স্টেট ডিপার্টমেন্টের সর্বোচ্চ সম্মাননা পেলেন বার্নিকাট

শেষের পাতা

কূটনৈতিক রিপোর্টার | ২২ অক্টোবর ২০১৮, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ৬:৩২
মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের ‘সার্ভিস অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট। গতকাল তার হাতে এ সম্মাননা তুলে দেন সফররত যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক মুখ্য উপ-সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী এলিস ওয়েলস। স্টেট ডিপার্টমেন্ট বার্নিকাটের দক্ষ নেতৃত্বের জন্য এ সম্মাননা দিয়েছে। 

‘সার্ভিস অ্যাওয়ার্ড’কে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের সর্বোচ্চ সম্মাননা হিসেবে মনে করা হয়। উল্লেখ্য, চারদিনের সফরে এখন বাংলাদেশে রয়েছেন দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক মার্কিন মুখ্য উপ-সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী এলিস ওয়েলস। বাংলাদেশের বিভিন্ন পর্যায়ের প্রতিনিধির সঙ্গে দেখা-সাক্ষাৎ মতবিনিময় করছেন তিনি। রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন ছাড়াও আজ কূটনীতিক এবং সংসদের বাইরে থাকা বিরোধী নেতাদের সঙ্গে তার বৈঠক-ভোজের আয়োজন রয়েছে। রাতে ঢাকা ছেড়ে যাওয়ার আগে গণমাধ্যমের মুখোমুখিও হবেন ট্রাম্প প্রশাসনের প্রভাবশালী ওই প্রতিনিধি।

এদিকে, রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাটের সম্মাননা প্রাপ্তিতে অভিনন্দন জানিয়ে ঢাকাস্থ মার্কিন দূতাবাসের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে প্রকাশিত পোস্টে বলা হয়-  এটি রাষ্ট্রদূত বার্নিকাটের প্রাপ্য ছিল।
অসাধারণ নেতৃত্বগুণ ও কূটনৈতিক বিষয়ে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পক্ষ থেকে তাকে এ সম্মাননা দেয়া হয়েছে। মার্কিন দূতাবাসের ফেসবুক পেজের বন্ধুরাও অ্যাওয়ার্ড জয়ী দূতকে উষ্ণ অভিনন্দন জানিয়েছেন। সেখানে অনেকেই লিখেন সত্যিই এটা বার্নিকাটের প্রাপ্য ছিল। তিনি তা ডিজার্ভ করেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

sdd

২০১৮-১০-২২ ০৬:৪৯:৪২

বাংলাদেশ সম্পর্কে মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্ট পেন্টাগনের নীতির বিরুদ্ধে খেলছে, ফলে স্টেট ডিপার্টমেন্ট ও তাদের রাষ্ট্রদূতেরা বাংলাদেশে সাফল্য পাচ্ছেন না। কিন্তু আত্ম-প্রশংসায় মগ্ন স্টেট ডিপার্টমেন্ট যদি এসব পুরস্কার দিয়ে তাদের কর্মীদের উৎসাহিত করতে চায়, করতে পারে বা করছে, কিন্তু কূটনীতির মূল লক্ষ্য দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের উন্নয়ন কিন্তু ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

আপনার মতামত দিন

চাঁপাইনবাবগঞ্জে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে র‌্যাবের অভিযান, আটক ১

৪০০০০ দিরহামের পুরস্কার জিতে কাঁদলেন এক বাংলাদেশী

মির্জাপুরে সেই এসআই ক্লোজড, বাকিরা কারাগারে

২৯ বছরে সবচেয়ে মন্থর চীনের বার্ষিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি

ইরান-ইসরাইল হামলা, পাল্টা-হামলা

‘আমাদের বিয়ে নিয়ে আমি নিশ্চিত ছিলাম না’

ক্রিকেট জুয়ায় কাঁপছে দেশ

মামলার প্রস্তুতিতে ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থীরা

যেমন ছিল নতুন মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠক

পেনশনের অপেক্ষায় ১৫০০০ বেসরকারি শিক্ষক

‘ইতিবাচক ধারায়’ ফিরলে ছাত্রদলকে সহাবস্থানের সুযোগ দেবে ছাত্রলীগ

বৈধ অস্ত্রের বাজার ক্রেতা কারা

ডিজিটাল যুগেও ভরসা ঝাড়ফুঁকে

আদালতে খালেদার দেড় ঘণ্টা

বিএনপি নির্বাচনে হেরে হিতাহিত জ্ঞান হারিয়ে ফেলেছে

রোহিঙ্গা-ট্রাফিক সমস্যা সমাধানে কাজ করতে আগ্রহী দ. কোরিয়া