ড. কামালের সঙ্গে জোনায়েদ সাকির বৈঠক

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:০০
জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার আহ্বায়ক প্রবীণ আইনজ্ঞ ড. কামাল হোসেনের সঙ্গে বৈঠক করেছেন গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি। গতকাল বুধবার রাতে রাজধানীর বেইলী রোডের বাসায় তিনি ড. কামালের সঙ্গে দেখা করেন।

গণফোরাম নেতারা জানিয়েছেন, জাতীয় ঐক্য নিয়ে  জোনায়েদ সাকি নিজেদের কিছু ভাবনা তুলে ধরেন। জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার ভাবনাকে আরো উন্নত করার কথাও বলেন। ড. কামালের জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া নিয়ে তাদের বাম গণতান্ত্রিক জোটে আলোচনা হওয়ার বিষয়ও তিনি উল্লেখ করেছেন। এই জোটে রয়েছে, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল, বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (মার্কসবাদী), গণসংহতি আন্দোলন, বাংলাদেশের ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগ, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টি ও বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক আন্দোলন। কিন্তু জোনায়েদ সাকি আমন্ত্রণ পেলেও জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার আগামী শনিবারের সমাবেশে যোগ দেবেন কিনা তা জানাননি। তবে আরো আলোচনা হবে বলে জানিয়েছেন।


গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি এডভোকেট সুব্রত চৌধুরী মানবজমিনকে বলেন, স্যার কিছুটা অসুস্থ। সংক্ষিপ্ত কথা হয়েছে। তাকে জোনায়েদ সাকি জানিয়েছেন যে, তাদের কর্মসূচির সঙ্গে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার কর্মসূচির অনেক মিল রয়েছে। হয়তো ভবিষ্যতে আমাদের সঙ্গে তার দল একসঙ্গে বা যুগপৎভাবে কাজ করতে পারে।

গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি বলেছেন, আমাদের একটা গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা গড়ে তুলতে হবে। এজন্য আমরা বলেছি একটা জাতীয় সনদ তৈরি করতে। যার ভিত্তিতে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে একটা জাতীয় ঐক্যমত তৈরি হতে পারে। জাতীয় সচেতনতা দরকার সরকারি দলের সঙ্গেও। কেননা, সরকারি দল ছাড়া জাতীয় ঐকমত্য হবে না। এই জাতীয় সচেতনতা তৈরি করতে আমাদের পক্ষ থেকেও উদ্যোগ আছে, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার তরফেও আছে।

তিনি আরো বলেন, আমাদের অনেক দিন ধরেই আলোচনা চলছে। গণসংহতি আন্দোলনের পক্ষ থেকেও একটি সনদ তৈরি করেছি। বিদ্যমান যে রাজনৈতিক ব্যবস্থার মধ্যে আমরা আছি, সেই ব্যবস্থা ফেল করে যাচ্ছে। এটা সংঘাত ছাড়া নতুন কিছু দিতে পারছে না। কাজেই আমাদের নতুন একটি রাজনৈতিক ব্যবস্থায় যেতে হবে। কতগুলো নতুন শর্তে আমাদের যেতে হবে। যেখানে রাজনৈতিক দলগুলোর শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান সম্ভব।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সরফরাজদের জন্য ইমরানের তিন পরামর্শ

হলমার্কের জেসমিনকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

‘মোবাইল ফোনে শুল্ক বাড়ানোর প্রস্তাব আত্মঘাতী’

পাক-ভারত মহারণ, ব্যাটিংয়ে ভারত

মুক্তি পাবে সৌদির সেই কিশোর!

এ সপ্তাহেই খালেদা জিয়ার জামিন, আশা মওদুদের

ভারতে তাপমাত্রা ৪৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, একদিনে মৃত ৪০

ছাগলনাইয়ায় নিখোঁজের ৪দিন পর কৃষকের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার

ঘন্টায় ৩৯ পেন্সের মজুরিতে বাংলাদেশী শ্রমিকদের তৈরি টিশার্ট ২০ পাউন্ডে বিক্রি করছে লিভ.ইইউ

‘ভোক্তা অধিকারকে হটলাইন চালুর নির্দেশ’

একদিনেই সাড়ে ছয় হাজার ট্রাফিক আইন অমান্য মামলা

ডিএমপি’র দুই থানার ওসি রদবদল

পিলারের সঙ্গে মোটরসাইকেলের ধাক্কা, আরোহী নিহত

ফের আন্দোলনে ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধ নেতারা

ইউরোপের দালালদের টার্গেট বাংলাদেশী তরুণ-যুবকরা

কারাগারে পরিবর্তন হলো সকালের নাস্তার মেন্যু