১লা অক্টোবর থেকে রেডি হয়ে যান : মওদুদ

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার, ২:০১
১লা অক্টোবর থেকে নেতাকর্মীদের আন্দোলনের জন্য রেডি হয়ে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ।
আজ মঙ্গলবার বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে জাতীয় প্রেস ক্লাবে জাতীয়তাবাদী প্রজন্ম ৭১ এর আয়োজনে এক যুব সমাবেশে তিনি এ মন্তব্য করেন।
তিনি বলেন, এই প্রেস ক্লাবে বক্তব্য দিয়ে লাভ হবে না। আগামী ১লা অক্টোবর থেকে রেডি হয়ে যান। মওদুদ আহমদ বলেন,  আগামী তিন মাসে জাতীয়তাবাদী প্রজন্ম ৭১ মাঠে আাশা করি সক্রিয় ভুমিকা পালন করবেন।
তিনি বলেন, এই সরকার হল নীতি নৈতিকতা বিহীন। তাদের নীতি নৈতিকতা বলে কিছু নেই। আওয়ামী লীগ হল মিথ্যাচারের চ্যাম্পিয়ন।
কেউ তাদের সাথে মিথ্যাচারে কন্টেস্ট করে পারবেনা। বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলার বিষয়ে মওদুদ বলেন, আগে কয়েক বছর আগের কোন ঘটনায় শ্যোন অ্যারেস্ট দেখাতো। আর এখন ভৌতিক মামলা ও গায়েবী মামলা দেয় । কোন ঘটনা ঘটার প্রয়োজন নেই। এমনিতেই মামলা দেয়। গত ২১ দিনে ৪ হাজার মামলা দিয়েছে। আর এসব মামলায় আসামী করা হয়েছে ৩ লাখ ৩১ হাজার জনকে। তিনি বলেন, এই মামলা করতে আওয়ামী লীগ তাদের স্থানীয় নেতাদের ব্যবহার করেছে। তারা তালিকা পাঠিয়েছে। আর পুলিশ মামলা করেছে। মামলার আসামীদের সবগুলো নামের ঠিকানা ও পিতার নাম সঠিক আছে। মৃত ব্যক্তির নামে মামলা হয়েছে এটা হয়তো ভুল হয়েছে। সুতরাং এটা একটি ফ্যাসিস্ট রাষ্ট্রেই এটা সম্ভব।
জাতীয় ঐক্যের বিষয়ে তিনি বলেন, প্রথমে তারা স্বাগত জানায় পরে তারা আক্রমণ করে। ছাত্রদের কোটা আন্দোলনে স্বাগত জানিয়ে পরে তাদের আক্রমণ করেছে।
প্রধানমন্ত্রী ঐক্য প্রক্রিয়াকে প্রথমে স্বাগত জানিয়েছেন। আবার বললেন এখানে সবাই দুর্নীতিবাজ, সুদখোর ও ঘুষখোররা মিলে ঐক্য করেছে। ঐক্য হওয়ার পর প্রধানমন্ত্রীর সহ্য হচ্ছে না। কারণ তারা জানে জাতী যদি ঐক্যবদ্ধ হয় তাহলে যে কোন স্বৈরাচারী সরকারের পতন ঘটানো সম্ভব। আইয়ুব খান পর্যন্ত মামলা প্রত্যাহার করতে বাধ্য হয়েছিল।
এসময় তিনি প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে বলেন,  আপনার এই কথা আপনি প্রত্যাহার করুন। তা না হলে রাজনীতিতে কোন শালীনতা আর থাকবে না।
মওদুদ আহমদ বলেন, নতুন খবর বেরিয়েছে বিশ্বের ভেতর সবচেয়ে বড় স্বৈরাচার হচ্ছে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী। বিশ্ব আপনাকে স্বীকৃতি দিচ্ছে। আমরা না।

যুব সমাবেশে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেন, আজ দেশে বিদেশে আওয়ামী লীগের নেতারা কাউকে বাসায় দাওয়াত দিলে মানুষ যেতে চায় না। সবাই ভাবে দুর্নীতিবাজের বাসায়
কেউ বাইরে বের হলে বাসায় পরিজনরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে সে কি আর বাসায় ফিরে আসবে। জীবীত আছে। তিনি বলেন,  দেশে আজ নিকশ কালো অন্ধকার নেমে এসেছে। পাকিস্তান আমলেও মানুষ ভোট দিয়েছে। এখন সেটা দিতে পারেনা। আমাদের রাস্তায় নামতেই হবে।

সংগঠনের সভাপতি ঢালী আমিনুল ইসলাম রিপনের সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন - বিএনপির  সহ সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, চিত্র নায়িকা  শায়লা প্রমুখ।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

নির্বাচনে জয়-পরাজয়ে যা ফ্যাক্টর হতে পারে

প্রকৃত নির্বাচন দেখতে চান ইউরোপের কূটনীতিকরা

‘ক্ষমতায় গেলে অবশ্যই ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন বাতিল করব’

মিরপুর থানা বিএনপি সভাপতিসহ ৩জন গ্রেপ্তার

অবশেষে নির্বাচনী দৌড়ে হিরো আলম

খালেদা জিয়ার প্রার্থিতা বাতিলের বিষয়ে হাইকোর্টের আদেশ কাল

‘নির্বাচনে আপনারা তো হেরে যাচ্ছেন ইনশাআল্লাহ’

‘বৃটেন এখনও অনুচ্ছেদ ৫০ রদ করতে পারে’

তাজমহলে প্রবেশমূল্য বেড়েছে

রাতেই দেশ ছাড়ছেন এরশাদ

নাজিব রাজাক গ্রেপ্তার

সিইসিসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার রুল জারি

জবরদস্তি সত্ত্বেও জনগণ ধানের শীষের প্রার্থীকে ভোট দেবেই: নজরুল

তেরেসা মে’র সতর্কতা

ধানের শীষ প্রতীক পেলেন রেজা কিবরিয়া

হানিমুনেই মৃত্যু!