২৫ বছর নখ কাটেননি অরুণ

বাংলারজমিন

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি | ১২ নভেম্বর ২০১৮, সোমবার
নখের প্রতি যার অনন্য ভালোবাসা ফুলবাড়ীর সেই অরুণ কুমার সরকার (৩৪)। তিনি পঁচিশ বছর ধরে নিজের হাতের নখ না কেটে এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছেন। এ ঘটনা দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার লক্ষ্মীপুরের। ফুলবাড়ী পৌরশহর থেকে ৫ কিলোমিটার দূরে খয়েরবাড়ী ইউনিয়নের উত্তর লক্ষ্মীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক রবীন্দ্রনাথ সরকারের এক ছেলে এক মেয়ের মধ্যে বড় ছেলে অরুণ কুমার সরকার। পরিবার সূত্রে জানা গেছে, তখন থেকেই নখ রাখা শুরু করেন। এরপর থেকে তিনি আর তার নখ কাটতে চাননি। লোকমুখে শুনে অরুণের এই নখ একনজর দেখতে প্রতিদিন বিভিন্ন এলাকা থেকে অনেকেই তার দোকানে আসেন। অরুণের বাবা-মা ও আত্মীয়স্বজন তার নখ রাখার ব্যাপারে প্রথম প্রথম বাধা দিলেও পরে তারাও তা মেনে নেন।
এ অবস্থায় অনেক বছর অতিবাহিত হয়, অরুণের বড় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তার বাম হাতে রাখা নখগুলো বছরের পর বছর পর্যায়ক্রমে বড় হতে থাকে। একপর্যায়ে অরুণ বড় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তার নখগুলোও বড় হতে থাকে। এ অবস্থায় বিয়ে করে তার একটি কন্যাসন্তান জন্ম নেয়। বর্তমানে লক্ষ্মীপুর বাজারে তার কন্যা সন্তানের নামে কান্না ডিজিট্যাল ফটো স্টুডিও নামে একটি ফ্লোক্সিলোডের দোকান রয়েছে। সেখানে ছবি তোলা ও ডিস সাপ্লাইয়ের ব্যবসা করেই তিনি জীবিকা নির্বাহ করছেন। অরুণ কুমার সরকার বলেন, হাতে নখ রাখার ব্যাপারটা হঠাৎ করেই শখের বসে। তবে এতে তার তেমন কোনো সমস্যা হয় না। নখগুলোর প্রতি তার অনেক ভালোবাসা জন্মেছে; সে কারণে অরুণ তার নখগুলো আর কখনো কাটবেন না বলে জানান। এমনিতেই যদি কোনো কারণে এই নখের কোনো অংশ একটু ভেঙে যায়, তাতেই তিনি খুব কষ্ট পান বলেও জানান।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Saidur Rahaman

২০১৮-১১-১১ ১২:০০:০৬

Dirty

আপনার মতামত দিন

সৌম্যই পারলেন

নিজের বাড়ি ফিরতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চান ব্যারিস্টার তুরিনের মা

বিশ্বকাপের ২শ ছক্কা

২০ কিলোমিটার পথ পেরুতেই লাগছে ৬ ঘন্টা

টুঙ্গিপাড়ায় ৫টি মামলায় পুরুষশূন্য এলাকা

পরিবাগে বহুতল ভবনে আগুন

সাকিব কেন ২০১৯ বিশ্বকাপের সেরা তার ব্যাখ্যা দিয়েছে ট্রেলিগ্রাফ

এশিয়া-প্যাসিফিকে দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতির দেশ বাংলাদেশ- এডিবি

ঝিনাইদহে ৬৩ শতক জমি নিয়ে বিরোধ তুঙ্গে

ধর্ষণ মামলা করে বিপাকে প্রতিবন্ধী যুবতীর পরিবার

যশোরে বাসচাপায় মেধাবী দুই স্কুলছাত্র নিহত

‘নাগরিকত্ব ও সম্মান নিয়ে মিয়ানমারে ফিরতে চায় রোহিঙ্গারা’

চৌদ্দগ্রামে দুই লাশ উদ্ধার

মারা গেলেন স্বামীর দেয়া আগুনে দগ্ধ সাজেনূর

লতিফ সিদ্দিকী কারাগারে

অর্থনৈতিক স্বপ্নে পৌঁছতে হলে স্বাস্থ্যসেবা নিয়ে ভাবতে হবে