খালেদা-তারেকের নাম না বলায় আমার বিরুদ্ধে সাজা: বাবর

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ১০ অক্টোবর ২০১৮, বুধবার, ৪:২৬ | সর্বশেষ আপডেট: ৬:০১
২১শে আগষ্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় শুনার পর মৃত্যুদন্ড  প্রাপ্ত বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর অসন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, এই মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও তার ছেলে তারেক রহমানের নাম না বলায় তাকে এ মামলায় আসামি করা হয়েছে। আজ নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারের পাশে বিশেষ আদালতে রায় ঘোষণার আগে লুৎফুজ্জামান বাবরকে কড়া নিরাপত্তায় আদালতে নিয়ে আসা হয়। রায়ের সময় তিনি কাটগড়ায় ছিলেন। রায়ের পর তিনি বলেন, এই মামলায় খালেদা জিয়া ও তারেকের নাম না বলায় আমাকে জড়ানো হয়েছে। তিনি আরো বলেন, আমাকে মিথ্যা অভিযোগে সাজা দেয়া হয়েছে। যারা মিথ্যা অভিযোগে আমাকে সাজা দিয়েছে তাদের বিচার আল্লাহ একদিন করবেন।

প্রসঙ্গত, ২১শে আগষ্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ে লুৎফুজ্জামান বাবরসহ ১৯ জনকে মৃত্যুদন্ড ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ ১৯ জনকে  যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক শাহেদ নূর উদ্দিন।  মামলার অন্য আসামিদের বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেয়া হয়েছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

kazi

২০১৮-১০-১০ ০৯:১৩:৩০

Tareq is already accused. So it wasn'tnecessary that you have been punished for not telling their name. You are accused because you were part of members in plot of killing mission. People also believe so.

আপনার মতামত দিন

এফআর টাওয়ার নির্মাণে দুর্নীতি ২৫ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

রাসেলকে মাসে দিতে হবে ৫ লাখ, জানাতে হবে আদালতকে

‘স্কুলের ভিতরে নেশায় বাধা দেয়ায় শিক্ষককে মারপিট’

ফেনীতে ধর্ষণ মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন, চারজনের ১৪ বছর কারাদণ্ড

প্রথমবারের মতো সফল লিভার প্রতিস্থাপন বিএসএমএমইউতে

৩১ ইটভাটা মালিকের বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে, হাইকোর্টকে পুলিশ

বেরোবির প্রশাসনিক ভবনে তালা

নির্যাতক মাদ্রাসা শিক্ষককে বাঁচাতে মরিয়া প্রভাবশালী মহল

লোকসভার সদস্য হিসেবে শপথ নিলেন নুসরাত ও মিমি

নড়বড়ে ও পুরনো সেতু দ্রুত মেরামতের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

লক্ষ্মীপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শ্রমিক নিহত

কমিটি নিয়ে কালীগঞ্জে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপে সংঘর্ষ, আহত ১৫

মির্জাগঞ্জে ব্রিজ ভেঙ্গে এলাকাবাসীর দুর্ভোগ

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কূটনীতির পথ স্থায়ীভাবে বন্ধ হয়ে গেছে: ইরান

‘কাউন্সিল হতে দেবে না ছাত্রদলের বিলুপ্ত কমিটি’

গ্রামবাসীর ওপর হামলার অভিযোগে ভারতে এক কর্নেল ও ৪০ সেনা সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা