বাকস্বাধীনতা খর্ব করার অভিযোগে কমিশন সভা বর্জন মাহবুব তালুকদারের

অনলাইন

সিরাজুস সালেকিন | ১৫ অক্টোবর ২০১৮, সোমবার, ১২:০১ | সর্বশেষ আপডেট: ৭:৪৮
ছবি- সিরাজুস সালেকিন
বাকস্বাধীনতা খর্ব করার অভিযোগে নির্বাচন নির্বাচন কমিশনের সভা বর্জন করেছেন কমিশনার মাহবুব তালুকদার। আজ কমিশন সভা শুরুর পাঁচ মিনিট পর আনঅফিসিয়াল (ইউও) নোট দিয়ে বের হয়ে আসেন তিনি। বের হওয়ার পর তিনি সাংবাদিকদের সভা বর্জনের বিষয় নিশ্চিত করলেও বিস্তারিত কিছু বলেননি। সকাল ১১টা ১০ মিনিটে কমিশনের ৩৬ তম সভা শুরু হয়। সভায় বাকস্বাধীনতা খর্ব করার অভিযোগ তুলে কয়েকটি বিষয়ে নোট দিয়ে সভা থেকে বের হয়ে আসেন মাহবুব তালুকদার। সভা সূত্রে জানা গেছে, জাতীয় নির্বাচনে সেনা মোতায়েন ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন, নির্বাচনে নিরপেক্ষতা এবং সরকারের সঙ্গে সংলাপ ইস্যুতে কমিশন সভায় লিখিত প্রস্তাব উত্থাপনের সুযোগ চেয়েছিলেন মাহবুব তালুকদার। গত ৮ই অক্টোবর নির্বাচন কমিশন সচিবালয় থেকে ইউও (আনঅফিসিয়াল) নোটের মাধ্যমে এসব বিষয়ে লিখিত প্রস্তাব উত্থাপন করতে বলেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি)। কিন্তু তিনজন কমিশনার ওই প্রস্তাব উত্থাপন না করার জন্য সিইসিকে পাল্টা অনুরোধ করেন।
এর প্রতিবাদে সভা বর্জন করেন মাহবুব তালুকদার।

সভায় উত্থাপেনর জন্য তৈরি করা মাহবুব তালুকদারের প্রস্তাবে বলা হয়, ইসির সংলাপে ২৬টি দল সেনা মোতায়েনের পক্ষে ও ৩ টি দল বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছিল। স্বাধীনতার পর সব নির্বাচনে সেনা মোতায়েন হয়েছে। তবে তা স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসাবে।

ভোটে সেনা মোতায়েন হলেও তারা কীভাবে দায়িত্ব পালন করবে তা গুরুত্বপূর্ণ। সেই সঙ্গে আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর সংজ্ঞা থেকে সেনাবাহিনী বাদ দেয়ার পর তাদের কার্যপরিধি কেমন হবে তা নির্ধারিত হওয়া উচিত।
দশম সংসদ নির্বাচনে ১৫৩ আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার ঘটনা রয়েছে। এ নির্বাচনটি একটি দল বর্জনও করেছে। তবে বর্তমান বিরোধী দল সরকারের পাশাপাপাশি মন্ত্রিসভায় অংশ নিয়েছে। এ অবস্থায় কীভাবে একটি দল সরকারে ও বিরোধীদলে থাকে তা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। বিদ্যমান পরিস্থিতিতে রাজনৈতিক দলের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় আলোচনার মাধ্যমে কঠিন সমস্যারও সমাধান হতে পারে।

প্রস্তাবে আরো বলা হয়, ভোটে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি নির্বাচনের পূর্বশর্ত। রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড পরিচালনায় ক্ষমতাসীন দল যে সুবিধা ভোগ করে বিরোধীদল তা ভোগ করতে পারে না। শান্তিপূর্ণ রাজনৈতিক কর্মসূচিতে বাধা দেয়া হচ্ছে। বিরোধী দলের কমিটি ধরে ধরে মামলা দায়ের ও গায়েবি মামলা দায়েরে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ডকে প্রশ্নবিদ্ধ করছে বলে অভিযোগ রয়েছে। এ অবস্থায় তফসিল ঘোষণার আগে ইসি সম আচরণ নিশ্চিতে বিবৃতির মাধ্যমে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারে। লিখিত ওই প্রস্তাবে বলা হয়, নির্বাচনকালে সার্বিকভাবে জনপ্রশসান ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ইসির অধীনে ন্যস্ত করতে বলেছেন অনেকে। এ দু’টি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব ইসির কাছে অর্পিত হলে জন আস্থা বেড়ে যাবে এবং অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনে তা সহায়ক হবে।

এসব প্রস্তাব বাস্তবায়নযোগ্য মনে হলে তফসিল ঘোষণার আগে সরকারের সঙ্গে তা নিয়ে ইসির সংলাপ করা উচিত। প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা, নির্বাচন কমিশনার রফিকুল ইসলাম, কবিতা খানম ও শাহাদাত হোসেন চৌধুরী, কমিশন সচিবালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমেদ ও অন্যান্য কর্মকর্তারা বৈঠকে অংশ নেন। দুপুরে বিরতির পর দ্বিতীয় দফা বৈঠক শুরু হবে।

এর আগে গত কমিশন সভাতেও ইভিএম-এর ব্যাপারে আপত্তি তুলে নোট অব ডিসেন্ট দিয়েছিলেন মাহবুব তালুকদার। ওই সভা থেকেও তিনি ওয়াক আউট করেছিলেন।




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

রওশন আহমেদ হ্রদয়

২০১৮-১০-১৫ ২১:৪২:৫১

এতো বছর পর তাহলে আমরা নির্বাচন কমিশনে একজন সত্যিকারের পুরুষ কমিশনার পেলাম....

মোঃ ইমরুল কায়েস

২০১৮-১০-১৫ ২১:২৮:৪৪

সময় উপযোগী সাহসী পদক্ষে...

Shawon

২০১৮-১০-১৫ ১৬:৩৩:৪৮

We salute Mr. Mahbub Talukder.

Advocate Nazia Jahan

২০১৮-১০-১৫ ১১:২৭:৫৪

Thanks Mr Mahbub Talukdar

আসাদ

২০১৮-১০-১৫ ১০:৩৪:২৫

সেলুট আপনাকে

Kaiser ahmed

২০১৮-১০-১৫ ০৭:৪২:৫১

Despite all the irrational, one sided & autocratic actions of the Govt. There Iis stll

Nanu

২০১৮-১০-১৫ ০৬:৫০:২২

আপনাকে অনেক ধননবাদ।

Omar faruk

২০১৮-১০-১৫ ০৪:৫৬:৫৪

আপনার মত সাহসি যোদ্বা বাংলার মাটিতে বিরল ছাত্র জনতা ও সঠিক বিবেকবান মানুষ আপনার আদশ' নিয়ে পথ চলা শুরু করবে। আপনি সত্যের পথে লড়াকু সৈনিক।

Md a salam

২০১৮-১০-১৫ ০৪:৪৭:৪৮

খুব ভালো কাজ করেছে ধন্যবাদ

Md a salam

২০১৮-১০-১৫ ০৪:৪৭:৪৮

খুব ভালো কাজ করেছে ধন্যবাদ

Kazi Belal

২০১৮-১০-১৫ ০৪:৩৯:১১

Big salute for Mr Talukder. You are the freedom fighter of 2018...

সাজ্জাদ হুসাইন হিটু

২০১৮-১০-১৫ ০৪:৩১:৩৯

এখনো এই ধরনের সৎ ও আদর্শবান মানুষ বেঁচে আছে বলেই বাংলাদেশ টিকে আছে। আমি অন্তরের অন্তঃস্থল থেকে আপনাকে স্যালুট জানাই। আল্লাহ আপনার মঙ্গল করুন। ধন্যবাদ।

Zakir Hussain

২০১৮-১০-১৫ ০৩:৪৮:০৩

জনাব ধন্যবাদ আপনাকে

SM Rafiqul Islam

২০১৮-১০-১৫ ০৩:৩৪:৩১

Thanks Mr.Mahbub Talukdar.

A mojid

২০১৮-১০-১৫ ০৩:২১:১৭

বাংলাদেশের মানুষ আপনার আদর্শকে শ্রদ্ধার সাথে স্নরন করবেন

মোঃজুনায়েদ খান

২০১৮-১০-১৫ ০৩:০২:০৬

জনাব তালুকদার সাহেব জানি আপনি পারবেন না এতো গুলি হারামি লোকের সাথে,তার পরও বলবো সৎ পথে থাকলে আল্লাহ্ আপনাকে সাহায্য করবেন ইনশা আল্লা।

Jalal

২০১৮-১০-১৫ ০২:৪৩:৪২

এখন ও ন্যায় পরায়ণ ভালো মানুষ আছে আমাদের সমাজে ধন্যবাদ আপনাকে অন্যায়ের প্রতিবাদ করার সাহস দেখানোর জন্য।

Karim

২০১৮-১০-১৫ ১৫:৪১:০৫

Great decision. May Allah bless you.

ইকবাল

২০১৮-১০-১৫ ০২:৩৫:৪৫

মি, মাহবুব, আপনি আপনার অবস্থান অটুট রাখুন। আপনার অবস্থানে আপনাকে ইর্ষনীয় করে তুলবে আর যারা আপনার এই নিরেপক্ষ মতবাদ দলিয়ে যাচ্ছে তারা এখনই জনতার আদালতে নিন্দনীয়।

BIBEK

২০১৮-১০-১৫ ১৫:১৮:৩০

মাহবুব তালুকদার একজন প্রকৃত ভদ্রলোক যিনি সঠিক কাজ করার চেষ্টা করছেন আর ব্যর্থ হচ্ছেন।

Rajib Hossan

২০১৮-১০-১৫ ০২:০২:২৬

Good Decision for Mahbub Talukder.

md ataur rahnan

২০১৮-১০-১৫ ০১:২৯:১৭

সবার জন্য সমান সুযোগ করে দিতে ইসির এত অাপওি কেনো....?তাহলে সে বলে দিলেই তো পারে তার। তাহলে কি B M W কাছে সব নৈতিকতা বেচা হয়ে গেলো....?

alamin

২০১৮-১০-১৫ ০১:১৯:৫২

Eni 2018 'Muktijodda , thanks. Allah apnake khun ghum theke rokka koruk, Amin

Sheikh Latif

২০১৮-১০-১৫ ০১:০৮:৩৯

একটি ভাল ও সুষ্ঠ নির্বাচন করতে সি ই সি'র সমস্যা কোথায়........

Imran Al Karim

২০১৮-১০-১৫ ১৪:০৬:১৬

Great job well done go ahead. Personalty honesty buy from the market its god gifted.

jewel ahmed

২০১৮-১০-১৪ ২৩:৫৮:০৮

অন্যায়ের প্রতিবাদ করার জন্য ধন্যবাদ, জনাব মাহবুব তালুকদারকে।

ইকরামুজ্জামান বাতেন

২০১৮-১০-১৪ ২৩:৩৯:৩৪

thanks

টুটন হাবিব

২০১৮-১০-১৪ ২৩:২৮:২১

এখনও ভাল ও নীতিবান লোক আছে।এরা অন্ধসমর্থনে ব্যক্তিত্ব খোয়ায় না।

আপনার মতামত দিন

গণভবনে এরশাদ-বি. চৌধুরী

এবারের নির্বাচনে বিশেষ কোনো দলের প্রতি সমর্থন নেই ভারতের

প্রার্থী তালিকায় বড় পরিবর্তনের সম্ভাবনা কম

আমাদের নির্বাচনের দিনটি চুরি-ডাকাতির দিন হয়ে গেছে

সচিব, ডিএমপি কমিশনারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা দাবি

পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) আজ

রফিকুল ইসলাম মিয়া গ্রেপ্তার

এতোগুলি মানুষের স্বাধীনতাকে ভালোবাসাই আশার জায়গা

ইশতেহারে ডিজিটাল আইন সংশোধনের প্রতিশ্রুতি অন্তর্ভুক্তির আহ্বান

নির্বাচন সামনে রেখে পর্যবেক্ষণে বিনিয়োগকারীরা

বিএনপি’র মনোনয়ন প্রত্যাশীদের শপথ

সশস্ত্র বাহিনী দিবস আজ

ঐক্যফ্রন্টে যোগ দিতে পারেন সামাদ আজাদপুত্র ডন

দশ মাসে ৪৩৭ বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড

‘আমি বেশি দিন রাজনীতি করমু না’ -শামীম ওসমান

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘুরে গেলেন মিলার