নান্নুর বাসায় ডাকাতি

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ৬:৪৮
জাতীয় ক্রিকেট দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নুর বাসায় ডাকাতি ও মালামাল লুটপাট হয়েছে। তার মোহাম্মদপুরের নবোদয় হাউজিং সোসাইটির বাসায় এই ডাকাতির ঘটনা ঘটে। শুক্রবার ডাকাতির ঘটনা ঘটলেও তখন কেউই টের পায়নি। গতকাল সন্ধ্যায় প্রথম জানতে পারে তার বোনের পরিবার। এশিয়া কাপের জন্য বাংলাদেশ দলের সঙ্গে মিনহাজুল দুবাই যাওয়ায় তালাবদ্ধ অবস্থায় ছিল তার বাসা। ডাকাতি হওয়ার খবর শুনে আজ সকাল ১১টার দিকে দেশে ফিরেন তিনি। এ বিষয়ে দৈনিক মানবজমিনকে মিনহাজুল আবেদিন নান্নু বলেন, আমার স্ত্রী ও আমি দু’জনই বাংলাদেশ জাতীয় দলের সঙ্গে দুবাইয়ে ছিলাম। সেখান থেকে জানতে পারি আমার মোহাম্মদ পুরের বাসায় ডাকাতি হয়েছে।
সেই সংবাদে দেশে ফিরে এখনই বাসায় আসলাম। বাসায় এসে দেখি ডাকাত দল আমার বাসার সব কিছু নিয়ে গেছে। পুলিশ এসেছে। কী কী ক্ষতি হয়েছে তার লিস্ট করছি। তারপর হিসেবে করে বলা যাবে কী পরিমাণ সম্পদ খোয়া গেছে। আমি দ্রুতই আইনী ব্যাবস্থা নেয়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছি। পরবর্তীতে আমি এই বিষয়ে বিস্তারিত জানাতে পারবো। মোহাম্মদপুরের বাসায় দ্বিতীয় তলায় থাকেন মিনহাজুল। উপরের তলায় থাকেন তার বোনের পরিবার। ডাকাতির সময় অবশ্য কেউই টের পায়নি। মিনহাজুলের বড় ভাই নুরুল আবেদীন নোবেল জানান, ডাকাতি হয়েছে শুক্রবার। তখন কেউই টের পায়নি। গতকাল সন্ধ্যায় আমরা জানতে পেরেছি। খুব বড় ধরণের ডাকাতি হয়েছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

kazi

২০১৮-০৯-২৩ ০২:৫২:৫০

শহরেই যদি এরকম ডাকাতি হয় তাহলে গ্রাম ও মফস্বল শহরের অবস্তার কি অবনতি হয়েছে ভাবতেও গা শিউরে উঠে। শুনেছি গ্রামে চুরি ডাকাতি বেড়েছে। শ্রীমঙ্গল ডাকাতির খবর ও পড়েছি। পুলিশ আছে তোষামোদ করে বিরোধী মতের লোকের খোঁজে। তাদের নাকের ডগায় ডাকাতরা নিচ্ছে মাল লুটে।

kazi

২০১৮-০৯-২৩ ০২:৪৯:৫১

শহরেই যদি এরকম ডাকাতি হয় তাহলে গ্রাম ও মফস্বল শহরের অবস্তার কি অবনতি হয়েছে ভাবতেও গা শিউরে উঠে। শুনেছি গ্রামে চুরি ডাকাতি বেড়েছে। শ্রীমঙ্গল ডাকাতির খবর ও পড়েছি। পুলিশ আছে তোষামোদ করে বিরোধী মতের লোকের খোঁজে। তাদের নাকের ডগায় ডাকাতরা নিচ্ছে মাল লুটে।

আপনার মতামত দিন

সাইফউদ্দিনকে ছাড়াই কী খেলতে হবে?

রবিন হুডের শহরে বড় আশায় মাশরাফি

হঠাৎ বদলে গেল আয়াজের জীবন

পায়রা বিদ্যুৎকেন্দ্রে সংঘর্ষ চীনা শ্রমিক নিহত

আসামি সিরাজকে রিমান্ড শেষে কারাগারে প্রেরণ

৩০ লাখ শহীদকে চিহ্নিত করার পরিকল্পনা নেয়া হচ্ছে: সংসদে প্রধানমন্ত্রী

শাজাহান খানের ভাইয়ের কাছে হারলেন নৌকার প্রার্থী

আন্দোলনে উত্তাল বুয়েট

কর্তৃত্ববাদী শাসনের অনিশ্চিত গন্তব্যে বাংলাদেশ

বাজেট নিয়ে অনেক প্রশ্নের উত্তর চান রুমিন ফারহানা

মসজিদে ঘোষণা দিয়েও ভোটার আনা যাচ্ছে না

২ স্কুলছাত্রীসহ ৫ কিশোরী ধর্ষিত

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য হলেন টুকু-সেলিমা

সরকার কৌশল করে খালেদা জিয়াকে জামিন দিচ্ছে না: মির্জা ফখরুল

দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গকারীদের শাস্তি দেয়া হবে: কাদের

আমলা-কোহলির মধুর লড়াই