটকে গেল বিএনপির পাঁচ জনের প্রার্থিতা

ব্যাংক-পুঁজিবাজারে আস্থাহীনতায় সঞ্চয়পত্রে ঝোঁক

মনিরুল হক চৌধুরীর অবস্থা সংকটাপন্ন